Skip to content

২১শে ফেব্রুয়ারী, ২০২৪ খ্রিষ্টাব্দ | বুধবার | ৮ই ফাল্গুন, ১৪৩০ বঙ্গাব্দ

বরফে ত্বকের উজ্জ্বলতা

সাধারণত ব্যথা বা ফোলাভাব কমাতে আমরা বরফ ব্যবহার করি। বরফ আবার শাকসবজি ও অন্যান্য খাবারও টাটকা রাখে। কিন্তু ত্বকের পরিচর্যায়ও বরফ দারুণ কাজ দেয়।

প্রতিদিন এক টুকরো বরফ ব্যবহারে ত্বকের উজ্জ্বলতা বাড়ে। ত্বকের দাগ ও ব্রণ কমে। রক্ত সঞ্চালন বাড়ে। চোখের নীচে ফোলা ভাবও দূর হয়। তাই বাইরে থেকে ফিরে ভালো করে মুখ পরিষ্কার করে এক টুকরো বরফ ঘষে নিন। দেখবেন এতে ত্বকের উজ্জ্বলতা বৃদ্ধি পাবে। ত্বকের নানা সমস্যাও কমবে।

শুধু বরফও মুখে ঘষতে পারেন, আবার বিভিন্ন প্রাকৃতিক উপাদান দিয়ে আইস কিউব তৈরি করেও মুখে লাগাতে পারেন। ত্বকে আইস কিউব ব্যবহারের কিছু টিপস জানবো আজকের প্রতিবেদনে।

অ্যালোভেরা ও বেসিল আইস কিউব

অ্যালোভেরা ও বেসিল উভয়ই ত্বকের জন্য উপকারী। অ্যালোভেরা ত্বকের অতিরিক্ত তৈলাক্ত ভাব কমায়। ব্রণ নিরাময় করে। আর বেসিলে রয়েছে অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট বৈশিষ্ট্য। এটি ত্বকের ট্যান কমায়। ত্বককে প্রশমিত করে।

এই কিউব তৈরি করতে বেসিল পাতা গুঁড়ো করে ১ কাপ পানিতে মেশান। এতে ২ চা চামচ অ্যালোভেরা মিশিয়ে নিন। সব উপকরণ ভালো ভাবে মেশানো হয়ে গেলে একটি আইস কিউব ট্রেতে ঢেলে ডিপ ফ্রিজে রেখে দিন। বরফ জমে গেলে এক একটা করে কিউব মুখে মাখুন।

শসা ও লেবু আইস কিউব

শসা ও লেবুতে থাকে অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট। এটি ত্বককে পরিষ্কার ও উজ্জ্বল করে। ত্বকের সতেজতা বাড়ায়। এই আইস কিউব ত্বকের রক্ত সঞ্চালন বাড়ায়। ব্রণ, ব়্যাশ ও ত্বকের লালচেভাব দূর করবে।

প্রথমে শসার পেস্ট তৈরি করে নিন। এর সঙ্গে একটি লেবুর রস মিশিয়ে আইস কিউব ট্রেতে ঢেলে ফ্রিজে রাখুন কয়েক ঘণ্টা। তারপরে মুখে মাখুন।

গোলাপ জল ও আইস কিউব

ত্বককে ময়েশ্চারাইজ করে গোলাপ জল। প্রতিদিন গোলাপ জলের আইস কিউব দিয়ে ত্বকে ম্যাসাজ করলে ত্বক উজ্জ্বল হয়, দাগছোপ কমে, বলিরেখাও দূর হয়।

এটি তৈরিতে ১ কাপ গোলাপ জলের সঙ্গে ১ কাপ সাধারণ পানি মিশিয়ে আইস কিউব ট্রেতে ঢেলে দিন। ফ্রিজে রাখুন বেশ কিছুক্ষণ। বরফ জমে গেলে একটা করে কিউব প্রতিদিন মুখে মাখুন।

কেশর আইস কিউব

প্রাচীনকাল থেকেই রুপচর্চায় ব্যবহৃত হচ্ছে কেশর। নিয়মিত কেশর আইস কিউব ব্যবহারে ট্যান, দাগছোপ, পিম্পল, পিগমেন্টেশন হালকা হবে। ত্বক ঝলমলে হয়ে উঠবে।

ব্যবহারের জন্য কয়েকটি কেশর পানিতে ভিজিয়ে রাখুন। এই পানিতেই পরিমাণমতো গোলাপ জল মিশিয়ে বরফের ট্রে ভর্তি করুন। বেশ কয়েক ঘণ্টা ফ্রিজে রাখুন। তারপর মুখে ব্যবহার করুন।

হলুদ আইস কিউব

হলুদে থাকা অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট ত্বকে বার্ধক্যের ছাপ পড়তে দেয় না। চোখের নীচে কালো দাগ ও পিগমেন্টেশন কমাতে সাহায্য করে।

একটি পাত্রে ১ চামচ হলুদ গুঁড়ো ও ১ কাপ গোলাপ জল মিশিয়ে আইস ট্রেতে ঢেলে দিন। ডিপ ফ্রিজে বেশ কয়েক ঘণ্টা রাখুন। বরফ জমে গেলে একটি করে মুখে মাখুন।সূত্র: বোল্ডস্কাই

ডাউনলোড করুন অনন্যা অ্যাপ