Skip to content

২১শে ফেব্রুয়ারী, ২০২৪ খ্রিষ্টাব্দ | বুধবার | ৮ই ফাল্গুন, ১৪৩০ বঙ্গাব্দ

খুব কম পুরুষই নারী অধিকার নিয়ে কথা বলেন: তাসমিমা হোসেন

দৈনিক ইত্তেফাক ও পাক্ষিক অনন্যার সম্পাদক তাসমিমা হোসেন বলেছেন, পাক্ষিক অনন্যা ৩৪ বছর ধরে নারীর অধিকার নিয়ে কাজ করছে এবং নারীকে সম্মান জানাচ্ছে। নারীরা এখন এগিয়ে আসছে। আমাদের সমাজে নারীরা আয় করছে, অর্থনৈতিক উন্নয়নে কাজ করছে। নারীদের এই বিষয়গুলো তুলে ধরার জন্য অনন্যা, আমরা নারীদের সঙ্গে আছি।

আন্তর্জাতিক নারী দিবস ও স্বাধীনতা দিবস উপলক্ষে মঙ্গলবার (৭ মার্চ) বেলা ১১টায় জাতীয় প্রেস ক্লাবে এক অনুষ্ঠানে তিনি একথা বলেন।

সারা দেশে শিক্ষার্থীদের মধ্যে স্বাস্থ্য শিক্ষা সচেতনতা বিষয়ক সেমিনার ও মুক্তিযুদ্ধভিত্তিক স্বল্পদৈর্ঘ্য চলচ্চিত্র ‘ওমর ফারুকের মা’ প্রদর্শনীর এই অনুষ্ঠান আয়োজন করে ‘পাক্ষিক অনন্যা’ ও ‘আমরা নারী’। এই আয়োজনকে ঘিরে শিক্ষার্থীদের জীবনাদর্শ, মূল্যবোধ ও মানবিক মানুষ হওয়ার উদ্দেশ্য নিয়ে যৌথভাবে কাজ করছে প্রতিষ্ঠান দু’টি। পরবর্তী প্রজন্মকে সাংস্কৃতিক বিকাশ, মানসিক উন্নয়ন ও আদর্শ মানুষ হিসেবে দেশের সম্পদে পরিণত করাই এই দুই সংগঠনের মূল উদ্দেশ্য।

এরই অংশ হিসেবে ৮ মার্চ আন্তর্জাতিক নারী দিবস ও ২৬শে মার্চ স্বাধীনতা দিবস উপলক্ষে জাতীয় প্রেস ক্লাবের মাওলানা মো. আকরাম খাঁ হলে অনুষ্ঠিত হলো ‘স্বাস্থ্য শিক্ষা সচেতনতা’ বিষয়ক সেমিনার এবং এম এম জাহিদুর রহমান বিপ্লব পরিচালিত মুক্তিযুদ্ধভিত্তিক স্বল্পদৈর্ঘ্য চলচ্চিত্র ‘ওমর ফারুকের মা’ প্রদর্শন।

এতে আলোচক হিসেবে দৈনিক ইত্তেফাক ও পাক্ষিক অনন্যার সম্পাদক তাসমিমা হোসেনসহ উপস্থিত ছিলেন ‘আমরা নারী’র প্রতিষ্ঠাতা ও প্রধান সমন্বয়ক এম এম জাহিদুর রহমান বিপ্লব এবং ‘আমরা নারী’র প্রেসিডেন্ট শবনম শেহনাজ চৌধুরী।

তাসমিমা হোসেন বলেন, ‘আমরা নারী’ বলে যে জিনিসটা এবং ‘ওমর ফারুকের মা’ বলে যে সিনেমাটা বানিয়েছে একজন তরুণ, তাকে সহযোগিতা করার জন্য আমরা দুইজন নারী এখানে উপস্থিত হয়েছি। কারণ আমরা দেখেছি সবসময় নারীরাই নারীদের কথা বলে। খুব কম পুরুষ পাওয়া যায়- যারা নারীর অধিকার নিয়ে একটু উৎসুক হয়। কিন্তু আমার কথা হচ্ছে নারীর যে কষ্ট, নারীর যে অধিকার সেই জিনিসগুলো সম্পর্কে পুরুষরা অতোটা বুঝতে পারে না বা জানে না।

তিনি বলেন, বাইরে বের হলেই নারীদের উপর আঘাত আসছে, ধর্মের নামে নারীদের পুনরায় ঘরে ফিরে যেতে বলা হচ্ছে। এই সমস্ত জিনিস নিয়ে আমাদের নারী-পুরুষ-সমাজকে চিন্তা করতে হবে। সেই চিন্তাধারা থেকে নারীদের নিয়ে যারা কাজ করে আমি তাদের সহযোগিতা করতে ইচ্ছুক এবং চেষ্টা করি।

তিনি আরও বলেন, নারীরা মানবসম্পদ। গার্মেন্টস শ্রমিকদের অধিকাংশই নারী। তারা আয় করছে, অর্থনীতিতে অবদান রাখছে। নারী সংসার সামলে আয়ও করছে। সেই আয়টাকে জিডিপিতে ধরতে হবে। কারণ এই আয় দেশের দারিদ্র দূর করতে সাহায্য করছে। এ জন্য নারীদের উৎসাহ দিতে হবে। ইসলামে নারী-পুরুষের মধ্যকার শ্রদ্ধাবোধ নিয়ে কথা বলা হয়েছে। নারী-পুরুষ একজন আরেকজনকে যে মেনে চলা- এটি অবনত হওয়া নয়, এটি পরস্পরের প্রতি শ্রদ্ধা।

তাসমিমা হোসেন বলেন, কখন বয়ঃসন্ধি হয়, যখন পিরিয়ড হবে, ছেলে-মেয়ে কেনো একে অন্যের প্রতি আকৃষ্ট হয় এগুলো আমাদের কারিকুলামে যোগ করতে হবে। এই বিষয়গুলো সম্পর্কে আমরা সচেতন হই না বলেই ৬ বছরের মেয়ে ধর্ষণের শিকার হয়। কম বয়সে মেয়েদের বিয়ে দিয়ে দেওয়া হলে সে ভালো মা হতে পারে না। সে দুর্বল মা হয়। সে ঠিক মতো সংসার করতে পারে না দলে দরিদ্রতা দেখা যায়।

দৈনিক ইত্তেফাকের সম্পাদক বলেন, আমারা একটি স্বাধীন দেশ পেয়েছি, আমাদের আলাদা একটি পরিচিতি আছে। নিজের দেশকে স্বাধীন করেছি নিজের ভাষায় কথা বলার জন্য। এই সমাজ আমাদের তৈরি করতে হবে। এই সমাজ যদি আমরা তৈরি করতে না পারি তাহলে আমরা সমাজে থাকতে পারবো না। এ বিষয়ে আমাদের সকলের দায়িত্ব নিতে হবে।

উল্লেখ্য, ‘অনন্যা’ দেশের একটি শীর্ষস্থানীয় নারী ম্যাগাজিন। ১৯৮৮ সাল থেকে প্রকাশিত এই পাক্ষিক ম্যাগাজিনটি জীবনের প্রতিটি ক্ষেত্রে বাংলাদেশি নারীর সাথে সংযোগের ভিত্তিতে তৈরি করা হয়েছে। অনন্যা নারী তাদের সমস্যা উত্তরণে শিক্ষা, স্বাস্থ্য, কর্মজীবন ও জীবনের অন্যান্য গুরুত্বপূর্ণ দিক সম্পর্কে সম্মুখ ধারণা প্রদান করে।

‘আমরা নারী’ সামাজিক সংগঠনটি নারী কল্যাণ, অলাভজনক এবং সর্বোপরি সমাজকল্যাণের জন্য নারীদের একটি বিশেষ প্লাটফর্ম ও প্রচেষ্টা। সংগঠনটি নারী অধিকার, স্বাস্থ্য, শিক্ষা, নিরাপদ খাদ্যসহ বিভিন্ন ধরনের সচেতনতামূলক কার্যক্রম বাস্তবায়নপূর্বক সমাজ উন্নয়নমূলক কাজে নিয়োজিত রয়েছে।

অনন্যা/এআই

ডাউনলোড করুন অনন্যা অ্যাপ