Skip to content

২৪শে সেপ্টেম্বর, ২০২২ খ্রিষ্টাব্দ | শনিবার | ৯ই আশ্বিন, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ

বন্যাকবলিত এলাকায় আছে সাড়ে ৬ লাখ অন্তঃসত্ত্বা নারী

পাকিস্তানের বন্যা পরিস্থিতির দিনের পর দিন আরও অবনতি হচ্ছে। টানা বর্ষণ ও পাকিস্তানের উত্তরাঞ্চলের পার্বত্য এলাকার বিভিন্ন হিমবাহ গলে সৃষ্ট ভয়াবহ এ বন্যায় পাকিস্তানের প্রায় এক তৃতীয়াংশ এখন পানির নিচে রয়েছে। দিন যত গড়াচ্ছে, বন্যার পানি নেমে যাওয়ার পরিবর্তে তা বেশি এলাকাজুড়ে বিস্তৃত হচ্ছে। বন্যাকবলিত এলাকার মানুষ দিন পার করছে অসহায়ভাবে। যার মধ্যে আছে প্রায় সাড়ে ৬ লাখ অন্তঃসত্ত্বা নারী।

এমন আঁতকে ওঠার মতো তথ্য প্রকাশ করেছে জাতিসংঘের জনসংখ্যা বিষয়ক সংস্থা ইউএনএফপিএ। সংস্থাটির দেওয়া তথ্য অনুযায়ী, এরই মধ্যে ৭৩ হাজার নারীর আগামী মাসেই সন্তান প্রসবের কথা রয়েছে। এমন পরিস্থিতিতে বন্যাদুর্গত এলাকাগুলোয় জরুরি ভিত্তিতে মাতৃস্বাস্থ্যসেবা দেওয়া দরকার।

ইউএনএফপিএ’র তথ্য অনুযায়ী, সিন্ধু প্রদেশে এক হাজারটির বেশি স্বাস্থ্যসেবাকেন্দ্র আংশিক কিংবা পুরোপুরি ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে। বেলুচিস্তানের বিভিন্ন জেলায় ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে ১৯৮টি স্বাস্থ্যসেবাকেন্দ্র। রাস্তাঘাট ও সেতুগুলো ক্ষতিগ্রস্ত হওয়ায় নারী ও কিশোরীরা স্বাস্থ্যকেন্দ্রগুলোয় যেতে পারছেন না।

এসব তথ্য প্রকাশ করে সংস্থাটি বলেছে, জরুরি অবস্থা কিংবা প্রাকৃতিক দুর্যোগ কবে শেষ হবে, তার জন্য গর্ভাবস্থা কিংবা সন্তান জন্মদানকে থামিয়ে রাখা যায় না। আর এমন পরিস্থিতিতে নারী ও শিশুরা অসহায় থাকে এবং তাদের জন্য অনেক বেশি সুরক্ষার প্রয়োজন।