Skip to content

২রা অক্টোবর, ২০২২ খ্রিষ্টাব্দ | রবিবার | ১৭ই আশ্বিন, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ

মেয়ে হওয়া কি অপরাধ! 

যে দেশের উচ্চ স্তরে নারী বসে আছে, সেই দেশেই কারো ঘরে মেয়ে জন্ম হলে শুনতে হয় কথা। তাহলে মেয়ে হওয়া কি অপরাধ!

একজন মেয়ে, যার হাতে গড়ে ওঠে পরিবার, তাকেই কন্যা শিশুর জন্ম দেওয়া নিয়ে শুনতে হয় কথা- এই প্রথা আজকের নয়। এটি চলে আসছে অনেক আগে থেকেই। সমাজে নারী-পুরুষ ভেদাভেদ কমিয়ে আনার চেষ্টা করা হচ্ছে। কিন্তু গ্রামে বেড়ে-ওঠা মেয়েদের কী অবস্থা? 

গ্রামে থাকা মেয়েদের আজও ১৮ না পেরোতেই বিয়ে দিয়ে দেওয়া হয়। যখন পড়াশোনা করে ভালো কিছু করার সময়, তখন তার কাঁধে থাকে সংসারের দায়িত্ব। একটা সময় পরে এই কম-বয়সী মেয়েটাই হয়ে ওঠে পাকা রাঁধুনী, যার সকাল থেকে রাত চলে যায় সংসারের কাজেই। এত কিছুর পর যখন সে মা হয়, তার কোল জুড়ে আসে ফুটফুটে একটা সন্তান। তখন সবাই দেখে, সন্তানটি ছেলে নাকি মেয়ে? ঘরে ছেলে সন্তানের আগমনে সবাই থাকে মহাখুশি, কিন্তু মেয়ে সন্তানের কথা শুনলেই মুখ হয়ে যায় ভার!

যেখানে ছেলে-মেয়ে উভয়ই সমান। সেখানে মেয়ে হলে মাথায় চিন্তা জাগে, মেয়ের বিয়ে কিভাবে দেবে? মেয়ে হয়েছে, ওকে পড়িয়ে কী হবে? দু-দিন পর তো শ্বশুরবাড়ি পাঠাতেই হবে- এই সবসহ নানা প্রশ্ন আসে পরিবারে।

কিন্তু পরিবারের লোকজন হয়তো ভুলে যায়। এই মেয়েরাই তাদের বংশকে এগিয়ে নিয়ে যায়। এই মেয়েরাই নিজের সুখ বিসর্জন দিয়ে পরিবারের কথা ভাবে।