Skip to content

২রা অক্টোবর, ২০২২ খ্রিষ্টাব্দ | রবিবার | ১৭ই আশ্বিন, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ

বিটরুটে ত্বকের যত্ন

বিটরুট সবার পরিচিত। পুষ্টিগুণে ভরপুর বিটরুট দেখতে যেমন আকর্ষণীয় খেতেও সুস্বাদু। শরীরের নানা রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বৃদ্ধি করতেও বিটরুটের জুড়ি মেলা ভার। শুধু খাদ্য হিসেবেই নয়, ত্বকের যত্নেও বিটরুট ব্যবহার করা হয়।

বিটরুট ত্বক ও চুলের নানা সমস্যা থেকে মুক্তি দেয়। চলুন, জেনে নেই বিটরুট কিভাবে ত্বক ও চুলের যত্নে ব্যবহার করা যায়।

ডার্ক সার্কেল দূর করতে বিটরুট বেশ উপকারী। বিটরুটের রসের সাথে মধু মিশিয়ে কটন বার্ড দিয়ে মিশ্রণটি চোখের চারপাশে লাগিয়ে ১০ মিনিট পরে ধুয়ে ফেলুন। এতে করে চোখের নিচের ডার্ক সার্কেল দূর হবে।

বিটরুট টুকরো করে কেটে মুখে এবং ঘাড়ে ঘষে লাগান। এরপর ১৫ মিনিট অপেক্ষা করে ধুয়ে ফেলুন। এ-ভাবে নিয়মিত ব্যবহার করলে ত্বক উজ্জ্বল গোলাপি হয়ে উঠবে।

চুলপড়া দূর করতেও বিটরুট উপকারী। বিটরুটের রস চুলের গোড়া পর্যন্ত লাগিয়ে ধুয়ে ফেলুন। হেয়ার মাস্কের জন্য রসের সাথে কফি মিশিয়ে ব্যবহার করুন। এটিকে কন্ডিশনার হিসেবেও ব্যবহার করতে পারেন।

খুশকি দূর করতে সামান্য ভিনেগার বা নিমের পানি বিটরুটের রসে মিশিয়ে কিছুক্ষণ মাথায় লাগিয়ে রাখার পরে শ্যাম্পু দিয়ে ধুয়ে ফেলুন। এতে চুল মসৃণ ও ঝরঝরে হবে এবং খুশকিও দূর হয়ে যাবে।

ব্রণ সমস্যা দূর করতেও বিটরুট উপকারী। বিটরুটের রসের সাথে সমপরিমাণ টমেটোর রস মেশান। মিশ্রণটি মুখে লাগিয়ে শুকানো পর্যন্ত অপেক্ষা করুন। এরপর পানি দিয়ে ধুয়ে ফেলুন। এটি ব্ল্যাকহেডস ও হোয়াইটহেডস দূর করতে সাহায্য করে।