Skip to content

২রা ডিসেম্বর, ২০২২ খ্রিষ্টাব্দ | শুক্রবার | ১৭ই অগ্রহায়ণ, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ

শীতে অতিরিক্ত চা-কফি পান করছেন?  

পানীয় হিসেবে চা-কফি সর্বদাই জনপ্রিয়তার তুঙ্গে৷ রোজকার জীবনযাপনে এনার্জি লোড করার এক অভিনব তরিকাও বলা যায় চা-কফিকে। আবার শীতে চা-কফির চাহিদা বরাবরের তুলনায় একটু বেশিই থাকে। সাধারণ দিনের তুলনায় শীতে চা-কফি খাওয়ার মাত্রা যেনো পাল্লা দিয়ে বেড়ে যায়। তবে কখনো ভেবে দেখেছেন শীতে অতিরিক্ত  চা-কফি পান আপনার শরীরে কি প্রভাব ফেলছে? 

 

তা থেকে নানা ধরনের সমস্যা হতে পারে। চায়ে বিদ্যমান একটি প্রধান উপাদান হলো ট্যানিন। এটি দেহে শক্তি উৎপাদন, প্রোটিনের গ্রহণযোগ্যতা ও ক্যানসার প্রতিরোধক উপাদানের ওপর ক্ষতিকর প্রভাব ফেলে। এছাড়াও অতিরিক্ত বেশি চা-কফি খাওয়া মানেই শরীরে যাচ্ছে অনেকটা পরিমাণ ক্যাফেইন। শরীরে অতিরিক্ত ক্যাফেইন প্রবেশ করলে বিভিন্ন ধরণের সমস্যা দিতে পারে৷  যেমন- 

শ্বাস প্রশ্বাসে সমস্যা: শুনতে অবাক লাগলেও সত্যি যে আপনার পছন্দের চা কফি দায়ী হতে পারে আপনার অস্বাভাবিক শ্বাস প্রশ্বাসের জন্য। তবে স্বাভাবিক মাত্রায় চা কফি পান শ্বাস-প্রশ্বাস প্রক্রিয়ায় কোনো বাঁধা সৃষ্টি না করলেও অতিরিক্ত চা-কফি পানে অনেক সময় এই শ্বাস-প্রশ্বাসে সমস্যা দেখা দিতে পারে। 

বুকে ব্যথা: অত্যাধিক পরিমাণে চা-কফি পান করার ফলে বুকে ব্যথা দেখা দিতে পারে। শুধু তাই নয় বুকে ব্যথার পাশাপাশি মাঝেমধ্যে বমি বমি ভাবও দেখা দিতে পারে। 

উদ্বেগ ও অস্থিরতা বৃদ্ধি : অতিরিক্ত মাত্রায় ক্যাফেইন শরীরে প্রবেশ করলে অনেকের আচরণেই অস্থিরতা দেখা দিতে পারে। অনেক সময় আমরা এই অস্থিরতার কারণও বুঝতে পারিনা। এছাড়াও বেশি চা, কফি পান করলে উদ্বেগ বাড়তে পারে।

ঘুমে ব্যাঘাত: অতিরিক্ত চা-কফি পানের ফলে ঘুমে ব্যাঘাত ঘটতে পারে৷   ঘুমের পরিমাণ কমার পাশাপাশি তৈরি হতে পারে স্ট্রেস। আর ঘুম কম হলে বিভিন্ন শারীরিক জটিলতা দেখা দেয়া খুবই স্বাভাবিক বিষয়। 

এতোসব কথা শুনে অনায়াসেই মনে প্রশ্ন জাগবে, তবে কি চা-কফি মারাত্মক ক্ষতিকর? উত্তরটি হবে, অবশ্যই না। শরীরের জন্য চা-কফির অনেক উপকারী দিকও আছে বৈকি। তবে এই চা-কফি ঠিক কতটা ক্ষতিকর হবে তা নির্ভর করে উৎপাদন, প্রক্রিয়া ও প্রস্তুতের ওপর;  সাথে এর উপাদানসমূহের পরিমাণের উপরও। তাই সঠিক নিয়মে, সঠিক পরিমাণে চা-কফি পান করুন এবং দিনভর নিজেকে চাঙ্গা রাখুন।

 

 

 

ডাউনলোড করুন অনন্যা অ্যাপ