Skip to content

২৫শে সেপ্টেম্বর, ২০২২ খ্রিষ্টাব্দ | রবিবার | ১০ই আশ্বিন, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ

ওয়াই-ফাই সিগন্যাল সংকটে সমাধান

একটি রাউটার নিয়ে বিভিন্ন সময়েই আমরা কানেকশন নিয়ে সমস্যায় থাকি।মাঝে মাঝে এমনো হয় আমরা অতিরিক্ত বিরক্ত হয়ে যাই।এই সমস্যা যেন লেগেই থাকে।তবে এখানে সমাধানের চেষ্টা অনেক থেকেই করার প্রচেষ্টা রয়েছে।তবে সমস্যার সমাধানটা যদি একটু ভিন্ন ভাবে করা যায় তবে বিষয়টি সহজতর হবে।কোথায় রাউটার রাখলে সবচেয়ে ভালো হবে সেটা না জেনে রাউটার স্থাপন করলে দুই দিন পর পর ধীরগতির ইন্টারনেটের ঝামেলায় পড়া লাগবে।

 

ইন্টারনেট দুর্বল হলে প্রথমেই দোষ যেয়ে পড়ে ইন্টারনেট সরবরাহকারীদের ঘাড়ে। কিন্তু অনেকেই জানেন না রাউটারের অবস্থান ও অবস্থার উপরেই ইন্টারনেটের গতি নির্ভর করে অনেকাংশেই।ইন্টারনেটের সংযোগ নেওয়ার সময় আমরা বেশিরভাগ সময় ইন্টারনেটের লাইন যে দিক দিয়ে এসেছে সেদিকে কোথাও রাউটার স্থাপন করি। কিন্তু কোথায় রাউটার রাখলে সবচেয়ে ভালো হবে সেটা না জেনে রাউটার স্থাপন করলে দুই দিন পর পর ধীরগতির ইন্টারনেটের ঝামেলায় পড়া লাগবে।

 

বাড়ির প্রতিটি স্থানে ইন্টারনেটের সিগন্যাল সমানভাবে পেতে চাইলে রাউটার বাড়ির মাঝ বরাবর কোনো স্থানে রাখতে হবে। এতে রাউটারের সিগন্যাল সব দিকেই পাওয়া যাবে। তবে নির্দিষ্ট কোনো ঘরে সিগন্যালের জন্য সেই ঘরেই রাউটার রাখা ভালো।অনেকের ধারণা রাউটার উচ্চ স্থানে রাখলে সিগন্যাল ভালো আসে। এ কথা ঠিক কিন্তু পুরোপুরি না। রাউটার নিচু স্থানে রাখলেও ইন্টারনেটের গতি একই থাকবে। তবে ভালো কোনো স্থানে যেমন- শেলফ বা র‍্যাকের উপর, হাতের নাগালের বাইরে রাখাই ভালো।

 

রাউটারের সিগন্যাল ভালো পাওয়ার জন্য অন্য কোনো ইলেকট্রনিক ডিভাইস বিশেষ করে মাইক্রোওয়েভ থেকে দূরে রাখাই ভালো। কারণ অনেক ইলেকট্রনিক ডিভাইস থেকেও বিভিন্ন ধরনের তরঙ্গ সৃষ্টি হয়, যা রাউটারের সিগন্যালে বাধা দেয়।এছাড়া, দ্রুত গতির ইন্টারনেটের জন্য রাউটারের অ্যান্টেনাগুলো একেক দিকে ছড়িয়ে রাখা উচিত। এতে সিগন্যালও একেক দিকে ছটিয়ে পড়বে।

 

সমস্যার সমাধান করা যদি প্রাথমিক ভাবে সম্পন্ন করা যায় তাহলে বিষয়টি সকলের কাম্য সেটি এই।কিছু সাধারণ বিষয়কে মাথায় রাখা গেলে কাজগুলো সহজেই করা সম্ভব।