Skip to content

২২শে ফেব্রুয়ারী, ২০২৪ খ্রিষ্টাব্দ | বৃহস্পতিবার | ৯ই ফাল্গুন, ১৪৩০ বঙ্গাব্দ

এক গোছা নারী উন্নয়নের প্রতিশ্রুতি প্রিয়াঙ্কা গান্ধীর

ভারতের প্রয়াত প্রধানমন্ত্রী রাজীব গান্ধীর কন্যা প্রিয়াঙ্কা গান্ধী। ভারতীয় রাজনৈতিক দল তৃণমূল কংগ্রেস এর প্রতিনিধিত্ব করেন তিনি। ভারতের বিধানসভা নির্বাচনে তিনি ভারতীয়দের নানা প্রতিশ্রুতি দিয়েছেন এই নেত্রী, যা তিনি জয়লাভে সম্পন্ন করবেন বলে আশ্বাস দিয়েছেন। 

উত্তর প্রদেশে গত ৩২ বছর যাবত ক্ষমতার মুখ দেখেনি কংগ্রেস। এক্ষেত্রে নারীদের ওপরই ভরসা করছে কংগ্রেস। নারীদের বিশেষ সুবিধা দিবেন বলে আশ্বাস দিয়েছেন প্রিয়াঙ্কা। তিনি বলেন, ভোটে জিতে সরকার গড়তে পারলে নারীদের পরিবার চালাতে বছরে তিনটি করে গ্যাস সিলিন্ডার বিনা মূল্যে দেওয়া হবে। সেই সঙ্গে প্রত্যেক নারী যাতে বিনা টিকিটে সরকারি বাসে চলাফেরা করতে পারেন, সেই ব্যবস্থাও করা হবে।

নারী ক্ষমতায়নকে উৎসাহিত করতে মনোনয়নপত্রে নারীদের সিট বাড়িয়েছেন এই নেত্রী। তিনি বলেছেন, আগামী ভোটে মোট মনোনয়নপত্রের ৪০ শতাংশ দেওয়া হবে নারীদের। প্রিয়াঙ্কা বলেন, ‘আমার ক্ষমতা থাকলে ৫০ শতাংশ আসন নারীদের জন্য সংরক্ষণ করতাম। কিন্তু তা হচ্ছে না। ৪০ শতাংশ টিকিট নারীদের দেওয়া হবে।’ তিনি জানান, নির্বাচনে লড়তে ইচ্ছুক নারীদের আগামী ১৫ নভেম্বরের মধ্যে টিকিটের জন্য আবেদন করতে হবে। প্রার্থী মনোনয়ন করা হবে যোগ্যতার ভিত্তিতে। এই সিদ্ধান্ত সেই নারীদের জন্য, যারা প্রকৃত পরিবর্তন চান। তিনি আরো বলেন, আপাতত ৪০ শতাংশ আসন নারীদের জন্য বরাদ্দ হলেও আগামী দিনে ৫০ শতাংশ সংরক্ষণের চেষ্টা করা হবে।

এছাড়াও নারী শিক্ষার্থীদের শিক্ষা উন্নয়নেও পদক্ষেপ নিবেন বলে জানিয়েছেন এই কংগ্রেসনেত্রী। তিনি বলেছেন, কংগ্রেস চায় নারীর ক্ষমতায়ন। রাজ্যে ক্ষমতায় এলে কংগ্রেস স্কুল পাস করা প্রত্যেক মেয়েকে স্মার্টফোন ও স্নাতক সম্পন্ন করা নারীদের ইলেকট্রিক স্কুটি উপহার দেবে। 

তিনি আরো জানান, নতুন সরকারি পদে ৪০ শতাংশ নারীকে নিয়োগ দেওয়া হবে। বয়োজ্যেষ্ঠ নারী ও বিধবাদের মাসে এক হাজার রুপি করে পেনশনের ব্যবস্থা করা হবে। ‘আশা’ ও ‘অঙ্গনবাড়ি’ নারী কর্মীদের বেতন বাড়িয়ে প্রতি মাসে ১০ হাজার রুপি করা হবে। স্বনির্ভরতার লক্ষ্যে বিভিন্ন ক্ষেত্রে নারীদের দক্ষতা বাড়ানোর জন্য রাজ্যে মোট ৭৫টি কেন্দ্র খোলা হবে। সেগুলোর নামকরণ হবে রাজ্যের বীরাঙ্গনা নারীদের নামে।

ইতিমধ্যে রাজ্যের নারীমহলে প্রিয়াঙ্কা যথেষ্ট সাড়া ফেলেছেন। তার নেয়া পদক্ষেপ ও প্রতিশ্রুতি মন গলাতে সক্ষম হয়েছে অনেক নারীর। ইতোমধ্যে বিহারে তার দলের নীতীশ কুমার ও পশ্চিমবঙ্গে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় কংগ্রেসের ক্ষমতা বহাল রাখতে সক্ষম হয়েছে।

 

 

 

ডাউনলোড করুন অনন্যা অ্যাপ