Skip to content

১১ই জুলাই, ২০২৪ খ্রিষ্টাব্দ | বৃহস্পতিবার | ২৭শে আষাঢ়, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

ফেসবুকের ফেস রিকগনিশন সিস্টেম বন্ধের ঘোষণা

কর্পোরেট নাম পরিবর্তনের এক সপ্তাহের মধ্যে আবারো নতুন চমক নিয়ে এসেছে জনপ্রিয় সামাজিক যোগাযোগনমাধ্যম ফেসবুক। এবারের চমকে উঠে যাচ্ছে চেহারা শনাক্তকারী অ্যাপ। মঙ্গলবার এক ঘোষণায় টেক জায়ান্টটি জানিয়েছে তারা এবার চেহারা শনাক্তকারী বা ফেসিয়াল রিকগনিশন অ্যাপ বন্ধ করতে যাচ্ছে। তার মতে, এটি প্রযুক্তির ইতিহাসে মুখের শনাক্তকরণ ব্যবহারের ক্ষেত্রে সবচেয়ে বড় পরিবর্তনগুলোর একটি। অ্যাপটির সাহায্যে ছবি ও ভিডিওর মাধ্যমে ফেসবুক স্বয়ংক্রিয়ভাবে ব্যবহারকারীকে শনাক্ত করা হতো। এই প্রযুক্তি নিয়ে চলমান উদ্বেগ আর উৎকণ্ঠার মধ্যে এই ঘোষণা দিল ফেসবুক।

 

ফেসবুকের কৃত্রিম বুদ্ধিমত্তা বা আর্টিফিশিয়াল ইন্টেলিজেন্সের ভাইস প্রেসিডেন্ট জেরোম পেসেন্টি একটি ব্লগ পোস্টে লিখেছেন, চেহারা শনাক্তকরণ প্রক্রিয়ার ব্যবহার নিয়ন্ত্রণ করার জন্য একটি সুস্পষ্ট নীতিমালার প্রক্রিয়া চলমান। তিনি আরো বলেন, আমরা বিশ্বাস করি চলমান অনিশ্চয়তার মধ্যে চেহারা শনাক্তকরণের ব্যবহার সীমিত করার এখনই উপযুক্ত সময়। ফেসবুকের দৈনিক সক্রিয় ব্যবহারকারীদের এক তৃতীয়াংশেরও বেশি ফেস রিকগনিশন সেটিং ব্যবহার করেছেন এবং স্বীকৃতি পেয়েছেন। এই পদ্ধতি বন্ধ হয়ে যাওয়ার ফলে এক বিলিয়নেরও বেশি মানুষের স্বতন্ত্র মুখের শনাক্তকরণ টেম্পলেট মুছে ফেলা হবে।

 

বিশ্বের সর্ববৃহৎ সামাজিক যোগাযোগ প্ল্যাটফর্মের চেহারা শনাক্তকারী অ্যাপ এমন সময় আলোচনায় আসল, যখন প্রযুক্তি শিল্প গত কয়েক বছরে প্রযুক্তি ব্যবহারের নৈতিকতা নিয়ে প্রশ্নের সম্মুখীন হয়েছে। সমালোচকেরা বলছেন, চেহারা শনাক্তকরণের এই প্রযুক্তি বিভিন্ন খুচরা বিক্রেতা, হাসপাতাল এবং বাণিজ্যিক প্রতিষ্ঠানগুলোর কাছে নিরাপত্তার স্বার্থে জনপ্রিয়তা পেয়েছিল। তারা প্রান্তিক গোষ্ঠীকে লক্ষ্য করে এবং অনুপ্রবেশকারীর ওপর সহজেই নজরদারি করতে পারে।

 

ফেসবুক ব্যবহারকারীদের নিরাপত্তা ও ব্যাপক অপব্যবহারের বিষয় নিয়ে বিভিন্ন নিয়ন্ত্রক সংস্থা এবং আইন প্রণেতাদের কঠোর সমালোচনার মধ্যে এই ঘোষণা এল। আগামী মাসের মধ্যে সারা বিশ্বে এই সিদ্ধান্ত কার্যকর করা হবে বলে জানিয়েছেন ফেসবুকের একজন মুখপাত্র। ফেসবুক প্রতিটি পদক্ষেপে তাদের বিভিন্ন কাজের মাধ্যমে হয়ে উঠেছে অনন্য। তবে বিশেষ কিছু পরিবর্তনের কারণে বিভিন্ন সময়ে নেট দুনিয়ায় সরব হয়। ফেসবুক বরাবরই তাদের কাজের এবং প্রযুক্তি উন্নয়নে অসাধারণ। তবে ফেস রিকগনেশন বন্ধ করায় কেমন প্রভাব পরবে সেটি এখন দেখার বিষয়। 

 

এতদিন যে ছবিগুলো দেখে ফেসবুক ব্যবহারকারীদের চিনতে শিখেছে, ফেসবুক সেই শনাক্তকরণের তথ্য মুছে ফেলার ঘোষণা দিয়েছে। দৃষ্টি-প্রতিবন্ধীদের জন্য এটি একটি বিরাট সুবিধা যেখানে ফেসিয়াল রিকগনিশন প্রযুক্তি ব্যবহার করে ছবির বিষয়বস্তু ব্যাখ্যা করে শোনানো হতো। তবে মেটাভারস কর্পোরেট হয়তো এর পরিবর্তে নিয়ে আসতে পারে নতুন কোন সম্ভাবনা।
 

 

ডাউনলোড করুন অনন্যা অ্যাপ