Skip to content

১৮ই মে, ২০২৪ খ্রিষ্টাব্দ | শনিবার | ৪ঠা জ্যৈষ্ঠ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

নিউজিল্যান্ডের ইতিহাসে নতুন মাত্রা যোগ করলেন যে নারী

মানুষের এগিয়ে যাওয়ার কোন সীমা নাই। ইচ্ছাশক্তি এবং কাজের মাধ্যমে মানুষ তার গণ্ডিকে ছাড়িয়ে নিজেকে তুলে নিয়ে যায় অনন্য উচ্চতায়। বাঁধা যত বেশিই হোক না কেন প্রবল ইচ্ছেশক্তি দিয়ে সকল বাঁধা অতিক্রম করাই সম্ভব। সমাজে নারীরা যেন প্রতিনিয়ত এ বিষয়টি আরো ভালোভাবে প্রমাণ করছেন । যেমনটা দেখা গেলো সম্প্রতি নিউজিল্যান্ডে। এক আদিবাসী নারীর হাত ধরে তৈরি হলো নতুন ইতিহাস। 

নারীদের জন্য বাধা যেখানে কয়েকগুণ বেশি সেখানেই যদি নারীর পাশাপাশি সে সংখ্যালঘু আদিবাসী হয় তবে তার বাধার কোন শেষ নেই। তবে সকল বাধাবিপত্তির অবসান ঘটিয়ে নিউজিল্যান্ডে প্রথমবারের মতো গভর্নর জেনারেলের দায়িত্ব পেলেন আদিবাসী কোনো নারী। ডেম সিনডি কিরো নামের ওই নারী দেশটির মাওরি সম্প্রদায়ভুক্ত। গত বৃহস্পতিবার ওয়েলিংটনে দেশটির পার্লামেন্টে গভর্নর জেনারেল হিসেবে শপথ গ্রহণ করেন তিনি। নিউজিল্যান্ডে আলংকারিক রাষ্ট্রপ্রধানের দায়িত্ব পালন করেন গভর্নর জেনারেল। দেশটিতে ব্রিটিশ রাজপরিবারের হয়ে সাংবিধানিক ও আনুষ্ঠানিক নানা কাজও করতে হয় তাঁকে। এককালে ব্রিটেনের উপনিবেশ ছিলো নিউজিল্যান্ড। শপথ গ্রহণ অনুষ্ঠানে নিউজিল্যান্ডের অভিবাসী ও প্রান্তিক বাসিন্দাদের কাছে পৌঁছানোর প্রতিশ্রুতি দেন সিনডি কিরো। এ সময় মাওরি ও ব্রিটিশ পরিচয়ের কারণে নিজে গর্বিত বলে উল্লেখ করেন তিনি।

সিনডি কিরো বলেন, "আমি নতুন অভিবাসী ও সাবেক শরণার্থীদের সঙ্গে যুক্ত থাকব। এ ছাড়া নিউজিল্যান্ডকে নিজেদের দেশ হিসেবে বেছে নেওয়া মানুষদের থেকে আমরা যে বৈচিত্র্যময় সংস্কৃতি পেয়েছি, সেগুলো উদযাপন করব"। নতুন গভর্নর জেনারেলকে স্বাগত জানিয়েছেন নিউজিল্যান্ডের প্রধানমন্ত্রী জেসিন্ডা আরডার্ন। তিনি বলেন, ‘আমি জানি, এই পদে প্রথম মাওরি নারী হিসেবে আপনি এটা মাথায় রেখেছেন যে আপনার কর্মকাণ্ড দেশের সব স্তরের মানুষকে অনুপ্রেরণা দেয়।’

 

সিনডি কিরোর শিক্ষাজীবন কেটেছে নিউজিল্যান্ডের একাধিক বিশ্ববিদ্যালয়ে। তিনি ইউনিভার্সিটি অব অকল্যান্ড থেকে পিএইচডি ডিগ্রি লাভ করেন। পাশাপাশি ম্যাসি ইউনিভার্সিটি থেকে নিয়েছেন এমবিএ ডিগ্রি। নিজের পরিবারের মধ্যে একমাত্র বিশ্ববিদ্যালয় পড়ুয়াও তিনি। নিউজিল্যান্ডের জনসংখ্যার ১৭ শতাংশই মাওরি সম্প্রদায়ের। দেশটির আদিবাসী এ জনগোষ্ঠীর অনেক সদস্য সামাজিক ও অর্থনৈতিক দিক দিয়ে বেশ পিছিয়ে রয়েছে। কিরোর হাত ধরে এ চিত্রের পরিবর্তন আসবে বলেও মনে করছেন অনেকে। 

 

 

ডাউনলোড করুন অনন্যা অ্যাপ