Skip to content

২১শে ফেব্রুয়ারী, ২০২৪ খ্রিষ্টাব্দ | বুধবার | ৮ই ফাল্গুন, ১৪৩০ বঙ্গাব্দ

আন্তর্জাতিক দারিদ্র্য বিমোচন দিবস আজ

আজ ১৭ অক্টোবর, জাতিসংঘ ঘোষিত ‘আন্তর্জাতিক দারিদ্র্য বিমোচন দিবস’। জাতিসংঘের উদ্যোগে প্রতিবছরই সারা বিশ্বে এই দিনে দিবসটি পালিত হয়। বিশ্বজুড়ে দারিদ্র্য, ক্ষুধা ও মানুষের অসমতা দূর করাই দিবসটির মূল লক্ষ্য। আমাদের দেশেও গুরুত্বের সঙ্গে পালিত হয় দিবসটি।

 

১৯৮৭ সালে ফ্রান্সের প্যারিস শহরে প্রথম আন্তর্জাতিক দারিদ্র দূরীকরণ দিবস উদযাপন করা হয়েছিল। এই দিনে প্যারিসে প্রায় এক লক্ষ মানুষ একত্রিত হয়েছিল দারিদ্র, ক্ষুধা, হিংসা এবং ভয়ের বিরুদ্ধে রুখে দাঁড়ানোর অঙ্গীকার নেওয়ার জন্য। সেই দিনটি উপলক্ষে একটি স্মৃতিফলক উন্মোচিত হয়েছিল ইন্টারন্যাশনাল মুভমেন্ট এটিডি ফোর্থ ওয়ার্ল্ড এর প্রতিষ্ঠাতা জোসেফ রেসিনকীর দ্বারা। এর কিছু বছর পরে ১৯৯২ সালে  জাতিসংঘ এই দিনটিকে আন্তর্জাতিক দারিদ্র্য দূরীকরণ দিবস হিসেবে ঘোষণা করে।

 

বিশ্বে দিনে দিনে দারিদ্র্যের পরিমাণ বেড়েই চলেছে। সারা বিশ্বে ছড়িয়ে থাকা বিভিন্ন দেশে দরিদ্র মানুষের সংখ্যা ক্রমবর্ধমান। দারিদ্র্যের শিকার হওয়ায় তাঁদের জীবনযাত্রা বিঘ্নিত হয় এবং এর কারণে আরো পারিপার্শ্বিক নানান গুরুতর সমস্যা যেমন অকাল মৃত্যু, বিভিন্ন ধরনের রোগ সংক্রমণ, হিংসা, ভয়, ঘৃণা, অন্যায় অত্যাচার এবং আরো নানান সমস্যা বৃদ্ধি পেয়ে চলেছে। এই  সমস্যাগুলির সাথে মোকাবিলা করার জন্যই আন্তর্জাতিক দারিদ্র দূরীকরণ দিবস পালন করা হয়।

 

এই দিনটি উপলক্ষে সারা বিশ্বজুড়ে নানা কর্মকাণ্ডের আয়োজন করা হয়। যেমন বিভিন্ন অনুষ্ঠান, বক্তৃতা সভা, সেমিনার, ওয়ার্কশপ, চিত্রপ্রদর্শনী, তথ্যচিত্র প্রদর্শনী, মিছিল, সচেতনতামূলক সভা, আলোচনা সভা, বিতর্ক সভা ইত্যাদি। প্রতিবছর কোন না কোন থিমকে কেন্দ্র করে এই দিনটি পালিত হয়।

 

এই দিনটি উদযাপন সাধারণ মানুষকে সুযোগ করে দেয় সেই সব মানুষকে শ্রদ্ধা এবং সম্মান জানানোর যারা প্রতিনিয়ত দারিদ্র্যের সাথে যুদ্ধ করে যাচ্ছেন। এছাড়াও এই দিনটি পালনের মাধ্যমে সাধারণ মানুষকে দারিদ্র্যসীমার নিচে থাকা মানুষের জন্য কিছু করার অনুপ্রেরণা যোগানো হয়। আশা করা হয় ভবিষ্যতে আন্তর্জাতিক দারিদ্র্য দূরীকরণ দিবস পালনের মাধ্যমে আরো বেশি সংখ্যক মানুষকে দারিদ্র্য সম্পর্কে সচেতন করা যাবে।

 

 

ডাউনলোড করুন অনন্যা অ্যাপ