Skip to content

১৭ই এপ্রিল, ২০২৪ খ্রিষ্টাব্দ | বুধবার | ৪ঠা বৈশাখ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

নারীদের ড্রাইভিং প্রশিক্ষণ নাকচ কাবুলে!

আফগানিস্তান সরকারের স্থায়িত্ব বৃদ্ধি পাওয়ার সাথে সাথে নারীদের নিয়ে তাদের পদক্ষেপ গুলো ঘোলাটে হওয়া শুরু করেছে। দেশটিতে নারী নিয়ে একের পর এক নিষোদ্ধজ্ঞা আসতে শুরু করেছে।দেশটির ক্ষমতা নিয়ে ইতোমধ্যে রেষারেষি শুরু হয়ে গিয়েছে। তবে তাদের নারীদের কর্ম বিমুখ করার পরিকল্পনা যেন ধীরে ধীরে প্রকাশ পাচ্ছে। সম্প্রতি নারীদের ড্রাইভিং প্রশিক্ষণ হুমকির মুখে পরেছে।

 

আফগানিস্তানের রাজধানী কাবুলে এক বছর আগে নারীদের জন্য চালু হওয়া একটি ড্রাইভিং প্রশিক্ষণকেন্দ্র বন্ধ হয়ে যাচ্ছে।  প্রশিক্ষণকেন্দ্রটি বন্ধের সিদ্ধান্ত নিয়েছেন নারী উদ্যোক্তা নীলাভ।উদ্যোক্তা নীলাভ বলেন, ৩০-এর বেশি নারীর আগ্রহ থাকলেও গত এক মাসে কেউই ড্রাইভিং শেখার জন্য প্রশিক্ষণকেন্দ্রে আসেননি। ‘আমি অনিশ্চিত ভবিষ্যতের মুখোমুখি হয়েছি’, যোগ করেন এই উদ্যোক্তা।

 

মুগ্ধা যিনি এক মাস আগে এ প্রশিক্ষণকেন্দ্র থেকে প্রশিক্ষণ নেন। তিনি বলেন, নারীদের কাজ ও দক্ষতা তৈরির কাজ চালিয়ে যেতে হবে। আমি নিজের পায়ে দাঁড়ানো এবং কারও ওপর যেন নির্ভর করতে না হয় সে জন্য গাড়ি চালানো শিখেছি।

 

আফগানিস্তানের বর্তমান শাসকগোষ্ঠী তালেবান বলছে তারা ইসলামি শরিয়ত অনুযায়ী নারীদের কাজ ও শিক্ষা অর্জনের অনুমতি দেবে। তালেবানের সাংস্কৃতিক কমিশনের সদস্য সৈয়দ খোস্তি বলেন, ইসলামিক কাঠামোর ওপর ভিত্তি করে নারীরা যে কোনো জায়গায় কাজ করতে পারবেন।

 

সব আফগান নারীর কিছু লক্ষ্য রয়েছে। তারা অভাবী হতে চান না। নারীদের কাজ থেকে সরে আসাটা অনেকটা কাকতালীয় হলেও বিষয়টি খুবই ভাবার। নারীরা কেন সরে আসছে তাদের কাজের জায়গা থেকে? এখানে কোন অদৃশ্য শক্তি কাজ করছে না তো!

 

 

 

ডাউনলোড করুন অনন্যা অ্যাপ