Skip to content

২রা অক্টোবর, ২০২২ খ্রিষ্টাব্দ | রবিবার | ১৭ই আশ্বিন, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ

মৃত্যুদণ্ড দেওয়ার পর কলমের নিব ভেঙে ফেলার কারণ

ফাঁসির রায় হলে আসামিকে ফাঁসির মঞ্চে নিয়ে যাওয়া হয় এরপর চিরাচরিত নিয়মে তাকে ফাঁসি দেওয়া হয় ,বিষয়টি খুবই স্বাভাবিক। তবে একটি অদ্ভুত ব্যাপার ঘটে ফাঁসির রায় লেখার সময়ে । কোন আসামিকে মৃত্যুদণ্ড দেওয়ার পরে বিচারক বা বিচারপতিরা কলমের নিব সঙ্গে সঙ্গেই ভেঙে ফেলেন। বিচারক বা বিচারপতিদের এই কলমের নিব ভেঙে ফেলার পেছনে রয়েছে যুক্তিসঙ্গত কারণ। তবে চলুন জানা যাক কি সেই কারণ ?

জানা গেছে, এই কলমের নিব ভেঙে ফেলার কারণ একটি নয়, একাধিক। প্রথমত, এটি একটি প্রতীকী বিষয়। ব্যাখ্যা হল, যে কলম একজনের জীবন নিয়ে নিয়েছে, তা যেন আর কারও জীবন নিতে না পারে। দ্বিতীয় ব্যাখ্যাটিও এর সঙ্গেই সম্পৃক্ত। বলা হয়ে থাকে, বিচারক বা বিচারপতি ওই মৃত্যুদণ্ড এবং সেটার বিষণ্ণতা থেকে নিজেদের দূরে রাখতে চান। সে কারণেই কলমের নিবটি ভেঙে ফেলেন।

তৃতীয় ব্যাখ্যা হিসেবে বলা হয়, তিনি যাতে কোনোভাবেই মৃত্যুদণ্ড ফিরিয়ে নেওয়ার কথা ভাবতে না পারেন । শেষ ব্যাখ্যা, সব মৃত্যুই দুঃখের। কিন্তু কখনও মৃত্যুদণ্ডের মতো চরম শাস্তির প্রয়োজন হয়ে পড়ে। তাই কলমের নিব ভেঙে ফেলা হয় এটা বোঝাতে যে, মৃত্যুদণ্ড দুঃখজনক ব্যাপার। বিভিন্ন বিশ্লেষকের মতে এর বাইরেও অনেক ব্যাখ্যা রয়েছে। তবে ব্যাখ্যা যতই থাকুক না কেন কোন মৃত্যুই কাম্য নয়। যে কারণে বড় একটি আচর কেটে যায় বিচারকের মনে।