Skip to content

২৬শে সেপ্টেম্বর, ২০২২ খ্রিষ্টাব্দ | সোমবার | ১১ই আশ্বিন, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ

বাচ্চাদের পেট খারাপ হলে যেভাবে ওরস্যালাইন খাওয়াবেন

ওরস্যালাইন সাধারণত খাওয়ানো হয় পেট খারাপ হলে। পেট খারাপ নানা কারণেই হতে পারে। বড় দের ক্ষেত্রে হয় অস্বাস্থ্যকর খাবার গ্রহণ করলে,যে খাবার তার শরীরের জন্য ভালো নয় জানা সত্ত্বেও সেই খাবার খেলে ইত্যাদি কারণে হয়ে থাকে।এর ফলে পেটখারাপ,আমাশয়, ডায়রিয়া হতে পারে।

শিশুদের ও পেট খারাপ হয়ে থাকে। তাও কারো কারো তো কিছুদিন পর পর ই হয়ে থাকে।ফলে শরীর অনেক শুকিয়ে যায়,শরীর দুর্বল হয়ে পড়ে,কিছু খেতে চায় না,ঘন ঘন পাতলা পায়খানা হয় ইত্যাদি।

বাচ্চারা বেশি ছোট হলে ১ মাস থেকে ২ বছরের মধ্যে বয়স হলে। পেটখারাপ এর জন্য বিভিন্ন সিরাপ আছে সেগুলো খেতে দেওয়া হয়। সেই সাথে দেওয়া হয় খাবার ওরস্যালাইন।

ওরস্যালাইন সে যেই খাক না কেন ছোট /বড় সবার জন্যই রয়েছে সেম নিয়ম ওরস্যালাইন খাওয়ার। অনেকে তো এক গ্লাস পরিমাণ পানিতে মিশিয়ে খেয়ে নেয় ওরস্যালাইন। ফলে শরীরের দেখা দেয় সমস্যা। যার জন্য হাসপাতালে ভর্তি হতে হয়।

সবকিছুর ই একটা নিয়ম রয়েছে আর সেটা সেই নিয়মেই করতে হয়। ওরস্যালাইন এর গায়ে কিন্তু লিখাই আছে ৫০০ গ্রাম পানিতে মিশিয়ে খেতে হবে। তারপর অনেকে ভুল করে থাকেন।অনেকে তো একটা প্যাকেটের অর্ধেকটা দিয়ে বানিয়ে ফেলে এক গ্লাস ওরস্যালাইন। যা একদম ই করা যাবে না।

ফুল একটা প্যাকেট দিয়েই ৫০০ গ্রাম পানির না কম না বেশি দিয়ে বানিয়ে নিতে হবে।যতবার পেটখারাপ হবে ঠিক ততবারই অল্প অল্প করে খাওয়াতে হবে ওরস্যালাইন। পুরোটা একেবারে খাওয়া যাবে না। প্রতিবার একটু একটু করে খেতে হবে। আর এই নিয়ম সবার জন্যই সমান।

তাই ওরস্যালাইন খাওয়ার সময় পরিমাণটা খেয়াল রাখুন। না হলে ঘটতে পারে কোন দুর্ঘটনা।