Skip to content

১লা অক্টোবর, ২০২২ খ্রিষ্টাব্দ | শনিবার | ১৬ই আশ্বিন, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ

কম ঘুম ত্বকের জন্য ক্ষতিকারক

মানুষ সব সময়ই ঘুম প্রিয় তবে কখনও কখনও কাজের চাপের কারণে ঘুম প্রয়োজনের থেকেও কম হয়ে থাকে। এতে করে স্বাস্থ্যের ক্ষতির পাশাপাশি ত্বকের ক্ষতিও হয়ে থাকে। অর্থাৎ ত্বকের সুরক্ষায় ঘুম খুবই জরুরি এবং প্রয়োজনীয়।

 

শরীর স্বাস্থ্য ভালো রাখার জন্য ঘুম অত্যাবশ্যক। যদি ঘুম ভালো না হয় তাহলে চোখের নিচে কালো দাগ পড়ে যায়, সারাদিন চোখেমুখে ক্লান্তির ছাপ থাকে। সৌন্দর্য বৃদ্ধিতেও ঘুম খুবই প্রয়োজনীয়।

 

ঘুমের অভাব করটিসল নামক একটি হরমোনের মাত্রা বৃদ্ধি করে, যা ত্বকের প্রদাহ সৃষ্টি করে এবং নির্জীব করে তোলে ত্বককে। ফলে পর্যাপ্ত ঘুম না হলে ত্বক উজ্জ্বলতা হারিয়ে ফেলে এবং নির্জীব ও শুষ্ক হয়ে যায়।

 

ত্বকে ব্রণ হওয়ার একটি কারণ হলো কম ঘুম। ঘুমের অভাব ত্বকের রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা কমিয়ে দেয় ফলে ত্বকে ব্রণ সৃষ্টি করা ব্যাকটেরিয়া বৃদ্ধি পায়। অর্থাৎ ঘুমের অভাবে ত্বকে ব্রণ সমস্যা বৃদ্ধি পায়। এছাড়া কম ঘুমে ত্বকের প্রদাহও বৃদ্ধি পায়।

 

কম ঘুমের জন্য হওয়া সবচেয়ে জনপ্রিয় বিষয় টি হলো চোখের নিচের কালো দাগ। অর্থাৎ কম ঘুমের ফলে সর্বাধিক দৃশ্যমান প্রভাব গুলো চোখের নিচের অংশে কালো দাগ রূপে প্রতিফলিত হয়।

 

ঘুমের অভাবে খুদা বেড়ে যায়। এ কারণে ওজন বৃদ্ধি পায়।

 

শরীর হাইড্রেটেড থাকে যদি ঘুম সঠিক হয়।আর যদি ঘুম সঠিক না হয় সেক্ষেত্রে ত্বক শুষ্ক হয় এবং ত্বকে নানা সমস্যা দেখা দেয়। এ কারণে পর্যাপ্ত ঘুম হওয়া খুবই জরুরি।

 

কম ঘুম ত্বকে কোলাজেন উৎপাদন হ্রাস করে এবং ত্বকের বার্ধক্যজনিত কারণ গুলো ত্বকে ফুটে উঠে। অর্থাৎ ত্বককে সতেজ ও স্বাস্থ্যকর রাখতে পর্যাপ্ত ঘুম প্রয়োজন।

 

ঘুম ভালো হলেই মন ভালো থাকে। এ কারণে ঘুম যেন কম না হয় সেদিকে লক্ষ রাখতে হবে। ভালো ঘুমে শরীর মন উভয়ই ভালো থাকবে।