Skip to content

২৪শে সেপ্টেম্বর, ২০২২ খ্রিষ্টাব্দ | শনিবার | ৯ই আশ্বিন, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ

ত্বক ভালো রাখতে বরফের ব্যবহার 

ত্বক আমাদের শরীরের সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ। ত্বক ভালো থাকলেই মেয়েদের মন মেজাজ এমনিতেই ভালো থাকে অনেক। কিন্তু যতই যত্ন নেওয়া হোক না কেন ত্বকের সমস্যা দেখা দিবেই। এছাড়া এখন যেহেতু প্রচণ্ড গরমের তাপ বাহিরে। সেহেতু অতিরিক্ত গরমের কারণে শরীর ঘেমে যায় সাথে ফেইস তো আছেই। ফলে ফেইসে দেখা দেয় বিভিন্ন ধরনের সমস্যা যেমন, ব্রণ উঠা, রোদে পোড়া কালো দাগ, ব্ল্যাক হেডস ইত্যাদি। আবার অনেক সময় তো মেকআপ করার সময় ফেইসে মেকআপ বসতেই চায় না। ফলে শুরু হয় আরেক সমস্যা। কিন্ত এত সমস্যা সমাধান যে একমাত্র বরফ করতে পারবে সেটা কি জানেন? বরফ ব্যবহারে ত্বক হয় মলিন, কোমল এবং ত্বকের সমস্যা দূর করে ত্বককে করে তুলে একদম টান টান। এক্ষেত্রে যেভাবে ব্যবহার করবেন বরফ:

 

১। যাদের ত্বকে ব্রণের সমস্যা আছে তারা নিয়মিত ব্যবহার করবেন এই বরফ। সরাসরি ত্বকে বরফ ব্যবহার না করে একটা পাতলা কোন কাপড় বা টিস্যুর সাহায্য নিয়ে ৩-৪ টুকরো বরফ ফেইসে আস্তে ধীরে লাগান। এতে করে ব্রণ এর ফোলা ভাব চলে গিয়ে ব্রণ দূর হবে।  

 

২। যারা অতিরিক্ত ঠাণ্ডা সহ্য করতে পারে না তারা চাইলে মুখে কোন ফেইস প্যাক ব্যবহার করে সেটি শুকিয়ে যাওয়ার পর সেই ফেইস প্যাকের উপরেই ব্যবহার করতে পারেন বরফ। 

 

৩। যাদের ফেইসে বরফ সুট করে না তারা বরফ ব্যবহার থেকে দূরে থাকুন। 

 

৪। বরফ ফেইসে দেওয়ার পর কারো কারো ত্বক লালচে হয়ে যায়। এটা হয় মূলত বেশি পরিমাণে বরফ ব্যবহারে কারণে এবং অধিক সময় ধরে বরফ ব্যবহারের কারণে। এক্ষেত্রে ১-২ মিনিট ব্যবহার করুণ ফেইসে বরফ। তাহলে লালচে ভাব টা হবে না।

 

৪। মেকআপ ব্যবহারের আগে বরফ ব্যবহার করলে মেকআপ অনেকক্ষণ ভালো থাকে। আবার যাদের ফেইসে মেকআপ বসে না তারা যদি মেকআপ শুরু করার আগে বরফ ব্যবহার করেন তাহলে সঠিক ভাবে ভালো করে মেকআপ ত্বকে বসে যাবে। বরফ ব্যবহারের পর অবশ্যই ভালো কোন ফেইস ক্রিম ত্বকে ব্যবহার করে নিবেন। 

 

৫। যাদের ত্বক অনেক বেশি পরিমাণে তৈলাক্ত তারা অবশ্যই মেকআপ আগে বরফ ব্যবহার করে নিবেন। এতে ত্বক থেকে তেল বের হবে না ফলে মেকআপ নষ্ট ও হবে না। 

 

নিয়মিত বরফ ত্বকে ব্যবহারের ফলে ত্বক গ্লো করতে সাহায্য করবে। ত্বকের যে পোরস আছে সেগুলোকে টাইট করতে সাহায্য করবে। তাই  নিয়মিত ত্বকের যত্নে ব্যবহার করুণ বরফ।