Skip to content

৪ঠা অক্টোবর, ২০২২ খ্রিষ্টাব্দ | মঙ্গলবার | ১৯শে আশ্বিন, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ

মেকআপের জিনিসপত্রগুলো রাখুন পরিষ্কার 

নিজের বাড়তি সৌন্দর্য ফুটিয়ে তুলতেই সাধারণত মেকআপ করে মেয়েরা। নিজেদের সৌন্দর্য বাড়ানোর জন্য তাই প্রতিনিয়ত কেনা হচ্ছে নিত্যনতুন মেকআপ সামগ্রী। ভালো মানের মেকআপ সামগ্রী কিনছেন কিন্তু সব ঠিক থাকার পর ও ব্যবহারের পর ফেইসে দেখা দিচ্ছে নানা সমস্যা। তাহলে সমস্যা টা আসলে কোথায়?

 

তাহলে প্রশ্ন হতে পারে, এইখানে আপনি যে মেকআপ ব্রাশগুলো ব্যবহার করছেন সেগুলো কি পরিষ্কার পরিচ্ছন্ন? আর যদি পরিষ্কার হয়েই থাকে থাকে তাহলে ত্বকে সমস্যা হওয়ার কারণ কি? সাধারণত মেকআপ ব্রাশ সমূহ অপরিষ্কার থাকলে তখন তা ব্যবহারে দেখা দিতে পারে ফেইসে নানা রকমের স্কিন জনিত সমস্যা। যেমন, ব্রণ উঠা, র‍্যাশ হওয়া, স্কিন চুলকানো সহ আরও অনেক কিছু। এই সমস্যা দূর করতে হলে, পরিষ্কার রাখতে হবে মেকআপ ব্রাশগুলো কে। তাহলে চলুন কিভাবে করবেন এই মেকআপের জিনিসপত্রগুলো পরিষ্কার, তা জেনে নেই।

মেকআপ ব্রাশ প্রত্যেকবার ব্যবহার করেই পরিষ্কার করে ফেলতে হবে। না হলে বিভিন্ন জীবাণু দ্বারা সংক্রমণের ফলে ফেইসে হতে পারে ব্রণ, র‍্যাশ। লিপস্টিক দেওয়ার ব্রাশ, আইলাইনার দেওয়ার পর ব্রাশ, ব্লাশ দেওয়ার ব্রাশ সব কিছুই ব্যবহার এর পর পরিষ্কার করে নিতে হবে। এতে করে পরবর্তীতে অপরিষ্কার থাকবে না ব্রাশ এবং মেকআপ ব্যবহার করার পর ও ত্বকে কোন ক্ষতি হবে না। এক্ষেত্রে হালকা পানি গরম করে নিয়ে,তাতে ভালো কোন শ্যাম্পু বা সাবান দিয়ে মিশিয়ে ব্রাশগুলো ভিজিয়ে রেখে কিছুক্ষণ পর হালকা হাতে ঘষে পরিষ্কার করে নিন।

এছাড়াও ব্রাশ পরিষ্কার করতে বাজারে পাওয়া যায় বিভিন্ন ধরনের এবং ব্রান্ডের স্প্রে। যা দিয়ে খুব সহজেই আপনি এইগুলো পরিষ্কার করে নিতে পারবেন। চুলের ব্রাশ, চিরুনি ব্যবহার করার পর, চিরুনি থেকে চুল ফেলে ব্রাশগুলো ধুয়ে নিন। হালকা পানি গরম করুন এবার এতে শ্যাম্পু বা সাবান দিয়ে তাতে চিরুনি ভিজিয়ে রেখে কিছুক্ষণ পর ব্রাশ দিয়ে ভালো মতন ঘষে ঘষে ময়লা পরিষ্কার করে পানি দিয়ে ধুয়ে নিন। সপ্তাহে একদিন পরিষ্কার করলেই হবে। 

ব্লো ড্রায়ার বা চুল শুকানো হয় যার দ্বারা। এটি ও রাখতে হবে পরিষ্কার। কেননা এতে ও ধুলোবালি জমে গিয়ে ময়লা হয়ে যায়। তাই একটি কাপড়ের সাহায্য নিয়ে ভিতর থেকে ময়লা পরিষ্কার করে নিতে হবে। যদি হাত দিয়ে সম্ভব না হয় তাহলে একটা সরু কাঠি দিয়ে এর সাথে কাপড় পেঁচিয়ে ও করতে পারেন ব্লো ড্রায়ার পরিষ্কার। 

অনেকেই চুলকে সোজা বা কার্ল করতে ব্যবহার করেন মেশিন। আর এ চুল সোজা বা কার্ল করতে চুলে ব্যবহার করতে হয় অনেক রকম মেডিসিন বা সিরাম। যার ফলে স্ট্রেটনার নোংরা হয়ে যেতে পারে। তাই সবসময় ব্যবহার এর পর এই যন্ত্রগুলো কে পরিষ্কার করে রাখতে হবে।

সবসময় পরিষ্কার পরিচ্ছন্ন থাকলে জীবাণু থাকবে না এই মেকআপ জিনিসপত্রে। তাই ব্যবহার করার পর চেষ্টা করতে হবে এই গুলো গুছিয়ে রাখার।