Skip to content

১০ই জুলাই, ২০২৪ খ্রিষ্টাব্দ | বুধবার | ২৬শে আষাঢ়, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

আ্যটলাসের নতুনরূপ!

রোবট! যা সকল মানুষের নজর কারে এর বিভিন্ন কর্মকাণ্ডের কারণে। বলা হয়ে থাকে মানুষের কাজ কে সহজ করার খাতিরেই রোবটের সৃষ্টি। প্রযুক্তির অগ্রযাত্রায় প্রতিদিনেই দেখা যাচ্ছে নতুন কোন ফিচার সংযুক্ত হচ্ছে মানবসৃষ্ট রোবটে। তেমনেই রোবটের মাঝে বিশেষ দক্ষতা ব্যবহার করে আসছে বিভিন্ন প্রতিষ্ঠান গুলো।

 

বৈজ্ঞানিক কল্পকাহিনীর রোবটদের মতো দেখতে রোবট তৈরি করার জন্য বিশেষভাবে পরিচিত বোস্টন ডায়নামিক্স। রোবটিক্সের জগতে মার্কিন এই প্রতিষ্ঠানটির রোবটগুলো রীতিমতো তারকা হয়ে উঠেছে। এর মধ্যে অন্যতম আলোচিত হল মানবাকৃতির রোবট ‘অ্যাটলাস’।

 

বোস্টন ডায়নামিক্স তাদের অ্যাটলাস রোবট সর্বপ্রথম প্রকাশ্যে আনে ২০১৩ সালে। প্রতিষ্ঠানটি নিয়মিত রোবটের উন্নয়ন করে চলেছে এবং নানা পারদর্শিতার ভিডিও প্রায়ই সোশ্যাল মিডিয়ায় শেয়ার করে থাকে।

 

 যা দেখে প্রতিনিয়ত অভিভূত হোন রোবটপ্রেমীরা। রোবট হলেও মানুষের বেশ কিছু স্বাভাবিক কাজে দক্ষতা দেখিয়ে ইতিমধ্যে বেশ প্রশংসা কুড়িয়েছে অ্যাটলাস। যেমন: এই রোবট তার চলার পথে প্রতিবন্ধকতা অর্থাৎ দেয়াল বা গাছ এড়িয়ে চলতে পারে, সিঁড়ি দিয়ে ওঠা-নামা করতে পারে, দ্রুত গতিতে দৌঁড়াতে পারে, নাচতে পারে এবং আরো অনেক ব্যাপারে পারদর্শী। আমরা সিনেমাতে সাধারণত যে মানের রোবট দেখে থাকি এটা অনেকটাই সেরকম।

 

বোস্টন ডায়নামিক্সের সর্বশেষ ভিডিওতে  অ্যাটলাসকে মানুষের মতো বেশ কিছু লম্ফঝম্ফ কসরত করতে দেখা গেছে, যা ফের অভিভূত করেছে রোবটপ্রেমীদের। অ্যাটলাসের এ পারদর্শিতা বোস্টন ডায়মিক্সে কর্মরত বিশ্বের সেরা কয়েকজন কম্পিউটার বিশেষজ্ঞের প্রচেষ্টার ফসল।

 

রোবটের এই লাফঝাপ দেওয়ার ভিডিওটি নেটিজেনদের মাঝে অধিক সাড়া ফেলে দেয়। এরই মধ্যে এ ব্যাপারে অনেক টুইট এসেছে।

 

বোস্টন ডায়নামিক্স এ ব্যাপারে জানায়, আমাদের কাজের এতো শুরুর ধাপ একটি, আমরা রোবটিকে আরো বিশেষ দক্ষতা প্রদান করবো। তবে আমরা আশাবাদী খুব শীঘ্রই বাণিজ্যিক রোবট বাজারে নিয়ে আসার ব্যাপারে"।

 

দিনকে দিনেক হারে যেভাবে রোবটের প্রযুক্তির পরিবর্তন হচ্ছে এতে করে বলা যায় খুব তাড়াতাড়ি মানুষের সকল  কাজে  অংশগ্রহণ করবে। এর প্রভাবে মানুষের কাজ করার হার বেড়ে দাঁড়াবে কয়েকগুণ। তবে কি আমরা একটি রোবটভিত্তিক সমাজের দিকে অগ্রসর হচ্ছি?

 

 

 

ডাউনলোড করুন অনন্যা অ্যাপ