Skip to content

৫ই মে, ২০২৪ খ্রিষ্টাব্দ | রবিবার | ২২শে বৈশাখ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

জাবিতে প্রথম নারী কোষাধ্যক্ষ নিয়োগ

জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ে (জাবি) প্রথমবারের কোষাধ্যক্ষের দায়িত্ব গ্রহণ করেছেন একজন নারী। তিনি হলেন বিশ্ববিদ্যালয়ের নৃবিজ্ঞান বিভাগের অধ্যাপক রাশেদা আখতার। আগামী চার বছর এই পদে দায়িত্ব পালন করবেন তিনি।

 

গত মঙ্গলবার রাষ্ট্রপতির আদেশক্রমে উপসচিব মো. মাহমুদুল আলম স্বাক্ষরিত এক প্রজ্ঞাপনের মাধ্যমে এ তথ্য জানানো হয়। জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রথম উপাচার্য হিসেবে দায়িত্ব পালন করেছেন ড. ফারজানা ইসলাম। তিনি বাংলাদেশের প্রথম নারী উপাচার্য। রাশেদা আখতারের নিয়োগের মাধ্যমে কোষাধ্যক্ষ পদেও প্রথমবারের মতো নিয়োগ পেলেন আরেক নারী অধ্যাপক।

 

অধ্যাপক ড. রাশেদা আখতার ১৯৮৮ সালে জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ের নৃবিজ্ঞান বিভাগে প্রভাষক পদে যোগদানের মাধ্যমে তার শিক্ষকতা জীবন শুরু করেন। শিক্ষা, গবেষণা এবং প্রশাসনিক দায়িত্ব পালনের অভিজ্ঞতা সম্পন্ন অধ্যাপক ড. রাশেদা আখতার নৃবিজ্ঞান বিভাগের সভাপতি, সমাজবিজ্ঞান ও আইন অনুষদের ডিন, শিক্ষার্থী কল্যাণ ও পরামর্শদান কেন্দ্রের পরিচালক, মহামান্য হাইকোর্টের আদেশের আলোকে গঠিত যৌন নিপীড়ন প্রতিরোধ সেলের সভাপতি, শিক্ষক সমিতির সদস্য, সহ-সভাপতি এবং ভারপ্রাপ্ত সভাপতির দায়িত্ব পালন করেন। তিনি বিশ্ববিদ্যালয়ের সিনেট ও সিন্ডিকেট সদস্য হিসেবে দায়িত্ব পালন করেছেন।

 

তার নিয়োগ প্রজ্ঞাপনে বলা হয়- মহামান্য রাষ্ট্রপতি ও চ্যান্সেলরের অনুমোদনক্রমে জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয় আইন ১৯৭৩-এর ১৪(১) ধারা অনুযায়ী নৃবিজ্ঞান বিভাগের অধ্যাপক ড. রাশেদা আখতারকে কোষাধ্যক্ষ পদে নিয়োগ করা হল। এ পদে তার নিয়োগের মেয়াদ যোগদানের তারিখ থেকে ৪ বছর হবে। এছাড়া নিয়োগের শর্তে উল্লেখ আছে, ট্রেজারার হিসেবে তার নিয়োগের মেয়াদ যোগদানের তারিখ থেকে চার বছর হবে। তবে, প্রযোজ্য ক্ষেত্রে তিনি নিয়মিত চাকরির মেয়াদ পূর্তির পর অবসর গ্রহণের আনুষ্ঠানিকতা সম্পাদন শেষে বাকি মেয়াদ শেষ করতে পারবেন।

 

জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ে প্রথম নারী কোষাধ্যক্ষ হিসেবে নিয়োগের পর তাৎক্ষণিক প্রতিক্রিয়ায় অধ্যাপক ড. রাশেদা আখতার বলেন, 'আমাকে বিশ্ববিদ্যালয়ের এমন একটি গুরুত্বপূর্ণ পদে নিয়োগ দেয়ায় মহামান্য রাষ্ট্রপতি, মাননীয় প্রধানমন্ত্রী এবং শিক্ষামন্ত্রীর প্রতি ধন্যবাদ ও কৃতজ্ঞতা জ্ঞাপন করছি। আমার উপর অর্পিত এই দায়িত্ব আমি নিষ্ঠা এবং সততার সঙ্গে পালন করতে চাই।'

 

নতুন কোষাধ্যক্ষের দায়িত্ব গ্রহণের সময় বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক ড. ফারজানা ইসলাম বলেন, লক্ষ্য চূড়ান্ত করে সদিচ্ছা নিয়ে দায়িত্ব পালন করলে সাফল্য অর্জিত হয়। বিশ্ববিদ্যালয়ের সুনাম অক্ষুণ্ণ রেখে সবাইকে একযোগে কাজ করতে হবে।

 

 

 

ডাউনলোড করুন অনন্যা অ্যাপ