Skip to content

২৩শে মে, ২০২৪ খ্রিষ্টাব্দ | বৃহস্পতিবার | ৯ই জ্যৈষ্ঠ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

আরও এক সপ্তাহ চলতে পারে তাপদাহ

জ্যৈষ্ঠের শুরুতেই উত্তপ্ত হয়ে উঠছে প্রকৃতি।  অস্বস্তিকর ভ্যাপসা গরম আর তাপদাহে অতিষ্ঠ জনজীবন । চলতি মাসে তাপপ্রবাহ আরও ছড়িয়ে পড়বে যা থাকবে আগামী মাসের শুরু পর্যন্ত।আগামী মাসে কিছুটা ঝড় বৃষ্টি হয়ে কিছুটা তাপমাত্রা কমলেও কিন্তু গরম কমবে না।  বরং ঝড়-বৃষ্টি শেষে আবারও তাপমাত্রা বাড়ার আশঙ্কা রয়েছে।  

 

গত সপ্তাহ থেকে ক্রমাগত বাড়ছে তাপমাত্রা। গত রবিবার চলতি বছরের সর্বোচ্চ তাপমাত্রা রেকর্ড করা হয়েছে যশোরে ৪১ দশমিক ২ ডিগ্রি সেলসিয়াস। যা ছিল গত সাত বছরের মধ্যে সর্বোচ্চ তাপমাত্রা । এর আগে  সর্বোচ্চ তাপমাত্রা রেকর্ড করা হয়েছিল ২০১৪ সালে চুয়াডাঙ্গায় ৪২ ডিগ্রি সেলসিয়াস তাপমাত্রা।

 

আবহাওয়াবিদ হাফিজুর রহমান বলছেন, এপ্রিল-মে-জুন মাস বাংলাদেশের উষ্ণতম সময়। বছরের অন্যান্য সময়ের চেয়ে তাপমাত্রা বেশি থাকে। কখনো তাপপ্রবাহ চলে। এই সময়ে তুলনামূলক বৃষ্টিপাতও কম হয়ে থাকে। এই বাস্তবতার কারণেই এপ্রিল মাসে স্বাভাবিকের চেয়ে ৭৯ শতাংশ কম বৃষ্টি হয়েছে। বৃষ্টি কম হওয়ার কারণ হিসেবে  বলা হয়, পশ্চিমা ও পূবালী লঘু চাপের প্রভাব কম থাকায় স্বাভাবিক অপেক্ষা কম বৃষ্টিপাত হয়েছে। 

 

এছাড়াও তিনি আরও বলেন, চলতি মাসে তাপমাত্রা কমার কোনও সম্ভাবনা নেই। দুই এক ডিগ্রি সেলসিয়াস তাপমাত্রা কম বেশি হতে পারে। তাপপ্রবাহও আগের মতোই থাকবে। কিছু কিছু এলাকায় আরও ছড়িয়ে পড়তে পারে।

 

 

 

ডাউনলোড করুন অনন্যা অ্যাপ