Skip to content

২৫শে সেপ্টেম্বর, ২০২২ খ্রিষ্টাব্দ | রবিবার | ১০ই আশ্বিন, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ

অফিস ডেস্কেই হোক শরীরচর্চা!

অফিস ডেস্কেই হোক শরীরচর্চা!

শরীর সুস্থ থাকলে মন ভালো থাকে, আর মন ভালো থাকলে কাজেও মনোযোগ বসে। নারী একইসাথে ঘরের কাজ ও বাইরের কাজ দুটোই করে। ঘরের কাজ শেষ করে অফিসে যায় আবার অফিসের কাজ শেষ করে বাসায় ফিরে। এতো কাজের মধ্যে শরীরের যত্ন নেওয়ার কথাই ভুলে যায়, কিংবা ব্যায়াম করার কোন সময় থাকে না। আর টানা অফিস ডেস্কে বসে কাজ করার ফলে শরীরের বিভিন্ন জায়গায় যেমন, ঘাড়, কোমর, হাত সহ নানা জায়গাতে ব্যথা হয়। আবার সারাক্ষণ বসে বসে কাজ করার ফলে শরীরের মেদ ও বেড়ে যায় যা খুবই স্বাভাবিক। আর সেই সাথে ক্লান্তি ভাব তো আছেই। এই ক্লান্তি ভাব এবং শরীরের বিভিন্ন জায়গায় ব্যথা এবং অতিরিক্ত মোটা হওয়া কমাতে চাইলে অফিসে কাজের ফাঁকে ডেস্কে করতে পারেন কিছু সহজ ব্যায়াম:

স্কোয়াট

চেয়ারে বসে থেকেই ব্যায়াম করা যায়। এই ব্যায়ামের একটি হতে পারে স্কোয়াট। স্কোয়াট দেওয়ার জন্য প্রথমেই আপনার পিছনের বসার চেয়ারটা সরিয়ে নিন। এইবার হাঁটু একটু ভাজ করে (চেয়ারে যেভাবে বসেন) সেই ভাবে সামনের দিকে বসুন। এক্ষেত্রে কোমর সোজা রেখে দুই হাত সামনের দিকে সোজা রাখবেন। এইভাবে ৩০ বার করুন। ভালো ফল পাবেন।

ডেস্ক পুশ আপ ব্যায়াম

শারীরিক ব্যায়ামের একটি হলো পুশ আপ। ডেস্কে বসেই পুশ আপ ব্যায়ামটি করা যায়। ব্যায়ামটি শুরু করবেন, প্রথমে দুই হাত ডেস্কের উপর দিবেন। তার পর একটু পিছনে নিন পা দুটো। এইবার ডেস্কের উপর ঝুঁকে সামনের দিকে পুশ করুন। এতে করে আপনার ডেস্কের উপর পুরো ভর থাকবে। মিনিমাম ২০টা পুশ আপ দিবেন।

স্ট্রেচিং

দীর্ঘক্ষণ চেয়ারে বসে থাকার ফলে দেখা যায় হাত, পা, ঘাড়, কোমর সবই লেগে যায় অর্থাৎ কাজ করার এনার্জি থাকে না। এইসময় হাত, পা, ঘাড়, কোমর ও কাঁধের স্ট্রেচিং করার জন্য পেশিকে ৩-৫ সেকেন্ড ধরে টান টান করে আবার ছেড়ে দিতে হবে। এরপরে বড় করে একটা শ্বাস নিয়ে আস্তে আস্তে ছাড়তে হবে। এর পর আবার ও স্ট্রেচিং করে নিবেন।

সিটেড বাইসাইকেল ক্রাঞ্চ

ডেস্কের সামনে কমবেশি সকলেরই জায়গা থাকে। এই জায়গা কাজে লাগানোর জন্য করতে পারেন সিটেড বাইসাইকেল ক্রাঞ্চ ব্যায়ামের মাধ্যমে। ব্যায়ামটি করার জন্য আপনার সামনে একটু জায়গা করে নিন। এখন দুই পা সোজা করুন। সাধারণত সাইকেল যেই ভাবে চালাতে হয় ঠিক সেই ভাবে পা টা ভাঙতে হবে। এইভাবে এক পা বুকের পাশে নিবেন এবং অপর পা সোজা রাখবেন।