Skip to content

৭ই মে, ২০২৪ খ্রিষ্টাব্দ | মঙ্গলবার | ২৪শে বৈশাখ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

ইফতার হোক স্বাস্থ্যকর: ওটসের খিচুড়ি

ওটস এক ধরণের শস্য। যা বীজের জন্য পরিচিত। এতে প্রচুর পরিমাণে পুষ্টি রয়েছে । এই পুষ্টিগুলি শরীরে ভারসাম্য বজায় রাখে এবং ওজন নিয়ন্ত্রণ করে পাশাপাশি  ওজন বাড়তে দেয় না। ওটসে প্রচুর পরিমাণে ফাইবার থাকে। যা শরীরকে শক্তিশালী রাখে।এছাড়াও এটি ডায়াবেটিস রোগীদের জন্য অনেক উপকারী।ওটসে উপস্থিত বিটা-গ্লুকন শরীরের রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বাড়াতে সহায়তা করে। আর তাই ইফতারে স্বাস্থ্যকর কিছু খেতে চাইলে ওটসের খিচুড়ি করতে পারেন।বাসায় খুব সহজেই রান্না করা সম্ভব। চলুন তবে দেখে নেই কিভাবে রান্না করবেন ওটসের খিচুড়ি –

 

উপকরণ

 

১। ওটস- ১ কাপ
২। মুগডাল (ভেজানো)- ১কাপ
৩। কুচানো সবজি (যেকোনো সবজি)- এক কাপ
৪। আদা ও রসুন বাটা- আধা টেবিল চামচ
৫। হলুদ- পরিমাণমতো 
৬। আস্ত জিরা- সামান্য পরিমাণে 
৭। জিরা গুড়ো- আধা টেবিল চামচ 
৮। তেজপাতা-১/২ টি
৯। এলাচ-২টি
১০। দারচিনি-১ টি
১১। লবঙ্গ- ২ টো
১২। ধনেপাতা কুচি- ২ টেবিল চামচ 
১৩। অলিভ অয়েল- ২/৩ চামচ 

 

প্রণালী

 

প্রথমে একটি প্যানে ওটস হালকা করে টেলে রাখুন। এবার অন্য একটি ফ্রাই প্যানে তেল গরম করে সেটার মধ্যে এলাচ, তেজপাতা, লবঙ্গ, দারুচিনি ও আস্ত জিরে হালকা করে ভেজে নিন।

 

এবার ভিন্ন একটি প্যানে আদা রসুন বাটা দিয়ে নাড়াচাড়া দিন কিছুক্ষণ। তারপর অন্য মশলাগুলির সঙ্গে ভালো করে কষিয়ে নিন। তারপর মুগ ডালের সঙ্গে অল্প জল দিয়ে ঢেকে রাখুন। এবার ডাল সিদ্ধ হয়ে গেলে সব সবজি ও পেঁয়াজ কুচি দিয়ে ভালো করে কষিয়ে নেন। ১-২ মিনিট কষিয়ে অল্প জল দিয়ে নাড়তে থাকুন। সবজি সেদ্ধ হয়ে এলে ওটস মিশিয়ে দিন। আরও একটু জল মিশিয়ে নিন।

 

জল শুকিয়ে গেলে নামিয়ে নিন।এবার ধনেপাতা ছড়িয়ে গরম গরম পরিবেশন করুন সুস্বাদু ওটসের খিচুড়ি।

 

 

 

ডাউনলোড করুন অনন্যা অ্যাপ