Skip to content

২১শে ফেব্রুয়ারী, ২০২৪ খ্রিষ্টাব্দ | বুধবার | ৮ই ফাল্গুন, ১৪৩০ বঙ্গাব্দ

লকডাউনে ব্যতিক্রমী যত বিয়ে

করোনা মহামারীতে থমকে গিয়েছিল পুরো বিশ্ব। যার রেশ কাটেনি এখনও। বর্তমানে করোনার প্রভাব কিছুটা কম হলেও শুরুতে এর প্রভাব ছিল ব্যাপক। করোনা রুখতে লকডাউনে যেতে বাধ্য হয়েছিল পুরো পৃথিবী। যার কারণে স্থবির হয়ে পড়ে জনজীবন। পুরো বিশ্ব জুড়েই বন্ধ হয়ে যায় সকল প্রকার কার্যক্রম। তবে, লকডাউন চলাকালীন সময়ে সকল প্রকার অনুষ্ঠান বন্ধ থাকলেও বন্ধ ছিল না সামাজিক বন্ধন বিয়ে। ব্যতিক্রম ভাবেই বিয়ে সেরে ফেলে অনেক প্রেমিক প্রেমিকা। 

করোনার কারণে গত ২০ মার্চ নিউইয়র্কে লকডাউন ঘোষণা করা হয়। এর মধ্যেই একজন ম্যারেজ রেজিস্টারকে দেখা যায় ষষ্ঠ তলার অ্যাপার্টমেন্টের বারান্দা থেকে বেশ উচ্চ স্বরে বিয়ের শর্ত পাঠ করে নিচে দাঁড়ানো এক জুটির বিয়ের রেজিস্ট্রেশন সম্পন্ন করতে। নবদম্পতিকে আশে পাশের বাড়ির বারান্দা থেকে জানানো হয় বিয়ের শুভেচ্ছা। 

আর গত ১৪ই মার্চ স্পেনে লকডাউন ঘোষণা করা হয়। এতে ঘর বন্দি হয়ে পড়ে প্রায় ৪ কেটি ৭০ লক্ষ মানুষ। লকডাউন চলাকালীন সময়েও উত্তর স্পেনের আর্নেদো শহরের হোসে ও ডেবরাহ জুটি তাদের নিজেদের অ্যাপার্টমেন্টের বারান্দায় দাড়িয়ে তাদের বিয়ের আনুষ্ঠানিকতা সম্পন্ন করেন। মাইকে উচ্চস্বরে পড়ানো হয় তাদের বিয়ের শর্তাবলী। নিজ নিজ অ্যাপার্টমেন্টের বারান্দায় দাঁড়িয়ে প্রতিবেশীরা হাততালির মাধ্যম তাদের শুভেচ্ছা জানান। তাদের বিয়ের পুরো অনুষ্ঠান ড্রোন ক্যামেরায় ভিডিও ধারণ করা হয়। রাস্তায় দাড়িয়ে তাদের বিয়েতে অংশ নিয়েছিলেন শহরের মেয়র হ্যানিডয়ার গার্সিয়া। 

ইসরায়েল সরকার ১৫ই মার্চ থেকে ১০ জনের বেশি মানুষের সমাগম নিষিদ্ধ করে। এরপরও বাড়ির বারান্দায়, রাস্তায় এমনকি সুপারমার্কেটেও বিয়ের অনুষ্ঠান হয়েছে। শুধু তাই নয় বিয়ের অনুষ্ঠানে সামাজিক দূরত্ব বজায় রেখে নাচ-গানও করা হয়।

 

এছাড়াও লেবানলে পিপিই পরা সঙ্গে জীবাণুনাশক স্প্রে করা এক ব্যক্তিকে নিয়ে ক্রেনে চড়ে প্রেমিকার বাড়ির বারান্দায় উঠে পিপিই খুলে ও শরীরে জীবাণুনাশক স্প্রে করে হাঁটু গেড়ে প্রেমিকাকে বিয়ের প্রস্তাব দেওয়ার একটি ভিডিও টুইটারে ভাইরাল হয়।

ডাউনলোড করুন অনন্যা অ্যাপ