Skip to content

২৯শে সেপ্টেম্বর, ২০২২ খ্রিষ্টাব্দ | বৃহস্পতিবার | ১৪ই আশ্বিন, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ

আফগান সরকারের ভিন্ন সুর নারী নিয়ে!

আফগানিস্তান তালেবানের নিয়ন্ত্রণে চলে যাওয়ার পর থেকেই সেখানকার নারীরা বেশ উদ্বেগ-উৎকণ্ঠায় দিন কাটাচ্ছেন। বিশেষ করে অতীতে তালেবানের শাসনামলে নারীদের যে কঠোর নিয়ম-শৃঙ্খলার মধ্য দিয়ে যেতে হয়েছে এবারও তাই হবে কিনা তা নিয়ে জল্পনা চলছে।

 

তালেবান সরকার প্রথম ক্ষমতায় যে রূপ দেখিয়েছিল নারীদেরকে নিয়ে তাতে করে তাদের উপরে আফগানিস্তান নারীদের বেশ চিন্তা থাকবেই। ১৯৯৬ থেকে ক্ষমতায় আসার পরে তালেবান সরকার নারীদের শিক্ষা ও কাজে বিশেষ আইন জারী করে। যার মাধ্যমে পরিপূর্ণভাবে অগ্রসর হওয়াটা এতোটাও সহজ নয়।

 

তবে এবার ঘটে গেলো এক অদ্ভুত ঘটনা।নারীদেরকে নিয়ে এমন মতবাদ বিরল হিসেবেই বিবেচনা করা তালেবানদের কাছ থেকে।

 

তালেবানের মুখপাত্র জবিউল্লাহ মুজাহিদ বলেছেন, নারীরা আমাদের সমাজের একটি গুরুত্বপূর্ণ অংশ।

 

তালেবানের শাসনে নারীদের প্রতি কি ধরনের আচরণ করা হতে পারে সে বিষয়ে জবিউল্লাহ মুজাহিদকে প্রশ্ন করা হয়েছিল। তিনি আগের বিবৃতিরই পুনরাবৃত্তি করেছেন। তিনি বলেছেন, শরীয়া শাসনের আওতায় নারীদের অধিকার সম্মানের সঙ্গে রক্ষা করা হবে। তবে এ বিষয়ে তিনি বিস্তারিত কিছু বলেননি। তার মতে, নারীরা হচ্ছে সমাজের গুরুত্বপূর্ণ অংশ। সুতরাং তাদের সঙ্গে সেভাবেই ব্যবহার করা হবে।

 

সরকারটি গঠন হওয়ার পর থেকে একটি অন্য রূপ দেখে যাচ্ছে গোটা-বিশ্ব। তাদের সরকার কেমন হবে এ ব্যাপারে তারা পরিষ্কার ধারণা দিয়েছে।তবে সরকারটি তাদের পরিকল্পনা কিভাবে বাস্তবায়ন করবে সেটি এই আসল বিষয়।