Skip to content

১৭ই এপ্রিল, ২০২৪ খ্রিষ্টাব্দ | বুধবার | ৪ঠা বৈশাখ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

সেদিন এক বৈশাখে

সেদিন এক বৈশাখে
তুমি আমি দু'জনে,
বনান্তের ঝিলের ধারে 
গিয়েছিলেম বৈকালিক ভ্রমণে। 
হঠাৎ আঁধার করে 
ঘন কালো মেঘ এলো আকাশ ঘিরে,
বৃষ্টি নিয়ে উঠেছিল ঝড় 
জলসিক্ত হয়ে গেলেম দু'জনেই একেবারে!  

 

বৃষ্টি ভেজা সেই শীতল ঝড়ো হাওয়ায় 
কাঁপন ছিল অঙ্গে, 
তবুও হৃদয়ে ছিল উষ্ণ আমেজ 
চলতে তোমার সঙ্গে।  
ঝিলের মাঝে ফেঁপে ওঠা 
জলের সেই উল্লোলের উচ্ছ্বাস,
বুকের মাঝে প্রবল সাড়া জাগানো 
যেন আদিম এক উল্লাস। 

 
আকাশের বুক চিরে চমকি চমকি 
গরজে উঠেছিল বিজুলী, 
ঝড়ো হাওয়ায় বিক্ষিপ্ত 
গাছের ভাঙ্গা ডালগুলি।
চকিতে আমি কেঁপে উঠে 
মুখ লুকিয়ে তোমার বুকেতে,
আশ্রয় খুঁজে পেলাম 
ও দু'টি বলিষ্ঠ বাহুর বেষ্টনীতে। 

 

ছুটেছি তোমার সাথে দিগ্বিদিক 
উপেক্ষা করে ঝড় বৃষ্টি,  
দুরন্ত হাওয়া আর জলের ঝাপ্টায় 
ঝাপসা ছিল দু'চোখের দৃষ্টি। 
তবুও দেখেছিলেম সেদিন 
পাগল হাওয়ার সেই উন্মাদ নাচন,
দেখেছিলেম ঝড়ের দাপটে 
ক্ষিপ্ত সেই বাদল বরিষণ।

 

কালবৈশাখীর ঝড়ে 
ভয় ছিলনাগো একটুও মনে, 
ছিলে তুমি সাথে, ছিল তাই 
ভরসা মনের কোনে। 
ঝড় থেমে গেলে জ্বলে উঠেছিল
ল্যাম্প পোষ্টের সন্ধ্যে বাতি,
সেই আলোতে দেখেছিলেম আমি  
ওগো নিরুপম তোমার প্রজ্বলিত দীপ্তি।

 

 

ডাউনলোড করুন অনন্যা অ্যাপ