করোনা যুদ্ধে প্রবাসীদের কবিতা

করোনা যুদ্ধে প্রবাসীদের কবিতা।
নিউইয়র্কবাসী টনি ডায়েসের কাছে। তারই পরিচালনায় তৈরি হয়েছে এই কবিতার ভিডিও। সম্প্রতি ফেসবুকে উন্মুক্ত করা হয়েছে কবিতার ভিডিওটি। এটির সম্পূর্ণ পরিকল্পনা করেছেন নওশীন নাহরিন। করোনা সংকটে যারা সামনে থেকে যুদ্ধ করছেন তাদেরকে এই কবিতা উৎসর্গ করা হয়েছে।

মহামারী করোনা সংকট মানুষের বোধের শিকড়ে ভীষণভাবে নাড়া দিয়েছে। বেঁচে থাকার অর্থ যেন পাল্টে গিয়েছে। পাল্টে যাওয়া এই জীবনের উপলব্ধির কথা কবিতায় প্রকাশ করলেন বাংলাদেশের প্রবাসী ২১জন শিল্পী।

 

'এ যাত্রায় বেঁচে গেলে ভীষণ করে বাঁচবো/ সবাইকে জড়িয়ে ধরে, অনেক করে কাঁদবো/ এই যাত্রায় রেহাই যদি পাই অন্যের কথা ভাববো'--এমন কিছু পংক্তিমালায় সাজানো হয়েছে কবিতাটি। এটি রচনা করেছেন সহস্র সুমন। শিল্পীদের মধ্যে অনেকেই আবার আট এবং নয়ের দশকে ছোটপর্দার জনপ্রিয় মুখ।

 

আবৃত্তিতে অংশ নেওয়া শিল্পীরা কেউ থাকেন মার্কিন মুলুকের নিউইয়ার্কে কেউ আবার যুক্তরাজ্যে, কানাডায় কিংবা অস্ট্রেলিয়ায়। বিশ্বের বিভিন্ন দেশে থাকলেও একটি কবিতায় ফুলের মালার মতো এক হয়ে আছেন তারা। লকডাউনে শিল্পীরা নিজের নিজের ঘরে বসে নিজেদের আবৃত্তি করা কবিতার ভিডিও করে ফুটেজ পাঠিয়ে দিয়েছেন।

 

নিউইয়র্কবাসী টনি ডায়েসের কাছে। তারই পরিচালনায় তৈরি হয়েছে এই কবিতার ভিডিও। সম্প্রতি ফেসবুকে উন্মুক্ত করা হয়েছে কবিতার ভিডিওটি। এটির সম্পূর্ণ পরিকল্পনা করেছেন নওশীন নাহরিন। করোনা সংকটে যারা সামনে থেকে যুদ্ধ করছেন তাদেরকে এই কবিতা উৎসর্গ করা হয়েছে।