কম মসলায় রান্না করুন গরুর মাংস ভুনা

কম মসলায় রান্না করুন গরুর মাংস ভুনা
ছবি:সংগৃহীত
মাংস আগে সাইজ করে কেটে নিয়ে ধুয়ে নিন ৩/৪বার। অনেক সময় মাংসে অতিরিক্ত তেল বা চর্বি থাকে। সেক্ষেত্রে পানি গরম করে মাংসের মধ্যে দিয়ে ধুয়ে নিন একবার। চর্বি অনেকটা চলে যাবে গরম পানির সাথে।

ভোজন রসিক বাঙালির খাওয়া মানেই হলো রকমারি স্বাদের সকল মজাদার রান্না খাবার। পোলাও,গরুর মাংস, মুরগির মাংস, বিরিয়ানি, রোস্ট ইত্যাদি রকমের খাবার এর আয়োজন হয়ে থাকে। অনেকে বেশি মসলা দিয়ে রান্না তরকারি খেতে চায় না বা খেতে পারে না। অতিরিক্ত মসলা যুক্ত খাবার কিন্তু আবার শরীর এর জন্য ভালো ও নয়। যারা প্রতিনিয়ত অসুস্থ থাকেন বা মেডিসিন নিচ্ছেন তাদের ক্ষেত্রে তো অবশ্যই কম মসলায় রান্না করতে হবে। তাই আজ আমরা জানবো কিভাবে কম মসলা দিয়ে ও মজাদার গরুর ভুনা রান্না করা যায়। এটি খেতেও কিন্তু অনেক মজার হয়। ফলে সবাই খেতে পারবে এই মাংস ভুনা। তাহলে চলুন জেনে নেওয়া যাক, আজকের রান্নার রেসিপি।


প্রয়োজনীয় উপকরণ


১. আধা কাপ তেল

২. আধা কাপ পেঁয়াজ-কুচি

৩. ১০-১২টা শুকনো মরিচ-কুচি

৪. ৫০০ গ্রাম গরুর মাংস

৫. এক টেবিল চামচ আদা বাটা

৬. আধা টেবিল চামচ গরম মসলার গুঁড়ো

৭. এক কাপ টমেটো-কুচি

৮. এক চা চামচ দারুচিনি গুঁড়ো

৯.লবণ পরিমাণ মতো


পদ্ধতি


মাংস আগে সাইজ করে কেটে নিয়ে ধুয়ে নিন ৩/৪বার। অনেক সময় মাংসে অতিরিক্ত তেল বা চর্বি থাকে। সেক্ষেত্রে পানি গরম করে মাংসের মধ্যে দিয়ে ধুয়ে নিন একবার। চর্বি অনেকটা চলে যাবে গরম পানির সাথে। এরপর রান্নার জন্য পাত্র নিয়ে এতে তেল দিয়ে গরম করে পেঁয়াজ এবং শুকনো মরিচ হালকা ভেজে নিন। জাতে বাদামি কালার টা চলে আসে এমন ভাবে ভাজতে হবে। এরপর আদা বাটা,রসুন বাটা,গরম মসলা গুঁড়ো  সাথে একটু পানি দিয়ে ৫ মিনিট মসলা ভালো করে কষিয়ে নিন। মসলা লাল লাল হয়ে এলে এতে মাংস গুলো ধুয়ে সাথে ১ গ্লাস পরিমাণ পানি দিয়ে নাড়াচাড়া করে কষিয়ে নিন ৩০ মিনিট। মাংস যখন সেদ্ধ হয়ে যাবে তখন আরও ২গ্লাস ঝোলের পানি দিয়ে দিতে হবে। সাথে এতে পরিমাণ মতো লবণ এবং টমেটো দিয়ে আরও ২০ মিনিট কষিয়ে নিতে হবে। ঝোলের পানি কমে এলে লবণের স্বাদ বুঝে জ্বাল কমিয়ে দিয়ে মাংসর মধ্যে দারুচিনি গুঁড়ো দিয়ে আরও ১০ মিনিট দমে রেখে নামিয়ে নিন। চাইলে নামানোর আগে ৩-৪ টা আস্ত কাচা মরিচ ও দিয়ে দিতে পারেন।


পোলাও, খিচুড়ি বা ভাতের সাথে পরিবেশন করুন মজাদার গরুর মাংস ভুনা।