বিপ্লব ও প্রেমের উপন্যাস 'কালবেলা'

বিপ্লব ও প্রেমের উপন্যাস 'কালবেলা'
সংগৃহীত
কালবেলা উপন্যাসে লেখক সত্তর দশকের ভারতবর্ষের সামাজিক অবস্থার সাথে তুলে ধরেছেন রাজনৈতিক অবস্থাও। একদল তরুনের নতুন ভারতবর্ষ তৈরির বিপ্লবকে তুলে ধরেছেন। রাজনীতির পথটা যে কতোটা কন্টকময় তা এই উপন্যাসটি পড়লেই বুঝা যায়।

বই : কালবেলা

লেখক : সমরেশ মজুমদার

 

 

বিপ্লব ও প্রেমের সমন্বয়ে সমরেশ মজুমদারের উপন্যাস "কালবেলা"।

তৎকালীন ভারতের রাজনৈতিক প্রেক্ষাপটকে সুন্দর ভাবে তুলে ধরেছেন লেখক এই উপন্যাসে।

বাম রাজনীতির সাথে যুক্ত হওয়া অসংখ্য তরুনদের মধ্যে একজন অনিমেষও। তার সঙ্গী হিসেবে আছে মাধবীলতা। দুজনের ভালোবাসায়াতে উপন্যাসটি রাজনীতিকে টপকিয়ে প্রেমের উপন্যাস হিসেবেই সমাদৃত হয়েছে।

 

গল্পের মূল চরিত্র অনিমেষ।

কলকাতায় পড়তে আসার দিনের পায়ে পুলিশের গুলিতে আহত হয়। এরপর শুরু হয় গল্পের মূল কাহিনী। 

কলেজে বাম রাজনীতির সাথে জড়িয়ে পড়ে অনিমেষ! তৎকালীন অসংখ্য ছাত্রের মতো বিপ্লবের পথে হাঁটতে শুরু করে। 

এর আগেই পরিচয় হয় কলেজের মাধবীলতা নামের এক রমনীর সাথে। তার সাথে মনের আদান প্রদান হয়।

মাধবীলতা চরিত্রটি উপন্যাসে স্বার্থকতা এনে দিয়েছে। তেজস্বী ব্যক্তিত্বের অধীকারী মাধবীলতা তার সবটা দিয়ে ভালোবেসে গিয়েছে অনিমেষকে। নিজের ইচ্ছাশক্তি ভালোবাসা দিয়ে সবকিছুতে সমর্থন  করে গিয়েছে তার প্রেমিককে। 

মাধবীলতা আমাকে মুগ্ধ করেছে। প্রত্যেক মেয়েই এই উপন্যাস পড়ার সময় নিজেকে মাধবীলতা হিসেবে দেখতে চাইবে।

শত প্রতিকূলতা মাঝেও যে তার ভালোবাসাকে রেখেছিল সবার উপরে। 

অনিমেষ এবং মাধবীলতার ব্যক্তিত্ব বার বার আমাকে মুগ্ধ করেছে।

 

কালবেলা উপন্যাসে লেখক সত্তর দশকের ভারতবর্ষের সামাজিক অবস্থার সাথে তুলে ধরেছেন রাজনৈতিক অবস্থাও। একদল তরুনের নতুন ভারতবর্ষ তৈরির বিপ্লবকে তুলে ধরেছেন। রাজনীতির পথটা যে কতোটা কন্টকময় তা এই উপন্যাসটি পড়লেই বুঝা যায়। রাজনীতির পাশাপাশি একজন নারীর প্রতি সমাজের দৃষ্টিভঙ্গি, সমাজের উঁচু ও নিচু স্তরের মানুষের মন মানসিকতার পূর্ণাঙ্গ চিত্র উঠে এসেছে এই উপন্যাসে। পারস্পারিক বিশ্বাস ও ভালোবাসা থাকলে সব বাধা অতিক্রম করা যায় এটিও লেখক তুলে ধরেছেন।

সব মিলিয়ে সমরেশ মজুমদারের "কালবেলা" একটি অসাধারণ উপন্যাস!