রমণীর ক্লেশ

রমণীর ক্লেশ
রমণীর ক্লেশ
  নারীর সাথে এ জীবনের হয় প্রথম পরিচয় ,                     স্নেহের তারে মায়ার গান শুনেই                  জীবনের গল্পে সংকল্প লিখেছি তাই ।

বীর বলবান সৈনিক হয়েও আমি

               নারীর কাছে আকাশ সমান ঋণী

         তোমার আকুতির দীর্ঘ যন্ত্রণার অন্তিমে

  আমার দেহ তোমার যৌন দ্বার হতে ভূমিতে নামে।

 

 

                    ছিলনা জ্ঞান , ছিলনা হুঁশ

                  বুঝিনি কে নারী কেবা পুরুষ ,

              মানুষ জনমে নারীর শ্রেষ্ঠ অবদান

    বেঁচে আছি যাঁর দ্বারা সেই অমৃত মাতৃদুগ্ধ পান ।

 

 

                           পদাক্রমে ধাপেধাপে

        সময় তার নিজস্ব গতি বোঝে গুরুত্বের মাপে ,

            মায়ের কোলে স্নিগ্ধ আঁচলের দোলনায়

          নারীর সাথে এ জীবনের হয় প্রথম পরিচয় ,

                    স্নেহের তারে মায়ার গান শুনেই

                 জীবনের গল্পে সংকল্প লিখেছি তাই ।

 

 

                    স্বপ্নের সূচনায় দেখেছিলাম

                      এমনই কোন নারীর হাসি ,

                  শত সৃষ্টির জাল বোনা জন্ম লয়

                   সেখানে হয় ভালোবাসা বাসি ।

 

 

  জীবনের শুরু থেকে শেষ নারী তুমি পেয়েছ শুধুই ক্লেশ

                ভোগের বদলে দিয়েছ অনন্ত ত্যাগ

         বিধাতার চরম লেখনীতে এই তোমার প্রাপ্তি

                           আমি শুধু দেখে যাই ,

               কেটে যায় জীবন হয়ে যায়  সমাপ্তি ।