বাসার সৌন্দর্য বাড়াতে লাগাতে পারেন গাছ  

বাসার সৌন্দর্য বাড়াতে লাগাতে পারেন গাছ  
বাসার সৌন্দর্য বাড়াতে লাগাতে পারেন গাছ  
তুলসী গাছ খুবই জনপ্রিয় ঔষধি গাছ হিসেবে। এটি সূর্যের আলোতে বেড়ে উঠে। তাই অল্প আলোতেই এটি বেড়ে উঠে। এটি সাধারণত পোকামাকড়, মশা তাড়াতে সাহায্য করে।

গাছ অত্যন্ত উপকারী একটি জীব। গাছ আমাদের ছায়া দেয়, ফল দেয়, আর সবচেয়ে বেশি যেটা জরুরী সেটা হল 'অক্সিজেন' দেয়। তাই যত পারুন গাছ লাগান। আপনি চাইলে বাসাতে গাছ লাগাতে পারেন। এতে করে বাসার সৌন্দর্য বেড়ে যাবে বহুগুণে। চারিদিকে বিভিন্ন ধরনের গাছ লাগালে ঘরে একটি মনোরম পরিবেশ সৃষ্টি হবে। এক্ষেত্রে কি কি গাছ বাসায় লাগাতে পারেন তা জেনে নেই চলুন।   

 

মানি প্ল্যান্ট গাছ 

ম্যানি প্ল্যান্ট গাছ খুবই পরিচিত। কেননা এটি দেখাশুনা করতে বেশি কষ্টের প্রয়োজন হয় না। বরং একটু যত্ন পেলেই গাছ তার রূপ দেখাতে শুরু করে দেয়। এই গাছ আপনার ঘরের বাতাস শুদ্ধ রাখবে, তাছাড়া অক্সিজেন দিবে। তাই লাগাতে পারেন এই গাছ। 

 

স্নেক প্ল্যান্ট গাছ

এটি মূলত ঘরোয়া উদ্ভিদ। এই গাছ রাখতে হবে যেইখানে আর্দ্রতা আছে। কেননা এটি বড় হতে এবং ভালো ভাবে বেড়ে উঠতে সাহায্য করে এই আর্দ্রতা। এটি ক্ষতিকর পদার্থ শোষণ করে নিয়ে বায়ু কে শুদ্ধ করে।

 

অ্যালোভেরা গাছ

এই গাছ সবার কাছে ঘৃতকুমারী নামেও পরিচিত। এর গুনাগুণও অনেক। এটি ত্বকের যত্নে, চুলের যত্নে ব্যবহার করা হয়ে থাকে। অনেকে সকালে শরবত হিসেবেও খেয়ে থাকে। এটি যত্ন নিতে খুব বেশি পানি বা সূর্যের আলোর প্রয়োজন হয় না। তাই খুব সহজেই বাসাতে এই গাছ রাখতে পারেন। 

 

তুলসী

তুলসী গাছ খুবই জনপ্রিয় ঔষধি গাছ হিসেবে। এটি সূর্যের আলোতে বেড়ে উঠে। তাই অল্প আলোতেই এটি বেড়ে উঠে। এটি সাধারণত পোকামাকড়, মশা তাড়াতে সাহায্য করে। আর সাথে বাতাসের অক্সিজেন ও বারিয়ে দেয়। তাই এই গাছ টি চাইলে বাসার যেইখানে একটু আলো বা সূর্যের আলো পরে এমন জায়গাতে রাখতে পারেন। এতে বেশি উপকারী হবে। 

 

তাই বাসার সৌন্দর্য বাড়াতে এবং রোগ প্রতিরোধ কমাতে এই গাছ গুলো লাগাতে পারেন।