শিশুর ঘরটি সাজান মনের মত করে

শিশুর ঘরটি সাজান মনের মত করে
শিশুর ঘরটি সাজান মনের মত করে
শিশুদের ঘরের আসবাবপত্র সবসময় ছোট ছোট রাখার চেষ্টা করুন৷ ঘরে কিছুটা জায়গা রাখুন। এতে সে খেলাধুলা করেও আনন্দ পাবে। তাছাড়া ঘরের একপাশে একটি বইয়ের তাক রাখতে পারেন। সেখান থেকে বই নিয়ে শিশু তার ইচ্ছামত পড়তে পারবে৷

অধিকাংশ বাড়িতেই ছোট বাচ্চা থাকে। তাদের হট্টগোলে মেতে থাকে সারা বাড়ি। পরিবারের অন্যান্য সদস্যদের কাছে থেকে বাচ্চাদের থাকে নানা বায়না। আগে বাচ্চারা মা-বাবা, ভাই-বোনের বা দাদা-দাদীর সঙ্গে থাকলেও এখন তাদের চাই আলাদা ঘর। আবার ঘরটিকেও সাজাতে হবে ভিন্নভাবে।

 


বাচ্চাদেরও আলাদা একটা জগৎ আছে। তাদের কিছু নিজস্ব পছন্দ-অপছন্দ আছে। তাই বাচ্চাদের পছন্দের কথা মাথায় রেখে তাদের ঘর সাজানো উচিত।শিশুর ঘরের জন্য সবসময় উজ্জ্বল রং কে প্রাধান্য দিন। কমলা, হলুদ, গোলাপি কিংবা গাঢ় নীল রং খুবই মানানসই। বিছানার চাদর, বালিশের কভার, পর্দাতেও ব্যবহার করতে পারেন এসব উজ্জ্বল রং।

 


শিশুরা বিভিন্ন জিনিস আর্ট করতে পছন্দ করে। তাই তাদের ঘরের দেয়ালে নানারকম কার্টুনের ছবি আঁকতে পারেন।এছাড়াও বিভিন্ন পশুপাখি, ফুল, মাছ ও লতাপাতার ছবি আঁকতে পারেন। এতে শিশুটি খুব আনন্দ পাবে। পাশাপাশি বিভিন্ন শিক্ষণীয় বিষয় ফুটে উঠে এমন ছবি এর সঙ্গে আঁকতে পারেন। 

 


শিশুদের ঘরের আসবাবপত্র সবসময় ছোট ছোট রাখার চেষ্টা করুন৷ ঘরে কিছুটা জায়গা রাখুন। এতে সে খেলাধুলা করেও আনন্দ পাবে। তাছাড়া ঘরের একপাশে একটি বইয়ের তাক রাখতে পারেন। সেখান থেকে বই নিয়ে শিশু তার ইচ্ছামত পড়তে পারবে৷ এটি বাস্তব জীবনে কাজে লাগবে। আর এভাবেই আপনার শিশুর ঘরটিকে সাজিয়ে তুলুন মনের মত করে৷