প্রয়াত বীর মুক্তিযোদ্ধা আয়শা খানম

প্রয়াত বীর মুক্তিযোদ্ধা আয়শা খানম
বীর মুক্তিযোদ্ধা আয়শা খানম
বাষট্টির ছাত্র আন্দোলন, ঊনসত্তরের গণঅভ্যুত্থান এবং মহান মুক্তিযুদ্ধসহ সকল প্রগতিশীল আন্দোলনে তাঁর সক্রিয় অংশগ্রহণ ছিলো। তিনি বঞ্চিত ও অধিকারহীন নারীদের অধিকার আদায়ে আমৃত্যু কাজ করেছেন।

বাংলাদেশ মহিলা পরিষদের সভাপতি , বীর মুক্তিযোদ্ধা, বিশিষ্ট নারী নেত্রী আয়শা খানম আজ শনিবার ভোরে মৃত্যু বরণ করেছেন। মৃত্যুকালে তিনি বারডেম হাসপাতালে চিকিৎসাধীন ছিলন। দীর্ঘদিন ধরে তিনি ফুসফুস ক্যান্সারে ভুগছিলেন। মৃত্যুর সময় তাঁর বয়স হয়েছিল ৭৫ বছর। 


তাঁর মৃতদেহ আজ সকাল সাড়ে ৮টায় বাংলাদেশ মহিলা পরিষদ কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে আনা হয়েছে। সকলে তাঁর  বিদেহী আত্মার প্রতি শ্রদ্ধা জানান। এরপর এখান থেকে তাঁর মৃতদেহ নেত্রকোনায় নিজ গ্রামে নিয়ে যাওয়া হবে দাফন করার জন্য। 


তিনি দীর্ঘদিন ধরে বাংলাদেশ মহিলা পরিষদের সভাপতির দায়িত্ব পালন করে। দায়িত্বরত সময়ে নারীর অধিকার আদায়ে বিশেষ ভূমিকা  রাখেন। এছাড়াও বাষট্টির ছাত্র আন্দোলন, ঊনসত্তরের গণঅভ্যুত্থান এবং মহান মুক্তিযুদ্ধসহ সকল প্রগতিশীল আন্দোলনে তাঁর সক্রিয়  অংশগ্রহণ ছিলো। তিনি বঞ্চিত ও অধিকারহীন নারীদের অধিকার আদায়ে আমৃত্যু কাজ করেছেন। তাঁর মৃত্যুতে বাংলাদেশের নারী আন্দোলন এক অকৃত্রিম অভিভাবককে হারালো। 


নেত্রকোনার গাবড়াগাতি গ্রামে ১৯৪৭ সালের ১৮ অক্টোবর আয়েশা খানমের জন্ম। তাঁর বাবার নাম গোলাম আলী খান এবং মা জামাতুন্নেসা খানম। বাংলাদেশের মুক্তিযুদ্ধ চলাকালে তিনি ছিলেন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থী। সেসময়ে তিনি বাংলাদেশ ছাত্র ইউনিয়নের কেন্দ্রীয় কমিটির সহসভাপতির দায়িত্ব পালন করেন। এ ছাড়া রোকেয়া হলের সাধারণ সম্পাদক ও সহসভাপতি ছিলেন।