মমতার মন্ত্রীসভায় নারীশক্তির জয়জয়কার

মমতার মন্ত্রীসভায় নারীশক্তির জয়জয়কার
মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়
টানা তিনবার নারী মুখ্যমন্ত্রী এরপর মন্ত্রীসভায় নারীদের এমন জয়জয়কার জানান দিচ্ছে আগামী পাঁচ বছর নারী ক্ষমতায়নের এক বিশেষ দিক দেখতে যাচ্ছে পশ্চিমবঙ্গ।

নারীদের পিছিয়ে থাকার দিন বেশ অনেক আগেই শেষ। নারী এখন শুধু আর চার দেয়ালে বন্দী নেই, প্রায় প্রতি ক্ষেত্রেই সফল নারী। বর্তমান সময়ে নারীশক্তির এক উজ্জ্বল দৃষ্টান্ত ভারতের পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। পরপর টানা তিনবার মুখ্যমন্ত্রীর পদে জয় লাভ করলেন তিনি। এবার তার পাশাপাশি তার মন্ত্রীসভায়ও দেখা যাচ্ছে নারীশক্তির জয়জয়কার।  


ভারতের একমাত্র মহিলা মুখ্যমন্ত্রী  মমতা ব্যানার্জি সম্প্রতি টানা তৃতীয়বারের মতো নির্বাচনে জয়লাভ করেন। ২০২১ এর নির্বাচনে তৃণমূলের  প্রধান শ্লোগান ছিল- ‘বাংলা নিজের মেয়েকেই চায়’। আর শ্লোগানকে সত্যি প্রমাণ করে বিপুল ভোটে জয়লাভ করেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়।  


শপথ গ্রহণের পর সোমবার তার মন্ত্রীসভা গঠন করলেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। আর তার গঠিত মন্ত্রীসভায়ও দেখা গেলো নারীশক্তির  ছোঁয়া। তিনিসহ তার ক্যাবিনেটে জায়গা করে নিলো ৯ জন নারী। মুখ্যমন্ত্রী ছাড়া আরও ৮ নারী যাদের কাঁধে মন্ত্রিত্বের দায়িত্ব পড়েছেন তারা হলেন; শশী পাঁজা, চন্দ্রিমা ভট্টাচার্য, রত্ন দে নাগ, সন্ধ্যারানি টুডু, শিউলি সাহা, সাবিনা ইয়াসমিন, জ্যোৎস্না মান্ডিদের এবং বীরবাহা হাঁসদা। 


এবারে জঙ্গলমহল থেকে জোরালো উপস্থিতি মহিলা মন্ত্রীদের। জঙ্গলমহলের বাঁকুড়া, পুরুলিয়া, ঝাড়গ্রাম– এই তিন জেলা থেকে এবার মন্ত্রীত্ব পাচ্ছেন না কোন পুরুষ। মন্ত্রীত্ব পাচ্ছেন শুধু তিন নারী সন্ধ্যারানি টুডু, জ্যোৎস্না মান্ডি ও বীরবাহা হাঁসদার।  এ যেন নারীদের এক বিশাল অর্জন।  

 

রাজ্য মন্ত্রীসভার শপথ গ্রহণ অনুষ্ঠিত হয় সোমবার। করোনার কারণে একপ্রকার ঝাঁক জমকহীনভাবেই শেষ হয় এ অনুষ্ঠান। অত্যন্ত সংক্ষিপ্ত এই শপথ গ্রহণ অনুষ্ঠানে একসঙ্গে শপথ নেন পূর্ণ মন্ত্রীরা। এদিন মহিলাদের মধ্যে শপথ নেন চন্দ্রিমা ভট্টাচার্য, রত্না দে নাগ, সন্ধ্যারাণী টুডু, শিউলি সাহা, ইয়াসমিন সাবিন, বীরবাহা হাঁসদা, জোৎস্না মান্ডি। 

 

টানা তিনবার নারী মুখ্যমন্ত্রী এরপর মন্ত্রীসভায় নারীদের এমন জয়জয়কার জানান দিচ্ছে আগামী পাঁচ বছর নারী ক্ষমতায়নের এক বিশেষ দিক দেখতে যাচ্ছে পশ্চিমবঙ্গ।