অজানা পার্শ্বপ্রতিক্রিয়া যুক্ত খাবারগুলো দেখে নিন

অজানা পার্শ্বপ্রতিক্রিয়া যুক্ত খাবারগুলো দেখে নিন
অজানা পার্শ্বপ্রতিক্রিয়া যুক্ত খাবারগুলো দেখে নিন
ফুলকপি ও এই ধরনের সবজি খাওয়া হলে গ্যাস্ট্রিক গ্রন্থির অস্বস্তি, পেট ফোলাভাব ও বায়ু ত্যাগের সমস্যা দেখা। এই সবজি পুষ্টিগুণ সমৃদ্ধ তবে হজমে ব্যাঘাত ঘটায়।

বেঁচে থাকতে হলে আমাদের জন্য খাদ্য অপরিহার্য। সুস্বাস্থ্যের জন্য অন্যান্য খাবারের পাশাপাশি  সবজি ও ফলমূলের জুড়ি নেই। কিন্তু কিছু সবজি হজমের সমস্যা বাড়ায় এবং নানা রকমের শারীরিক সমস্যা সৃষ্টি করতে পারে। আমরা অনেকেই এসব সবজি সম্পর্কে অবগত নই। এগুলো খেলে শরীরে তাৎক্ষণিক কিছু প্রতিক্রিয়া দেখা দিতে পারে। 

এমন পার্শ্বপ্রতিক্রিয়াযুক্ত কিছু খাবার দেখে নিতে পারেন। 

 

 

মাশরুম


মাশরুম ভিটামিন ডি’য়ে ভালো উৎস। আমাদের অনেকেরই খুব পছন্দের খাবার এটি। স্যুপ, তরকারি, চপে প্রায়ই আমরা মাশরুম খেয়ে থাকি। কিন্তু অনেকের ক্ষেত্রে এর বিরূপ প্রভাব দেখা দেয়। খাদ্য তালিকায় মাশরুম যোগ করা অস্বস্তি ও এমনকি অ্যালার্জির সমস্যা দেখা দিতে পারে। এছাড়াও, অনেক সময় র‌্যাশের সমস্যাও দেখা দেয়। ‘শিতাকে’ বা ব্যাঙের ছাতার মতো দেখতে মাশরুম খাওয়ার কারণে যে ফুসকুড়ি দেখা দেয় তা ‘শিতাকে ডার্মাটাইটস’ নামে পরিচিত। এটা কাঁচা মাশরুম খাওয়া বা ভালোভাবে রান্না না করে খাওয়ার কারণে দেখা দেয়। 

 

 

গাজর 


অনেকক্ষেত্রেই গাজর ত্বকের রং কমলাটে করে দেয়। অতিরিক্ত গাজর খাওয়ার কারণে অনেকের গায়ের রংয়ে পরিবর্তন দেখা দেয়। ফলে ত্বক হলদে বা কমলা ভাব হয়ে যায়। এই বর্ণের বৈচিত্র্য হাত ও পায়ের তালু এমনকি সারা শরীরেও প্রকাশ পেতে পারে। এর অতিরিক্ত বিটা ক্যারোটিন রক্তের শোষিত হওয়ার পরেও ত্বকে ক্ষণিকের জন্য ফুটে উঠতে পারে। একই সমস্যা মিষ্টি আলু ও কুমড়া খাওয়ার ফলেও ঘটতে পারে। তবে অনেকেরই এই সমস্যা দেখা দেয়না।

 


বিটরুট


বেশি বিটরুট খাওয়া হলে প্রস্রাবের রং গোলাপি হতে পারে। এতে ভয়ের কিছু নেই, এটা বিটরুট খাওয়ার ফল। এতে থাকা উদ্ভিজ্জ রং ও অন্যান্য রাসায়নিক উপাদান ক্ষণিকের জন্য মূত্রের রংয়ে পরিবর্তন আনতে পারে।

 

 

কমলার রস


অতিরিক্ত ভিটামিন সি গ্রহণ প্রস্রাবের রংয়ে পরিবর্তন আনতে পারে। একদিনে বেশি ভিটামিন সি গ্রহণ ও এর সম্পূরক গ্রহণের কারণে এই পরিবর্তন দেখা দেয়। ভিটামিন সি ধরনের খাবার ছাড়াও পানি স্বল্পতার কারণেও প্রসাবের রং হলদে ভাব দেখা দেয়। তাই অতিরিক্ত ভিটামিন সি গ্রহণ করলে এর পাশাপাশি পর্যাপ্ত পানি পান করা আবশ্যক।

 

 

ফুলকপি


শীতকালীন সবজি ফুলকপি প্রায় সবারই অত্যন্ত প্রিয় খাবার। কিন্তু ফুলকপি ও এই ধরনের সবজি খাওয়া হলে গ্যাস্ট্রিক গ্রন্থির অস্বস্তি, পেট ফোলাভাব ও বায়ু ত্যাগের সমস্যা দেখা। এই সবজি পুষ্টিগুণ সমৃদ্ধ তবে হজমে ব্যাঘাত ঘটায়। বিশেষত কাঁচা খেলে। এই সকল সবজিতে ‘রাফিনোজ’ নামক কার্বোহাইড্রেট আছে। এই যৌগ শরীর ঠিক মতো হজম করতে না পারায় পেটে সমস্যা দেখা দেয়।

 

তবে এই খাবারগুলোতে যে সবারই একই সমস্যা হবে এমন নয়। অনেকের শরীরে এগুলো পার্শ্বপ্রতিক্রিয়া দেখায় আবার অনেকের দেখা যায়না। যাদের এই পার্শ্বপ্রতিক্রিয়া দেখা যায় তাদের একটু দেখেশুনে খাওয়া উচিত।