সচেতন জীবনযাপনে কমবে স্তন ক্যান্সারের ঝুঁকি 

সচেতন জীবনযাপনে কমবে স্তন ক্যান্সারের ঝুঁকি 
সচেতন জীবনযাপনে কমবে স্তন ক্যান্সারের ঝুঁকি 
আন্তর্জাতিক সংস্থা আইএআরসি'র তথ্যমতে, বাংলাদেশে প্রতি বছরে ১৩ হাজারের বেশি নারী নতুন করে এ রোগে আক্রান্ত হন এবং মারা যান ৬৭৮৩ জন। তাই সময় এখন সচেতনতার। 

বিশ্বে প্রতি আটজনের মধ্যে একজন নারী স্তন ক্যান্সারে আক্রান্ত হচ্ছেন। বাংলাদেশেও ক্রমেই বেড়ে চলেছে স্তন ক্যান্সার আক্রান্ত রোগীর সংখ্যা। শুধু নারীই নয় পুরুষরাও আক্রান্ত হচ্ছেন এই রোগে। 

 

আন্তর্জাতিক সংস্থা আইএআরসি'র তথ্যমতে, বাংলাদেশে প্রতি বছরে ১৩ হাজারের বেশি নারী নতুন করে এ রোগে আক্রান্ত হন এবং মারা যান ৬৭৮৩ জন। তাই সময় এখন সচেতনতার। 

 

 

এ রোগে আক্রান্ত রোগিরা অনেক সময় অজ্ঞতা এবং সচেতনতায় অভাবে বুঝতেই পারেন না যে তিনি এই রোগে আক্রান্ত। অনেক সময় লজ্জাও হয়ে দাঁড়ায় একটি অন্যতম কারণ। তাই এই রোগ সম্পর্কে সঠিক জ্ঞান এবং সচেতনতা বাড়াতে হবে। চলুন আজ জেনে নেই রোজকার জীবনের কোন তিনটি অভ্যাসে কমে যেতে পারে এই মরণব্যাধির ঝুঁকি: 

 

ক্যান্সাররোধী খাদ্য গ্রহণ


আঁশযুক্ত খাদ্য গ্রহণে কমে যায় ক্যান্সারের ঝুঁকি। তাই খাদ্যতালিকায় রাখুন সঠিক পরিমাণে আঁশযুক্ত খাদ্য। তাজা ফল ও শাক-সবিজকে খাদ্যতালিকায় প্রাধান্য দিন। বেগুন, মটরশুঁটি, টমেটো, গোলমরিচ, আপেল, ব্রকলি ইত্যাদি খেতে পারেন৷ এসকল খাদ্য স্তন ক্যান্সারের ঝুঁকি কমায়। তবে খাদ্যতালিকা থেকে বাতিল করুন চিনি। চিনি ক্যান্সারের জিনকে সক্রিয় করে তোলে।

 

নিয়ন্ত্রিত ওজন এবং শরীর চর্চা

 

ওজনের দিকে নজর রাখতে হবে। শুধু স্তন ক্যান্সারই নয় অনিয়ন্ত্রিত মেদ নানা অসুখেরই কারণ হয়ে ওঠে। তাই জীবনযাপনে যুক্ত করুন কায়িক পরিশ্রমের অভ্যাস এবং শরীর চর্চা।

 

ধূমপানে সতর্ক হোন

 

প্রত্যক্ষ কিংবা পরোক্ষ যেভাবেই ধূমপানে আক্রান্ত হোন না কেন, ধূমপান স্তন ক্যান্সারের ঝুঁকি বাড়িয়ে দেয় ৪০ শতাংশেরও বেশি। তাই অতিরিক্ত ধূমপানে আসক্তি থাকলে পরিত্যাগের অভ্যাস করুন।