রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বাড়াতে যোগ ব্যায়াম

রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বাড়াতে যোগ ব্যায়াম
রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বাড়াতে যোগ ব্যায়াম
পা পিছন দিকে মুড়ে গোঁড়ালির উপর ভর দিয়ে বসুন। সামনে ঝুঁকে কপাল মাটিতে ঠেকান। হাত দু’টো মাটিতে রাখুন শরীর বরাবর। তালু উপর দিকে থাকবে। উরুর উপর বুকের ভার দিন আলতো ভাবে। এভাবে কিছুক্ষণ থেকে আবার উঠে পড়ুন ধীরে ধীরে। 

আমাদের শরীরের বিভিন্ন অঙ্গ প্রত্যঙ্গ গুলো মাংসপেশি দ্বারা আবৃত থাকে। তাই এই মাংসপেশি গুলোকে মাঝে  মাঝে স্ট্রেচ করা প্রয়োজন। এতে শরীর যেমন আরো আরও নমনীয় হয়,  তেমনি রক্তনালীতে পর্যাপ্ত পরিমাণে অক্সিজেন সরবরাহ হয়। যাতে শরীর সুস্থ থাকবে এবং রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতাও বাড়বে। আর এর জন্য করতে পারেন যোগা এবং প্রাণায়াম। আসুন তবে জেনে নি কোন আসনগুলি করলে এই উপকারিতা পাবেন। 

 


ধনুরাসন 

 

 

পেটের উপর ভর দিয়ে  শরীরের দু’পাশে দুহাত রেখে শুয়ে পড়ুন৷ দু’পায়ের মধ্যে দূরত্ব রেখে  হাঁটু মুড়ে গোড়ালি দু’টো ধরুন। বড় নিঃশ্বাস টেনে শরীর উঁচু করুন, গোড়ালিও উঁচু করুন। সামনাসামনি দেখার চেষ্টা করুন। শরীরের আকার ধনুকের মতো হবে। এ ভাবে কিছুক্ষণ ধরে রেখে নিঃশ্বাস নিন। ধীরে ধীরে শরীর শুরুর মতো করে নিন। লম্বা লম্বা নিঃশ্বাস নেবেন। একদম শেষে রিল্যাক্স করুন। 

 

শিশুআসন 

 

 

পা পিছন দিকে মুড়ে গোঁড়ালির উপর ভর দিয়ে বসুন। সামনে ঝুঁকে কপাল মাটিতে ঠেকান। হাত দু’টো মাটিতে রাখুন শরীর বরাবর। তালু উপর দিকে থাকবে। উরুর উপর বুকের ভার দিন আলতো ভাবে। এভাবে কিছুক্ষণ থেকে আবার উঠে পড়ুন ধীরে ধীরে। 

 

ভুজাঙ্গাসন 

 

 

পেটের উপর ভর দিয়ে শুয়ে পড়ুন। কপাল মাটিতে ঠেকবে। গোঁড়ালি দু’টো কাছাকাছি রেখে পায়ের আঙুল বাইরের দিকে রাখুন। তালু মাটিতে  কাঁধ বরাবর রেখে ধীরে ধীরে হাত তুলুন। কনুই শরীরের কাছাকাছি থাকবে। একটা বড় নিঃশ্বাস নিয়ে নাভি মাটিতে রেখে শরীরের উপর অংশ তুলুন। দুই তালুতে সমান ভার দিয়ে উপরে অংশের শরীরের ভার সামলে নিন। স্বাভাবিক ভাবে নিঃশ্বাস নিতে নিতে শরীর পিছনে দিকে বেঁকিয়ে দিন। যাতে শিরদাঁড়ার এক্সারসাইজ হয়। নিঃশ্বাস ছাড়া কালীন আবার শুয়ে পড়ুন। হাত সোজা হচ্ছে কিনা এবং পা মাটিতেই থাকছে কিনা এগুলি খেয়াল করতে হবে।