বৈশাখের সাজে আলপনা টিপ

আলপনা টিপ।
বাঙালি নারীদের সাজসজ্জার একটি বিশেষ ও বেশ পুরনো উপকরণ হলো টিপ। এক সময় কুমকুমের নকশায় ভরে উঠতো নারীদের কপাল, সনাতনী রমণীদের কপালে থাকতো সিঁদুর। এরপর এলো নরম কাপড়ের টিপ। কপালে ছোট্ট একটা কালো কিংবা লাল টিপই একজন নারীকে ফুটিয়ে তুলতো এক অসম্ভব মায়াবতী করে। বাঙালি বধূর কপালে টিপের জায়গা হয়েছে তাও বেশ আগে থেকেই। তবে একরঙা টিপগুলোর পাশাপাশি বর্তমানে নারীদের পছন্দের তালিকায় প্রাধান্য পাচ্ছে নকশা টিপ বা আলপনা টিপ।

বাঙালি নারীদের সাজসজ্জার একটি বিশেষ ও বেশ পুরনো উপকরণ হলো টিপ। এক সময় কুমকুমের নকশায় ভরে উঠতো নারীদের কপাল, সনাতনী রমণীদের কপালে থাকতো সিঁদুর। এরপর এলো নরম কাপড়ের টিপ। কপালে ছোট্ট একটা কালো কিংবা লাল টিপই একজন নারীকে ফুটিয়ে তুলতো এক অসম্ভব মায়াবতী করে। বাঙালি বধূর কপালে টিপের জায়গা হয়েছে তাও বেশ আগে থেকেই। তবে একরঙা টিপগুলোর পাশাপাশি বর্তমানে নারীদের পছন্দের তালিকায় প্রাধান্য পাচ্ছে নকশা টিপ বা আলপনা টিপ।

বিশেষ দিবস কিংবা উৎসব উপলক্ষে কে না সাজতে পছন্দ করেন? এই বিশেষ দিনগুলোতে প্রায়ই নারীর সাজে শোভা পায় শাড়ি। আর শাড়ি পরলে এর পূর্ণতা দেওয়ার সামর্থ্য রয়েছে একমাত্র টিপের। তবে শুধু শাড়ি নয়। টপ বা জিন্স থেকে শুরু বাঙালির ঐতিহ্য শাড়ি, সব পোশাকের সঙ্গেই মানিয়ে যায় এটি। বিশেষ উৎসবে কিংবা একান্তই নিজের ভালো লাগার কারণে অনেক নারীই এখন কপালে নকশা আঁকা টিপ পরে থাকেন। কেউবা বড় টিপের ওপর ছোট টিপ পরে ডিজাইনে আনেন নতুনত্ব।

দিন কয়েক পরেই আসছে পহেলা বৈশাখ, বাঙালির বর্ষ-বরণ ও উৎসবের দিন। এদিন প্রায় সবার পছন্দের তালিকাতেই থাকে লাল-সাদার নকশায় মোড়া শাড়ি, হাতে কাচের চুড়ি, গলায় মাটির মালা আর কানে দুল। আর কপালে টিপ। কপালে টিপ না পরলে যে বাঙালি সাজটা সম্পূর্ণ হয় না। প্রতিবার পয়লা বৈশাখে এমন সাজেই দেখা যায় বাঙালি নারীদের। বৈশাখের সাজের এই টিপ দিয়েই আনতে পারেন সাজের বৈচিত্র্য।

বৈশাখ মানেই চারদিকে রঙ্গের ছড়াছড়ি। তাই লাল-সাদা কিংবা অন্য যেকোনো পোশাকের সঙ্গেই লোকজ নকশার টিপ বেশ মানাবে। চোখে কাজল আর ঠোঁটে ন্যুড লিপস্টিকের সঙ্গে ভালো লাগবে কপালে ওই লোকজ নকশার টিপ। নকশা আঁকা কিংবা ছোট্ট চার্মের কারুকাজ করা টিপ পেতে সাহায্য নিতে পারেন অনলাইনের। বিভিন্ন অনলাইন শপেই এখন আলপনা করা টিপ পাওয়া যায়। ফেসবুকে বিভিন্ন অনলাইন শপ বা পেজে পেয়ে যাবেন নজরকাড়া বাহারি টিপ। নকশা ও উপকরণের ওপর নির্ভর করে টিপের দাম নির্ধারণ করা হয়। গড়ে টিপগুলোর দাম পড়ে ২০ থেকে ৫০টাকা। এছাড়াও বিভিন্ন প্যাকেজে টিপের সংখ্যার ওপর নির্ভর করে টিপের পাতার দাম গড়ায় ১০০ থেকে ৪৫০ টাকা।

নিজেই তৈরি করুন নকশা টিপ বা আলপনা টিপ:

আপনি যদি আলপনা করতে ভালোবাসেন কিংবা নিজে থেকেই টিপ তৈরি করতে চান তবে খুব সহজেই ঘরে তা তৈরি করতে পারেন। এ কাজের জন্য আপনার লাগবে-

 

  • একরঙা টিপ
  • গ্লু
  • ফেব্রিক কালার
  • তুলি ও ছোট চার্ম

 

এক রঙা টিপের ওপর সরু তুলি দিয়ে ফেব্রিক রঙের নকশা তুলতে পারেন। ইচ্ছে হলে ছোট চার্ম বসিয়ে দিতে পারেন গ্লু দিয়ে। ইচ্ছে হলে কেঁচির সাহায্যে টিপ কেটে মনের মতো আকৃতিও দিতে পারেন।