ঈদে আবারও মুক্তি পাচ্ছে 'বিশ্বসুন্দরী'

ঈদে আবারও মুক্তি পাচ্ছে 'বিশ্বসুন্দরী'
ঈদে আবারও মুক্তি পাচ্ছে 'বিশ্বসুন্দরী'
চয়নিকা চৌধুরী পরিচালিত প্রথম সিনেমা 'বিশ্বসুন্দরী'। সিনেমাটির চিত্রনাট্যে ও কাহিনী লিখেছেন রুম্মান রশীদ খান। মুক্তির পর টানা ১৬ সপ্তাহ প্রেক্ষাগৃহে প্রদর্শন হয়েছিল ‘বিশ্বসুন্দরী’ । দর্শকদের বিশেষ অনুরোধের জন্য এবারের ঈদেও মুক্তি দেওয়া হচ্ছে সিনেমাটি।

গত বছর ১১ ডিসেম্বর সারাদেশের ২৫টি প্রেক্ষাগৃহে মুক্তি পায় সিয়াম-পরীমনি অভিনীত  আলোচিত সিনেমা ‘বিশ্বসুন্দরী’। এবারের ঈদেও নতুন করে মুক্তি পাবে ‘বিশ্বসুন্দরী’। সারদেশের মোট ১৭টি প্রেক্ষাগৃহে মুক্তি পাবে সিনেমাটি। এমনটাই জানান সিনেমাটির প্রযোজনা প্রতিষ্ঠান সান মিউজিক অ্যান্ড মোশন পিকচার্স লিমিটেড।

 

চয়নিকা চৌধুরী পরিচালিত প্রথম সিনেমা 'বিশ্বসুন্দরী'। সিনেমাটির চিত্রনাট্যে ও কাহিনী লিখেছেন রুম্মান রশীদ খান। মুক্তির পর টানা ১৬ সপ্তাহ প্রেক্ষাগৃহে প্রদর্শন হয়েছিল ‘বিশ্বসুন্দরী’ । দর্শকদের বিশেষ অনুরোধের জন্য এবারের ঈদেও মুক্তি দেওয়া হচ্ছে সিনেমাটি।

 

সিনেমাটির পরিবেশক জাজ মাল্টিমিডিয়া। তারা জানায়, হল মালিকরা আগ্রহ নিয়ে ঈদে প্রদর্শনের জন্য ‘বিশ্বসুন্দরী’ সিনেমাটি বেছে নিয়েছেন। তারা মনে করছেন, এ ধরনের গল্পের সিনেমা যে কোন উৎসবে প্রদর্শন হতে পারে। যারা এর আগে বড়পর্দায় ছবিটি দেখেননি বা পুনরায় দেখতে চান, তারা স্বাস্থ্যবিধি মেনে এবারের ঈদে দেখতে পারেন।

 

এই ঈদে ‘বিশ্বসুন্দরী’ সিনেমাটি যেসব প্রেক্ষাগৃহে দেখা যাবে, সেইসব প্রেক্ষাগৃহগুলো হল- আলোছায়া (শরীয়তপুর), আনন্দ (কুলিয়ারচর), মৌচাক (ভাঙ্গুরা), চলন্তিকা (গোপালদী), মেহেরপুর সিনেমা (মেহেরপুর), মোহন (হবিগঞ্জ), মনামী (খোকসা), নিউ রজনীগন্ধা (চালা), পূর্বাশা সিনেমা (শান্তাহার), রূপকথা (শেরপুর), সোহাগ (ঘোড়াশাল), ছন্দা (পটিয়া), ছন্দা (হাসনাবাদ), তিতাস (পটুয়াখালী), তুলি (নাভারণ), ডায়মন্ড (বোয়ালমারী), পড়শী (লাকসাম)।