যৌনপল্লীতে জন্ম নেওয়া ৪০ সন্তানের মা হাজেরা বেগমের বাসায় তাসমিমা হোসেন

যৌনপল্লীতে জন্ম নেওয়া ৪০ সন্তানের মা হাজেরা বেগমের বাসায় তাসমিমা হোসেন
যৌনপল্লীতে জন্ম নেওয়া ৪০ সন্তানের মা হাজেরা বেগমের বাসায় তাসমিমা হোসেন
গত সোমবার করোনা পরিস্থিতি এবং তুমুল বৃষ্টি উপেক্ষা করে অনন্যা ফাউন্ডেশনের কো-চেয়ারম্যান মানিজা হোসেনকে নিয়ে হাজেরা বেগমের বাসায় হাজির হন ইত্তেফাক ও অনন্যা সম্পাদক।

যৌনপল্লীতে জন্ম নেওয়া ৪০ সন্তানের মা হাজেরা বেগম।।  অনন্যা শীর্ষদশ ২০১৯ জয়ী একজন নারীও বটে। তার অনেক দিনের শখ, একবারের জন্য হলেও দৈনিক ইত্তেফাক ও অনন্যা সম্পাদক তাসমিমা হোসেনকে সামনে থেকে দেখার, তাকে একবার ছুঁয়ে দেখার। কিন্তু, তার স্বপ্ন পূরণ করতে তাসমিমা হোসেন যে সরাসরি তার বাড়িতে গিয়ে হাজির হবেন, তা কল্পনাও করেননি। 

গত সোমবার করোনা পরিস্থিতি এবং তুমুল বৃষ্টি উপেক্ষা করে অনন্যা ফাউন্ডেশনের কো-চেয়ারম্যান মানিজা হোসেনকে নিয়ে হাজেরা বেগমের বাসায় হাজির হন ইত্তেফাক ও অনন্যা সম্পাদক।

রাজধানীর আদাবরের একটি ভাড়া বাসায় ৪০ সন্তান নিয়ে মা হাজেরার বসবাস। এদের মধ্যে পাঁচ শিশুর মা বিভিন্ন বাড়িতে কাজ করলেও অন্যদের মায়ের পেশা যৌনকর্ম। তাদের জীবন কাটে রাজধানীর বিভিন্ন রাস্তায় রাস্তায়। একটু নিরাপদ আশ্রয়, একটু যত্ন দেবার আশায়, নিজেদের সন্তানকে হাজেরা বেগমের কাছে তুলে দিয়ে যান এই মায়েরা।

হাজেরা বেগম নিজে একসময় যৌন কর্মী ছিলেন। পরবর্তীতে এই পেশা ছেড়ে যৌনকর্মীদের বাচ্চাদের লেখাপড়া, খাবার ও আশ্রয়ের ব্যবস্থা করতে উদগ্রীব হয়ে পড়েন। এক ধরণের তাড়না অনুভব করতে থাকেন তিনি।

তাই, নিজের জমানো পয়সা দিয়ে গড়ে তোলেন যৌনপল্লীতে জন্ম নেওয়া শিশুদের জন্য আশ্রয় কেন্দ্র। বিভিন্ন ব্যক্তি ও সংগঠনের সহায়তায় গড়ে তুলেন ‘শিশুদের জন্য আমরা’ সংগঠনটি; যার বর্তমান বয়স প্রায় ১০ বছরের কাছাকাছি।

এ প্রসঙ্গে মা হাজেরা বেগম বলেন,  " আমার শুধুমাত্র একটাই চাওয়া। যৌনপল্লীতে জন্ম নেওয়া এই বাচ্চাগুলোর যেন বাধ্য হয়ে তাদের মায়ের পেশায় ঢুকতে না হয়।"

হাজেরা বেগমের এমন মানবিক উদ্যোগের পাশে দাঁড়ানোর সিদ্ধান্ত নিয়েছে অনন্যা ফাউন্ডেশন। আগামী এক বছর এই সংগঠনকে মাসিক ভিত্তিতে অনুদান প্রদান করবে অনন্যা ফাউন্ডেশন।