গিয়েথুর্ন গ্রাম; যেখানে নেই কোন রাস্তা!

গিয়েথুর্ন গ্রাম; যেখানে নেই কোন রাস্তা!
গিয়েথুর্ন গ্রাম; যেখানে নেই কোন রাস্তা!
গ্রামে ঢুকতে হলে বাইরে গাড়ি রেখে যেতে হয়। গ্রামের ভেতরে যেহেতু গাড়ি চলাচল নেই ফলে সেখানে গাড়ির ধোঁয়া বা কোলাহল হওয়ার কোন সুযোগ নেই। 

এ কোন রূপকথার রাজ্য নয়। নয় কোন কল্পনা। একদমই বাস্তব। নেদারল্যান্ডসের গিয়ের্থুন গ্রাম। যেখানে নেই কোন রাস্তা। সবুজ সমারোহে ভরা গ্রামটি খুবই সুন্দর। এই গ্রামকে ‘নেদারল্যান্ডসের ভেনিস’ও বলা হয়।

 

 

গ্রামে চলাচলের একমাত্র মাধ্যম হল জলপথ। গ্রামের একপ্রান্ত থেকে অপর প্রান্ত যেতে নৌকা ব্যবহৃত হয়। নৌকাগুলো নীরব ইঞ্জিনচালিত হওয়ায় গ্রামে সবসময় নীরব পরিবেশ বজায় থাকে।

 

 

গ্রামে ঢুকতে হলে বাইরে গাড়ি রেখে যেতে হয়। গ্রামের ভেতরে যেহেতু গাড়ি চলাচল নেই ফলে সেখানে গাড়ির ধোঁয়া বা কোলাহল হওয়ার কোন সুযোগ নেই। 

 

 

তবে জানা যায়, ১২৩০ সালে এই কল্পনার মত  গ্রামটির প্রতিষ্ঠা হয়। তখন গ্রামের বিভিন্ন জায়গায় মাটির নিচে ছোট-বড় ফাঁপা অংশ ছিল। গ্রামে  মানুষ বসবাস শুরু করার পর  সেগুলো খুঁড়ে বার করতে শুরু করে। দীর্ঘদিন সেগুলো খুঁড়ে বের করার ফলস্বরূপ সেখানে হৃদ তৈরি হয়। এগুলোই একটার সঙ্গে একটা যোগ হয়ে গ্রামে পানিপথ তৈরি হয়েছে। 

 

 

পরবর্তীতে গ্রামটিও ছোট ছোট দ্বীপে পরিণত হয়। যা ১৫০ টি সেতু দিয়ে সংযুক্ত হয়েছে। আমস্টারডাম থেকে এ গ্রামটির দূরত্ব ৭৫ কিলোমিটার। তবে শহর থেকে খুব সহজেই যাওয়া যায় সড়ক বিহীন এই গ্রামে।