শুক্রবার,২৪ নভেম্বর ২০১৭
হোম / জীবনযাপন / সম্পর্ক ধরে রাখুন ভালোবাসায়
০২/১০/২০১৭

সম্পর্ক ধরে রাখুন ভালোবাসায়

-

নতুন একটি স¤পর্কে জড়ানোর পর কিছুদিন সবকিছুই খুব ভালো লাগে। কিন্তু কিছুদিন পার হবার পর সেই সম্পর্কটি যেন ফিকে হয়ে উঠতে শুরু করে। নিজেদের মধ্যে ছোটোখাটো বিষয় নিয়ে ঝগড়াঝাঁটি-মনোমালিন্যের পাশাপাশি পুরানো রোমান্টিক অভ্যাসগুলোও হারিয়ে যেতে থাকে। ফলে দু’জনের মধ্যে সৃষ্টি হয় অনাকাক্সিক্ষত দূরত্ব।

সম্পর্ক সুন্দর রাখার জন্য দরকার কিছু ভালো অভ্যাস। আর সেই অভ্যাসগুলো রপ্ত করতে হবে দু’জনকেই। দু’জনে মিলে সম্পর্ককে সুন্দর রাখার চেষ্টা করলে কখনোই তা পুরানো হবে না।

প্রথমেই মনে মনে একটা ছবি আঁকুন। ভাবুন, সঙ্গীর কাছ থেকে ঠিক কী আশা করেন। কতটা সময় তার সঙ্গে কাটাতে চান বা অবসর সময়ে কী করতে ইচ্ছা করে৷ বাস্তবে এই মুহূর্তে হয়তো সব ইচ্ছাপূরণ সম্ভব নয়৷ কিন্তু আপনি যে এসব বিষয়গুলো নিয়ে গভীরভাবে চিন্তা করছেন, সেই ভাবনা বা উপলব্ধিই আপনার মধ্যে ইতিবাচক পরিবর্তন আনতে পারে।

একটা সম্পর্ক টিকিয়ে রাখতে গেলে একে অপরের থেকে আমরা যেটা সবচেয়ে বেশি আশা করি, তা হলো- সময়। এক্ষেত্রে কতটা সময় একে অপরের সঙ্গে কাটানো হচ্ছে, তা খুব জরুরি। একে অপরের কথা মন দিয়ে শোনাও সঙ্গীর সঙ্গে সুস¤পর্ক বজায় রাখার জন্য আবশ্যক। আপনি হয়তো ভালোবাসার মানুষটির কথা শুনলেন না বা শুনতে চাইলেন না, এতে তিনি ভাবতে পারেন আপনি তাকে এড়িয়ে চলছেন। এ ভাবনাটি স¤পর্কের জন্য ভালো নয়। সঙ্গীর কথা মনোযোগ দিয়ে শুনুন, এতে তিনি নিজেকে আপনার কাছে গুরুত্বপূর্ণ মনে করবেন। সেই সঙ্গে তিনিও আপনাকে গুরুত্ব দেবেন।

একে অপরের ওপর অযথা খবরদারি করবেন না। আপনার সঙ্গী কী করছে, কী খাচ্ছে কিংবা কোথায় যাচ্ছে তা জিজ্ঞেস করা অবশ্যই তার প্রতি আপনার ভালবাসা প্রকাশ করে। কিন্তু এই কাজগুলো যখন আপনি অতিরিক্ত পরিমাণে করতে থাকবেন তখন তা খবরদারির পর্যায়ে পড়ে, যা মানুষের ব্যক্তি-স্বাধীনতা ক্ষুণ্ণ করে। খেয়াল রাখুন।

অকারণে অন্য কারো সঙ্গে প্রিয় মানুষের তুলনা করবেন না। ভালো কাজগুলোর জন্য একে অপরের প্রশংসা করুন, উৎসাহ দিন। অন্য কারো সঙ্গে তুলনা করে তাকে মানসিকভাবে আঘাত করবেন না।

আপনার সঙ্গী আপনার জন্য অনেক কিছুই করেন। আপনি কি তার প্রতি কৃতজ্ঞ? নাকি এগুলোকে তার দায়িত্ব হিসেবে ধরে নিয়ে একটিবারের জন্য ধন্যবাদও দিচ্ছেন না? প্রশংসা না পেলে ভালোবাসার স¤পর্কে মন থেকে কিছু করার আগ্রহ থাকে না। তাই আপনার সঙ্গীর সৌন্দর্য, পরিবারের প্রতি আত্মনিবেদন কিংবা আপনার প্রতি তার ভালোবাসা ও যত্নের প্রশংসা করুন। আপনার জীবনটাকে আরো সুন্দর করে তোলার জন্য তাকে ধন্যবাদ দিন।

এক সঙ্গে নতুন কিছু শেখার আনন্দই আলাদা। দু’জনের সম্পর্কটা পুরানো হয়ে গেলে চেষ্টা করুন এক সঙ্গে নতুন কিছু শেখার। ভিনদেশি ভাষা শিখতে ভর্তি হয়ে যেতে পারেন কিংবা বেহালা অথবা ফটোগ্রাফির ক্লাস করতে পারেন একসঙ্গে। অথবা দু’জনে মিলে ঘরের মধ্যেই নিত্য নতুন রান্না শিখতে পারেন।

সম্পর্কে প্রেম থাকলে সেখানে ঝগড়া থাকবেই। একটু-আধটু ঝগড়া সম্পর্ক আরও গাঢ় করে তোলে। কিন্তু সেই ঝগড়া অনবরত করতে থাকা বা রাগ পুষে রেখে কথা না-বলা, দেখা না-করা ইত্যাদির দিকে এগুলে সম্পর্কে ভাঙন ধরতে বাধ্য।

সঙ্গীর সমস্ত সময় শুধু আপনার জন্যই, এই ভাবনা একেবারেই ভুল। সম্পর্কের বাইরে আপনার যেমন একটা বন্ধু-জগৎ আছে, তেমনি তারও বন্ধু রয়েছে। তাই একে অপরকে স্পেস দিন। নজেদের বন্ধুর সঙ্গে সময় কাটান। সবসময়ই একে অপরের সঙ্গে সময় কাটালে এক সময় তা একঘেয়ে হয়ে উঠতে পারে।

- ফাবিহা ফারজিন