বৃহস্পতিবার,২৩ নভেম্বর ২০১৭
হোম / রূপসৌন্দর্য / চুলের প্রতিদিনের যত্নে
০১/২৬/২০১৭

চুলের প্রতিদিনের যত্নে

-

গরম আর বর্ষা বিদায় নিয়ে শীত প্রায় চলে এসেছে। এই সময়টাতে চোরা ঠান্ডার সাথে একধরনের মিশ্র আবহাওয়া বিরাজ করে। সব মিলিয়ে এই মৌসুমটি চুল ও ত্বকের জন্য বেশ ক্ষতিকর।

কারণ প্রচণ্ড রোদের মধ্যে হঠাৎ ঠান্ডা। আবার হয়ত খানিকটা বৃষ্টি। আর এই বৃষ্টির পানি সঠিকভাবে ধুয়ে না ফেললে মাথার ত্বকে ব্যাক্টেরিয়ার সংক্রমণ হতে পারে। তাছাড়া ঘাম ও স্যাঁতসেঁতে আবহাওয়ার কারণেও এই সময় মাথায় খুশকিসহ বিভিন্ন সমস্যার প্রকোপ বৃদ্ধি পায়।

তাই মাথার ত্বক ও চুল ভালোভাবে পরিষ্কার রাখা এই সময়ের জন্য জরুরি। আজকের লেখায় এই মৌসুমে চুল পরিষ্কারে করণীয় কিছু টিপস উল্লেখ করা হলো।

- সপ্তাহে তিনদিন শ্যাম্পু ব্যবহার
এই মৌসুমে বাতাসে আর্দ্রতার পরিমাণ বেশি থাকে। আর এতে করে মাথার ত্বক ঘামে এবং এর ফলে ব্যাক্টেরিয়ার সৃষ্টি হয়। যা চুল ও মাথার ত্বকের জন্য অত্যন্ত ক্ষতিকর। এক্ষেত্রে অনেকেই প্রতিদিন চুলে শ্যাম্পু ব্যবহার করে থাকেন। কিন্তু প্রতিদিন শ্যাম্পু করার ফলে মাথার ত্বকের প্রাকৃতিক তেলও ধুয়ে যায়। এই তেল চুলের জন্য অত্যন্ত উপকারী। তাই সপ্তাহে চুল পরিষ্কার করার জন্য তিন দিন শ্যাম্পু করাই যথেষ্ট।

- মাথার ত্বকের বিশেষ যত্ন
চুলে শ্যাম্পু করার সময় অনেকেই মাথার ত্বক একইভাবে পরিষ্কার করার বিষয়টি ভুলে যান। চুলের সমস্যার শুরু হয় মাথার ত্বক থেকেই। তাই মাথার ত্বক পরিষ্কার রাখা খুবই জরুরি। সপ্তাহে অন্তত একদিন চুলে শ্যাম্পু করার সময় মাথার ত্বক ভালোভাবে ম্যাসাজ করে ধুতে হবে।

- কন্ডিশনার ব্যবহার
এই মৌসুমে আর্দ্রতা বেশি থাকলেও ত্বক ও চুল শুষ্ক হয়ে যায়। তাই চুলে শ্যাম্পু ব্যবহারের পর অবশ্যই কন্ডিশনার ব্যবহার করতে হবে। কন্ডিশনার বাহ্যিক দূষণ থেকেও চুলকে বাঁচাতে সাহায্য করে। তবে লক্ষ্য রাখতে হবে, কন্ডিশনার যেন কোনোভাবেই মাথার ত্বকে না লাগে।

- চুল ভালোভাবে মুছে ফেলা
ভেজা চুল তোয়ালে দিয়ে পেঁচিয়ে রাখার অভ্যাস প্রায় সব মেয়েরই রয়েছে। কিন্তু এই মৌসুমে ব্যাক্টেরিয়া ও ফাঙ্গাস সংক্রমণ হয় দ্রুত। আর ভেজা চুলে হয় আরও বেশি। তাই ভেজা চুল তোয়ালে দিয়ে পেঁচিয়ে না রেখে ভালোভাবে মুছে বাতাসে শুকিয়ে নিতে হবে।

- ভেজা চুল বাঁধা উচিত নয়
ভেজা চুল তোয়ালে দিয়ে পেঁচিয়ে রাখলে যে সমস্যা হতে পারে, একইভাবে ভেজা চুল বেঁধে রাখাও উচিত নয়। এতে চুলপড়া, আগাফাটা, খুশকি ও চুলে গন্ধ হওয়ার মতো ইত্যাদি সমস্যা হতে পারে।

এই মৌসুমে চুল ও ত্বকের ক্ষতি হওয়ার সম্ভাবনা বেশি থাকে। তাই এ সময় ত্বকের বাড়তি যত্ন নেওয়া জরুরি। ঘরোয়া উপায়ে ত্বক ও চুলের যত্ন নেওয়াও গুরুত্বপূর্ণ।

এ-ধরনের কিছু সাধারণ বিষয় খেয়াল রাখলেই আপনার চুল থাকবে সারা বছর পরিষ্কার ও ঝলমলে।

- অদ্বিতী