শুক্রবার,২৪ নভেম্বর ২০১৭
হোম / খাবার-দাবার / বিয়ের পরে দাওয়াতের খাবার
০১/১৯/২০১৭

বিয়ের পরে দাওয়াতের খাবার

-

বিয়ের মূল অনুষ্ঠান শেষ হবার পর শুরু হয় নতুন দম্পতিকে ঘিরে দাওয়াতের পালা। দাওয়াতে পরিবেশনের কিছু রেসিপি দিয়েছেন শাহনাজ ইসলাম

বাটার গার্লিক শ্রিম্প ইন পটেটো বাস্কেট

উপকরণ
চিংড়ি- ৪টি (বাটারফ্লাই কাট)
রসুন কুচি- ১ চা-চামচ
ধনেপাতা কুচি- ২ টেবিল চামচ
বাটার- ১ টেবিল চামচ
গোলমরিচ গুঁড়া- ১ চা-চামচ
পেঁয়াজ কলি পরিমাণমতো
আলু সিদ্ধ করে ভর্তা করা- ১ কাপ
ক্যাপসিকাম কুচি- ২ টেবিল চামচ
সয়াসস- ১ চা-চামচ
লবণ পরিমাণমতো

প্রণালি

চিংড়ি, সয়াসস, লবণ অল্প গোলমরিচ দিয়ে মেখে ১০ মিনিট রেখে দিন।

চুলায় প্যানে বাটার গরম করে রসুনকুচি দিয়ে একটু নেড়ে দিন। চিংড়ি দিয়ে ২ মিনিট নেটে ক্যাপসিকাম কুচি, পেঁয়াজ কলি, ধনেপাতা কুচি ও অল্প গোলমরিচ গুঁড়া ছড়িয়ে নামিয়ে নিন।

এবার সিদ্ধ আলুর সঙ্গে ধনেপাতা কুচি, লবণ, অল্প বাটার ও গোলমরিচ গুঁড়া দিয়ে মেখে হাত দিয়ে বাস্কেট আকার বানিয়ে নিন।

উপরে চিংড়ি সাজিয়ে পেঁয়াজ কলি দিয়ে হ্যান্ডেল বানিয়ে পরিবেশন করুন।

স্পাইসি বেলপেপার এগ রাইস

উপকরণ
পোলাও চালের রান্না করা ঝরঝরে ভাত- ২৫০ গ্রাম
৩ রঙের ক্যাপসিকাম কুচি- ১ কাপ
বাটার- ৩ টেবিল চামচ
রসুনকুচি- ১ চা-চামচ
ডিম ভেজে লম্বা কুচি করা- ২টি
লবণ পরিমাণমতো
গোলমরিচ গুঁড়া- আধা চা-চামচ
পাপরিকা- ১/৪ চা-চামচ

প্রণালি

প্যানে বাটার গরম করে রসুন দিয়ে দিন। ভালো করে ভেজে নিন।

একে একে সব উপকরণ দিয়ে দিন।

৫ মিনিট নেড়েচেড়ে নামিয়ে নিন।

গরম গরম পরিবেশন করুন।

বিফ বাদাম বাহারি

উপকরণ
বিফ ছোট টুকরো করা- ১/২ কেজি
কাজু ও কাঠবাদাম ভাজা- ১/২ কাপ
টক দই- ১/৪ কাপ
পেঁয়াজবাটা- ১/৪ কাপ
আদা-রসুনবাটা- ২ টেবিল চামচ
মরিচ গুঁড়া- ১ টেবিল চামচ
হলুদগুঁড়া- ১ চা-চামচ
ধনেগুঁড়া- ১ টেবিল চামচ
কাঠবাদাম বাটা- ১ টেবিল চামচ
জিরাবাটা- ১/২ চা-চামচ
পেঁয়াজ কিউব করা ২টা
ঘি- ৩ টেবিল চামচ
তেল- ৩ টেবিল চামচ
কাঁচামরিচ ফালি- ৪টা

প্রণালি

প্রথমে বাদাম, বাদামবাটা, পেঁয়াজকিউব, ঘি ও কাঁচামরিচ বাদ দিয়ে সব উপকরণ মাংসের সঙ্গে মিশিয়ে নিন।

পরিমাণমতো পানি দিয়ে সিদ্ধ করে পানি শুকিয়ে নিন।

এবার আর একটি প্যানে ঘি গরম করে পেঁয়াজকুচি, বাদামবাটা ও মাংস দিয়ে নেড়েচেড়ে নিন।

ভাজা ভাজা হলে ভাজা বাদাম দিয়ে ২ মিনিট নেড়ে নিন।

নামিয়ে গরম গরম পরিবেশন করুন।

ড্রাগন চিকেন

উপকরণ
চিকেন ব্রেস্ট- ২টা (জুলিয়ান কাট)
ক্যাপসিকাম লাল ও সবুজ (ত্রিভুজ করে কাটা)- ১ কাপ
তেল ও লবণ পরিমাণমতো
গোলমরিচ গুঁড়া- পরিমাণমতো
আদা-রসুন কুচি- ১ টেবিল চামচ
কাঁচামরিচ ফালি- ৪টি
ময়দা ও কর্নফ্লোর- ১ টেবিল চামচ করে
সয়াসস- ১ টেবিল চামচ
ভিনেগার- ১ চা চামচ
পেঁয়াজ কিউব করা- ১/২ কাপ
টমেটো সস- ১/৪ কাপ
চিকেন স্টক- ১/২ কাপ
লালমরিচ গুঁড়া- ১ চা চামচ
পেঁয়াজপাতা কুচি- ১ টেবিল চামচ
কাজুবাদাম ভাজা- ৪/৫ টি

প্রণালি

মুরগির মাংসের সঙ্গে লবণ, গোলমরিচগুঁড়া ও অল্প সয়াসস মিশিয়ে ১০ মিনিট রাখুন।

এবার ময়দা ও কর্নফ্লোর মিশিয়ে ডুবোতেলে বাদামি করে ভেজে তুলুন।

এবার চুলায় আরেকটি প্যানে তেল গরম করে আদা-রসুন কুচি ও পেঁয়াজ কিউব দিয়ে ভেজে নিন।

মরিচগুঁড়া ও অল্প পানি দিয়ে কসিয়ে চিকেন স্টক, সব সস, ভিনেগার দিয়ে নেড়ে ক্যাপসিকামকুচি ও ভাজা মুরগির টুকরো দিয়ে দিন।

নেড়ে গোলমরিচ গুঁড়া, কাঁচামরিচ ও পেঁয়াজকলি দিয়ে নামিয়ে পরিবেশন করুন।

কোকোনাট মিল্কে রঙিন জর্দা

উপকরণ
পোলাও চালের রান্না করা ভাত- ২৫০ গ্রাম
কোকোনাট মিল্ক- ১ কাপ
চিনি- ১ কাপ
ঘি- ৩ টেবিল চামচ
লাল, নীল ও সবুজ রং অল্প করে
সাজানোর জন্য বাদাম

প্রণালি

তিনটি আলাদা বাটিতে কোকোনাট মিল্ক তিন ভাগ করে ৩ ভাগে ৩ রং মেশাতে হবে।

এবার চুলায় ৩টি আলাদা আলাদা প্যান দিয়ে ১ টেবিল চামচ করে ঘি গরম করে ভাত ভেজে ৩ প্যানে ৩ রঙের কোকোনাট মিল্ক দিয়ে নাড়ুন।

৭/৮ মিনিট করে দমে বসিয়ে চুলা থেকে নামিয়ে নিন। এবার ঠান্ডা করে বাদাম দিয়ে সুন্দর করে সাজিয়ে পরিবেশন করুন যে কোনো উৎসবে।