রবিবার,২৪ সেপ্টেম্বর ২০১৭
হোম / সম্পাদকীয় / নতুন বছর ২০১৭ হোক নারীনিগ্রহের অভিশাপ ও গ্লানিমুক্ত
০১/০১/২০১৭

নতুন বছর ২০১৭ হোক নারীনিগ্রহের অভিশাপ ও গ্লানিমুক্ত

-

পৌষের মাঝামাঝি সময়েও তেমন শীত পড়ছে না। বিশেষ করে রাজধানী ঢাকায়। সাধারণত বছরের এই সময়টাতে ভালো শীত থাকে। কিন্তু এবার তেমনটা লক্ষ্য করা যাচ্ছে না। বিশ্ব উষ্ণায়নের নেতিবাচক প্রভাবের কারণেই বোধকরি এমনটা ঘটছে। বিষয়টি উদ্বেগের, আশঙ্কারও। পরিবেশ রক্ষায় আরো সচেতন, আরো উদ্যোগী হতে হবে আমাদের প্রত্যেককে। তাহলে হয়তো বড় ধরনের কোনো বিপর্যয় এড়ানো সম্ভবপর হবে।

শীত সব সময়েই উৎসবের জন্যে উপযুক্ত এবং অনুকূল ঋতু। রকমারি আচার-অনুষ্ঠান, মেলার আয়োজন,নান্দনিক স্পটে বেড়ানো, দলবেঁধে পিকনিক তো লেগেই থাকে দেশজুড়ে। বিয়েশাদির ধুম পড়ে যায় এই মওসুমে। সময়ের পরিক্রমায় বিয়ের উদ্যোগ আয়োজনে আনুষ্ঠানিকতায় যোগ হয়েছে নতুন নতুন ধারা বা ট্রেন্ড। যুগের সঙ্গে তাল মিলিয়ে চলতে হলে বিশদে জানা চাই সেসব। অনন্যার এই সংখ্যায় বর্ষশেষের সালতামামির সঙ্গে থাকছে বিয়েশাদিসংক্রান্ত নানারকম লেখার সম্ভার।

কালের গর্ভে হারিয়ে গেল আরো একটি বছর। নতুন খ্রিস্টিয় বছর এসে গেল। স্বাগত ২০১৭ খ্রিস্টাব্দ। পুরনো বছরের হতাশা, অপ্রাপ্তি, মালিন্য ঝেড়ে ফেলে আমাদেরকে তাকাতে হবে সামনের দিকে। নতুন উদ্যমে, আরো বেশি কর্মস্পৃহা, একাগ্রতায় অর্জন করতে হবে সাফল্য। সেই প্রত্যয়ে যেন আমরা দৃপ্ত হই। স্বপ্ন ও আকাক্সক্ষা পূরণে ব্রতী ও কাজে নিবেদিত হতে পারি। সেটাই হোক নববর্ষের অঙ্গীকার ও প্রত্যাশা। এই শুভক্ষণে আমাদের সকল পাঠক, ক্রেতা, লেখক, বিজ্ঞাপনদাতা, শুভানুধ্যায়ী সকলের জন্যে রইল আন্তরিক প্রীতি ও শুভেচ্ছা। নতুন বছর আমাদের সবার জীবনে পুষ্পিত, অর্থবহ, সফল,আনন্দময় হয়ে উঠুক। বন্ধ হোক হানাহানি, অবিশ্বাস, ঈর্ষা, হিংসা ও বিদ্বেষের চর্চা ও বিস্তার। নারী নিগ্রহের অভিশাপ ও গ্লানি থেকে দেশ, সমাজ মুক্তি পাক, নারীরা আপন শক্তিতে, উদ্যমে, দৃঢ়তায় স্বপ্ন বাস্তবায়নে আরো এগিয়ে যাক। আমাদের একান্ত কামনা ও প্রার্থনা সেটাই।

তাসমিমা হোসেন