রবিবার,২০ অগাস্ট ২০১৭
হোম / অন্দর-বাগান / অতিথি ঘর সাজাতে
১১/১৪/২০১৬

অতিথি ঘর সাজাতে

-

‘অতিথি ঈশ্বরের রূপ’- এই প্রাচীন আপ্ত বাক্যটিই প্রমাণ করে বাঙালি জাতির অতিথিপরায়ণতা। বাড়ির কত্রি হিসেবে অতিথিদের জন্য একটি ঘর সুন্দর ও স্বাগতপূর্ণ করে তোলা আপনার দায়িত্ব এবং এক্ষেত্রে আপনাকে সহায়তা করবে সহজ কিছু টিপসঃ

* একটি গেস্ট রুমের সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ আসবাব হলো বিছানা, তাই চেষ্টা রাখতে হবে যেনো একে কেন্দ্র করেই ঘরটি সাজানো হয়। গেস্টরা সাধারণত যাত্রা করে ক্লান্ত হয়ে আসে, তাই সবচেয়ে বেশি চেষ্টা থাকা উচিত তার বিশ্রামের ব্যবস্থা রাখার। একটি আরামদায়ক বিছানার জন্য লিনেন খুবই প্রয়োজনীয়। পাশাপাশি চেষ্টা করুন নরম ও বিলাসবহুল চাদর রাখতে অতিথির বিছানায়, যাতে সে আপনার বাড়ির সাদর অভ্যর্থনা অনুভব করে।

* বিছানার পাশে একটি সাইড টেবিলে মাঝারি সাইজের পাত্রে কয়েকটি চকলেট বা একটি ফুলদানিতে সতেজ এক গোছা ফুল সাজিয়ে রাখতে পারেন। এসব ছোটোখাটো ব্যাপার আপনার অতিথির মুখে হাসি ফুটিয়ে তুলবে। ফুল ঘরের উজ্জ্বলতা বাড়িয়ে তুলবে এবং ঘরটি সুন্দরও দেখাবে।

* অবশ্যই রাতে ঘুমানোর আগে খেয়াল রাখতে হবে অতিথির কিছু লাগবে কিনা এবং বিছানার পাশের টেবিলে গ্লাস ও পানি রেখে আসতে হবে, এতে অতিথি আপনার বাসায় নতুন পরিবেশে সহজেই মানিয়ে নেবে।

* অতিথিটি কে, তা মাথায় রেখে আপনি ঘরে রেখে দিতে পারেন কিছু বই বা ম্যাগাজিন। কিছু মানুষের অভ্যাস বই পড়তে পড়তে ঘুমিয়ে পরা, দুই একটি বই ঘরে থাকলে আপনার দূরদর্শিতায় তারা খুশি হবে। জায়গা থাকলে হালকা ছোটো একটি বুকশেলফ বানিয়ে নিতে পারেন গেস্ট রুমের জন্য, বুকশেলফটি কিছু বই, পত্রিকা, ম্যাগাজিন দিয়ে গুছিয়ে রাখতে পারেন।

* একটি পরিষ্কার তোয়ালে রুমের সামনের দিকে রেখে দিন, যাতে অতিথি প্রয়োজনে তা হাতের সামনেই পায়।

* অনেকে গেস্ট রুমকে এক্সট্রা রুম ভেবে তাতে নিজেদের অপ্রয়োজনীয় জিনিসপত্র দিয়ে বোঝাই করে রাখে, এটি থেকে বিরত থাকুন। আপনার অতিথিকে পুরো ঘরটিই ছেড়ে দিন, যাতে সে সুবিধামত থাকতে পারে, এতে সে আপনার বাসাকে আপন করে নিতে পারবে সহজেই।

* কখনও কখনও মানুষ ভ্রমণের সময় কিছু অপরিহার্য জিনিস প্যাক করতে ভুলে যায়। আপনি এরকম কিছু ভ্রমণ-সংক্রান্ত দ্রব্যাদি দিয়ে একটি ড্রয়ার গুছিয়ে রাখতে পারেন, এতে অতিথির হৃদয়ে আপনি দীর্ঘস্থায়ী ছাপ ফেলতে সক্ষম হবেন।

এছাড়াঃ যেহেতু গেস্টরুম সাজাতে মানুষ অতিরিক্ত খরচ করতে চায় না, হাতে তৈরি জিনিস দিয়ে আতিথেয়তা দেখাতে পারেন ঘরে। যেমন অতিথি আসার আগেই ঘরে এয়ার ফ্রেশনার দিয়ে নিন।

ঘরের পর্দাগুলো সুন্দর কোনো বো অথবা রিবন দিয়ে বেঁধে দিতে পারেন। ঘরটা আপনার নিজের কাছেই সুন্দর লাগবে।

গেস্ট রুমের দরজার সাথে উইন্ড চাইমটা ঝুলিয়ে দিন, অতিথির মন ফুরফুরে থাকবে এতে।

কিছু ক্যান্ডেল দিয়েও সাজাতে পারেন ঘরের কোণাটি।

যেহেতু অতিথির ঘরে খুব বেশি ফার্নিচার রাখার দরকার পড়ে না, ঘরটি খালিই থেকে যায়। কর্নার খালি পড়ে থাকলে শীতের সময়ে যে ম্যাট্রেস কিনেছিলেন সেটাই আবার বের করুন। মেঝেতে রাখুন, এরপর এর উপর মানানসই একটা বিছানার চাদর বিছিয়ে দিন। ছোট ছোট কিছু কুশন রাখুন ম্যাট্রেসের ওপরে। পাশে একটা সুন্দর ল্যাম্পশেড রাখতে পারেন। দেখবেন নিমেষেই ঘরটার চেহারা বদলে যাবে।

অতিথি যদি বিকেলে আসে, তাহলে গেস্ট রুমের পাশাপাশি বারান্দা বা ব্যালকনির দিকেও নজর দিন। সেখানে ছোট্ট একটা টেবিল রেখে বসার আয়োজন করতে পারেন। এমন ছোটখাটো পরিবর্তনে সহজেই সুন্দর হয়ে উঠবে আপনার অতিথির ঘর। হুট করে অতিথি আসলেও তখন আপনাকে বিব্রত হতে হবে না মোটেও।

তবে সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ ব্যাপারঃ সবসময় অতিথিকে একটি মিষ্টি উষ্ণ হাসির সাথে স্বাগত জানান, এতে তারা আপনার সাথে থাকা সময়টুকু মনে রাখবে অনেকদিন!

-নুসরাত ইসলাম