মঙ্গলবার,২২ অগাস্ট ২০১৭
হোম / খাবার-দাবার / কোরবানি ঈদ স্পেশাল রেসিপিঃ ফ্র্যাঙ্ক গোমেজ
০৯/০১/২০১৬

কোরবানি ঈদ স্পেশাল রেসিপিঃ ফ্র্যাঙ্ক গোমেজ

-

ঈদের রান্নায় সবাই চায় নতুন এবং স্পেশাল কিছু বানাতে। পরিবার ও মেহমানের পাতে বিশেষ আইটেম তুলে দেয়ার আনন্দই আলাদা, আর তা যদি হয় প্রফেশনাল শেফ-এর রেসিপি, তবে তো কথাই নেই। ‘হোটেল রূপসী বাংলা’র ডেমি শেফ ফ্র্যাঙ্ক গোমেজ তাই পাঠকদের জন্য দিয়েছেন তার কিছু সিগনেচার ডিশের রেসিপি।

টক ড্রিংকস

উপকরণ
পানি- দেড় লিটার
তেঁতুলপাতা- ১ কাপ
তেঁতুল গুলানো পানি- ১/৪ কাপ
লবণ স্বাদমতো
চিনি গুঁড়া- ৫০ গ্রাম
জিরা আস্ত- ১ চা চামচ
বীট লবণ- ১ চা চামচ
শুকনা মরিচ- ২টি, আস্ত
কালো জিরা- ১/৪ চা চামচ

প্রণালি
বীট লবণ বাদে সব উপকরণ একসঙ্গে ফুটাতে হবে। যখন পানি দেড় লিটার থেকে ১ লিটার আসবে, তখন নামিয়ে ছেঁকে নিতে হবে। তারপর বীট লবণ দিতে হবে। ফ্রিজে রেখে ঠান্ডা করে নিন। সাজিয়ে পরিবেশন করুন। এই পানীয় শরীরের জন্য খুবই উপকারী।

বিফ অ্যান্ড চীজ সালাদ

উপকরণ
আন্ডার কাট বিফ- ২০০ গ্রাম
চীজ- ২০০ গ্রাম
হলুদগুঁড়ো- ১/৪ চা চামচ
মরিচগুঁড়ো- ১/৪ চা চামচ
লবণ- ১ চা চামচ, তেল- ১ টেবিল চামচ
টক দই- ১ টেবিল চামচ, চিলি সস- ১/২ চা চামচ
শসা- ১টি, মাঝারি (খোসা ও বিচি ছাড়িয়ে নেয়া)
টমেটো- ১টি বড়, (বিচি ছাড়িয়ে নেয়া)
সবুজ ক্যাপসিকাম- অর্ধেকটা
লাল ক্যাপসিকাম- ১/৪ অংশ
হলুদ ক্যাপসিকাম- ১/৪ অংশ
অলিভ অয়েল/সরিষার তেল- ১ টেবিল চামচ
কালো গোলমরিচ (আধাভাঙা) সামান্য
লেবুর রস- ২ চা চামচ, কাঁচামরিচকুচি- ১-২টি
চিনি সামান্য, লেটুস পাতা

প্রণালি
প্রথমে গরুর মাংস, হলুদ, মরিচ, লবণ, টক দই ও তেল দিয়ে ২-৩ ঘণ্টা ম্যারিনেট করে রাখতে হবে। তারপর দুধ দিয়ে পনির (চীজ) তৈরি করতে হবে। ম্যারিনেট করা মাংস অল্প তেল দিয়ে গ্রিল করতে হবে কমপক্ষে ১০ মিনিট, তারপর ঠান্ডা করে একটু মোটা করে জুলিয়ান কাট-এ কাটতে হবে। এরপর চীজ ছোট ছোট আঙুলের সাইজে কাটতে হবে। এবার সব সবজি একটু মোটা করে কেটে নিন। সব উপকরণ একসঙ্গে মিশিয়ে স্বাদ চেখে গার্নিশ করে পরিবেশন করুন।

বিফ রারা

উপকরণ
হাড়সহ গরুর মাংস- ৮০০ গ্রাম
আদা-রসুন বাটা- ২ টেবিল চামচ
তেল- ১০০ গ্রাম
পেঁয়াজকুচি- ৪টি
লবণ স্বাদমতো
হলুদগুঁড়ো- আধা টেবিল চামচ
সরিষা- ১ টেবিল চামচ
কাশ্মীরি মরিচগুঁড়ো- ২ টেবিল চামচ
তেজপাতা- ২টি
আস্ত গরম মসলা- ৫০ গ্রাম
টমেটো- ২টি, কুচি
ধনেগুঁড়ো- ১ টেবিল চামচ
জিরাগুঁড়ো- ১ টেবিল চামচ
কাঁচামরিচ- ৫/৬ টি
গরম মসলাগুঁড়ো- ১ চা চামচ
ভাজা জিরাগুঁড়ো- আধা চা চামচ
ইয়েলো সস- ২ কাপ
গার্নিশ-এর জন্য
ভাজা পেঁয়াজ ও ভাজা শুকনা মরিচ।

প্রণালি
প্রথমে মাংস ধুয়ে সব উপকরণ দিয়ে একসঙ্গে রান্না করতে হবে। তবে গরম মসলাগুঁড়ো, ভাজা জিরা গুঁড়ো ও ইয়েলো সস বাকি থাকবে। যখন মাংস রান্না হয়ে যাবে, তখন এই বাকি তিন উপকরণ দিয়ে দিন। নামিয়ে গার্নিশ করে পরিবেশন করুন।

বিফ জয়পুরি

উপকরণ
গরুর মাংস- ৮০০ গ্রাম (হাড় ছাড়া)
পেঁয়াজকুচি- ৪টি
আদা রসুনবাটা- ২ টেবিল চামচ
লবণ পরিমাণমতো
সয়াবিন তেল- ১০০ গ্রাম
টক দই- ১ টেবিল চামচ
হলুদগুঁড়ো- ১ টেবিল চামচ
মরিচগুঁড়ো- ১/২ টেবিল চামচ
ধনেগুঁড়ো- ১ টেবিল চামচ
জিরাগুঁড়ো- ১ টেবিল চামচ
তেজপাতা- ৩টি
আস্ত গরম মসলা- ৫০ গ্রাম
গরম মসলা গুঁড়ো- ১ চা চামচ
ভাজা জিরাগুঁড়ো- আধা চা চামচ
ইয়ালো সস- ২ কাপ

ইয়ালো সসের জন্য
পেঁয়াজ সিদ্ধ- ২০০ গ্রাম
তেল- ১০০ গ্রাম
আদা-রসুন বাটা- ১ টেবিল চামচ
লবণ স্বাদমতো
তেজপাতা- ২টি
হলুদঁগুড়ো- ১ টেবিল চামচ
কাশ্মীরি মরিচগুঁড়ো- ১ টেবিল চামচ
টক দই- ১ টেবিল চামচ
কাজুবাদাম বাটা- ১ টেবিল চামচ
পোস্তদানা বাটা- ১ টেবিল চামচ
গার্নিশের জন্য
সিদ্ধ সবজি (আলু, গাজর, ফুলকপি, বরবটি, কাবলি) ২০০ গ্রাম

প্রণালি
প্রথমে গরুর মাংস সব উপকরণ দিয়ে রান্না করতে হবে; তবে গরম মসলাগুঁড়ো ও জিরার গুঁড়ো বাদে। এবার অন্য একটি সসপ্যানে তেল গরম করে তেজপাতা এবং আদা-রসুন পেস্ট দিয়ে ২ মিনিট নেড়ে সিদ্ধ পেঁয়াজ ও বাকি সব উপকরণ দিয়ে ইয়েলো সস তৈরি করতে হবে। এবার অন্য একটি প্যানে একটু ঘি গরম করে রসুনকুচি দিয়ে সিদ্ধ সবজি টস করতে হবে, সঙ্গে একটু লবণ। এবার ঐ রান্না করা গরুর মাংসের সঙ্গে ইয়েলো সস ও সিদ্ধ সবজির ৩/৪ ভাগ মিশিয়ে নিন এবং গরম মসলা ও ভাজা জিরাগুঁড়ো দিয়ে দিন। পরিবেশনের সময় বাকি সবজির উপরে গার্নিশ দিয়ে দিন।

গ্লে­জি মাটন

উপকরণ
খাসির মাংস- ৮০০ গ্রাম, হাড়সহ
তেল- ৫০ গ্রাম
বাটার- ৫০ গ্রাম
পেঁয়াজকুচি- ২০০ গ্রাম
আদা-রসুন বাটা- ২ টেবিল চামচ
টক দই- ২ টেবিল চামচ
কাজুবাদাম বাটা- ১ টেবিল চামচ
চারমগজ বাটা- ১ টেবিল চামচ
পোস্তদানা বাটা- ১ টেবিল চামচ
কাঁচামরিচ- ৩/৪টি
কালো গোলমরিচ- ৪/৫টি, আস্ত
তেজপাতা ৪টি
আস্ত গরম মসলা- ৫০ গ্রাম
চিনি- ১০ গ্রাম
দুধ/মালাই- ১ কাপ
গরম মসলাগুঁড়ো- ১ চা চামচ
জায়ফল ও জয়ত্রী গুঁড়ো- ১/৪ চা চামচ
লবণ স্বাদমতো
বাগারের জন্য
ঘি- ৫০ গ্রাম
কালো কিশমিশ- ২০ গ্রাম
সাদা কিশমিশ- ২০ গ্রাম

প্রণালি
প্রথমে মাংস ধুয়ে মালাই, গরম মসলাগুঁড়ো বাদে সব উপকরণ দিয়ে রান্না করতে হবে। রান্না হয়ে গেলে মালাই এবং গরম মসলাগুঁড়ো দিয়ে নামিয়ে রাখতে হবে। এবার একটি ফ্রাইপ্যানে ঘি গরম করে কিশমিশ দিয়ে বাগার দিতে হবে। তারপর স্বাদ চেখে পরিবেশন করতে হবে।

নবাবী শাহী টুকরা

উপকরণ
পাউরুটি- ৫ টুকরা
ঘি- ১০০ মিলি
দুধ- ৩০০ মিলি
চিনি- ১০০ গ্রাম
ডিমের কুসুম- ১টি
জাফরান সামান্য
আনার, কাজুবাদাম, পেস্তাবাদাম, খেজুর, মোরব্বা সব মিলিয়ে ১০০ গ্রাম

প্রণালি
প্রথমে পাউরুটির চারপাশ কেটে ফেলে দিতে হবে এবং মাঝ বরাবর কাটতে হবে। তারপর ঘি গরম করে দুইপাশ সোনালি করে ভাজতে হবে। এবার দুধ চিনি গরম করে নিন। তারপর দুধ চিনি একটু ঠান্ডা করে ঐ ডিমের কুসুম ফেটিয়ে নিয়ে মিশিয়ে নাড়তে থাকুন। এবার একটি সার্ভিস ডিশে ঐ ভাজা রুটি দিয়ে তার উপরে ঐ মিশ্রণটি ঢেলে দিন। তারপর বাকি সব উপকরণগুলো উপরে ছিটিয়ে দিয়ে ঠান্ডা ঠান্ডা পরিবেশন করুন।