রবিবার,২৪ সেপ্টেম্বর ২০১৭
হোম / সম্পাদকীয় / বঙ্গবন্ধুর জীবনাদর্শের শিক্ষা শোক যেখানে শক্তি
০৮/১৬/২০১৬

বঙ্গবন্ধুর জীবনাদর্শের শিক্ষা শোক যেখানে শক্তি

- তাসমিমা হোসেন

আগস্ট মাস শোকের মাস। আমাদের এই বাংলাদেশের স্বাধীনতার স্থপতি, জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান এবং তাঁর পরিবারের সদস্যদের নৃশংস হত্যার ৪১তম বার্ষিকী। নৃশংস সেই হত্যাকা- ছিল মুক্তিযুদ্ধের চেতনা নির্মূল করার কূট ষড়যন্ত্র। আজও সেই ষড়যন্ত্র চলমান। ৪১ বছর আগে মানবতা-বিরোধী নৃশংসতার যে সূচনা আমাদের দেশে আমরা দেখেছিলাম, তেমনি হাজার হাজার অপরাধ বিশ্বব্যাপী সংঘটিত হচ্ছে আজও। বিশ্বে আগ্রাসী ও সাম্রাজ্যবাদী শক্তির কাছে দলিত হচ্ছে মানবতা। নিষ্ক্রিয় আজ বিশ্ববিবেক।

এ কারণে তৃতীয় বিশ্বের দেশ হিসেবে আমাদের সংগ্রামটা ঘরে-বাইরে সবখানে করতে হচ্ছে। আমরা ভাষার জন্য যুদ্ধ করেছি। স্বাধীনতার জন্য যুদ্ধ করেছি। আজ করছি মৌলবাদের বিরুদ্ধে। সেদিনের সেই স্বাধীনতা-বিরোধী চক্রের বিরুদ্ধে। সেদিনও পাকিস্তানি বাহিনী আমাদের কাফের বলে অপবাদ দিয়ে হত্যাযজ্ঞ চালিয়েছিল। ধর্মের নামের সেই রক্তপাতের ইতিহাসের পুনরাবৃত্তি ঘটেই চলেছে। এসব মানবতাবিরোধী আগ্রাসনের ধিক্কার জানাই।
এবার অনন্যা পাঠকসমীপে তুলে ধরেছে কিছু অসাধারণ মানবতাবাদীর কথা- আছে বঙ্গবন্ধুর প্রসঙ্গ, সিরিয়ার শরণার্থী কীর্তিমতী সাঁতারু ইয়ুসরা মারদিনির কথা, পুরুষবেশে একাত্তরের সম্মুখযুদ্ধে অংশ নেয়া সংগ্রামী নারী সদ্যপ্রয়াত শিরিন বানু মিতিল এবং কলমযোদ্ধা মহাশ্বেতা দেবীর কথা।
বিপথগামী মুষ্টিমেয় জঙ্গির অপতৎপরতা নস্যাৎ করতে সামাজিক আন্দোলন গড়ে তুলতে হবে। জরুরি সেসব উদ্যোগ ক্রমেই দৃশ্যমান এবং দানা বাঁধছে। বঙ্গবন্ধুর আপসহীন অঙ্গীকারবদ্ধ জীবনাদর্শ যদি আমরা অনুসরণ করি, তবে প্রগতি ও সাফল্য অর্জনের সমস্ত বাধাবিঘœ অবশ্যই একদিন অপসারিত হবে। দেশ পরিণত হবে সত্যিকারের সোনার বাংলায়।