মঙ্গলবার,২২ অগাস্ট ২০১৭
হোম / খাবার-দাবার / সালাদের নানা পদ
০৮/০১/২০১৬

সালাদের নানা পদ

- রীপা হক

রোজার পুরো মাস জুড়ে ছিল ইফতারের নানা আয়োজন, আর ঈদে ছিল ভূরিভোজ। হরেক রকম ভারি, মশলাদার খাবারদাবারের পর শরীর এখন চায় হাল্কা কিছু স্বাস্থ্যকর খাবার। যেমন সালাদ। সালাদ মানে এখন আর শুধু শসা-টমেটো নয়। সালাদ হতে পারে নানা উপাদানে তৈরি আকর্ষণীয় ডিশ। সেরকম কিছু ভিন্ন ধরনের, সুস্বাদু সালাদের রেসিপি দিয়েছেন রীপা হক।

টুনা-কর্ন-ম্যাকারনি সালাদ

উপকরণ
ম্যাকারনি- ১৬০ গ্রাম
কর্ন- ১২০ গ্রাম (ক্যানের)
টুনা- ১ ক্যান
ব্রকৌলি- ১/৪ টা (হাল্কা সিদ্ধ করা)
মেয়নেজ- ৬ টেবিল চামচ
টমেটো কেচাপ- ২ টেবিল চামচ
লবণ, গোলমরিচ পরিমাণমতো

প্রণালি
ম্যাকারনি প্যাকেটের নির্দেশের থেকে ১ মিনিট বেশি রেখে লবণ দেওয়া পানিতে সিদ্ধ করে নিতে হবে। একটা বোলে টুনা (তেল বা পানি ঝরানো), কর্ন, মেয়নেজ, টমেটো কেচাপ নিয়ে মিশিয়ে নিতে হবে। এবার তাতে ম্যাকারনি, লবণ, গোলমরিচ দিয়ে ভালোভাবে মেশাতে হবে। এবার ব্রকৌলি দিয়ে মিশিয়ে পাত্রে ঢেলে পরিবেশন করুন মজার টুনা-কর্ন-ম্যাকারনি সালাদ।

চিকেন আমন্ড সালাদ

উপকরণ
মুরগির বুকের মাংস- ২৮০ গ্রাম
চিকেন কনসোমে- ১টা
আমন্ড বা কাঠবাদাম- ৩০ গ্রাম
মেয়নেজ- ৪ টেবিল চামচ
লেবুর রস- ১/২-১ টেবিল চামচ
শশা- ১/২-১/৩ কাপ, কিউব করে কাটা
গোলমরিচ- সামান্য

পরিবেশনের জন্য:
পাউরুটি- ৬ স্লাইস
মাখন সামান্য
টমেটো, লেটুস পাতা প্রয়োজনমতো

প্রণালি
মুরগির মাংস কনসোমে দিয়ে সিদ্ধ করে নিয়ে ছোট কিউব করে কেটে নিতে হবে।
আমন্ড বা কাঠবাদাম পানিতে ভিজিয়ে খোসা ছাড়িয়ে ভেজে নিতে হবে।
এবার একটা বোলে মেয়নেজ, লেবুর রস, গোলমরিচ মিশিয়ে তাতে শশা, মাংস, বাদাম দিয়ে মেশাতে হবে।
এখন কাপ কেক মোল্ডে হাল্কা মাখন লাগিয়ে তাতে পাউরুটির স্লাইস ঢুকিয়ে কাপের মতো করে ব্রাশ দিয়ে পাউরুটির কাপে হাল্কা গলানো মাখন লাগান।
প্রি হিটেড ১৭০ ডিগ্রিতে ১০ মিনিট বা হাল্কা রঙ হওয়া পর্যন্ত বেক করে ঠান্ডা করে নিতে হবে।
এবার পাউরুটির কাপে লেটুস পাতা দিয়ে তাতে চিকেন সালাদ দিন। টমেটো স্লাইস করে দিয়ে পরিবেশন করুন মজার চিকেন আমন্ড সালাদ।

টাকো বোল সালাদ

উপকরণ
টরটিলা বা সেঁকা রুটি- ২টা
মাংসের কিমা-১৫০ গ্রাম
পেঁয়াজকুচি - ১/২ টা
টমেটো- ১টা
চিলি সস- ১ টেবিল চামচ
টমেটো কেচাপ- এক থেকে দেড় টেবিল চামচ
মরিচগুঁড়া- ১/২ চা চামচ (ইচ্ছা)
পিজ্জার চিজ- ৮০ গ্রাম
লেটুস পাতা পরিমাণমতো
ধনেপাতা কুচি, পেঁয়াজকুচি, লাল, হলুদ ক্যাপসিকাম পরিমাণমতো
তেল পরিমাণমতো

প্রণালি
একটা কেকের বাটির চারদিকে তেল বা বাটার ব্রাশ দিয়ে লাগিয়ে তাতে রুটি বা টরটিলা বিছিয়ে দিন। ১৬০ ডিগ্রি প্রি-হিটেড ওভেনে ১০-১২ মিনিট বেক করলে কেকের বাটির মতো শেপ হবে। ওভেন থেকে বের করে ঠান্ডা করতে হবে। রুটি কেটে ছোট ছোট টুকরা করে একইভাবে টরটিলা চিপস্ বানাতে হবে। একটা ফ্রাইপ্যানে তেল দিয়ে তাতে মাংস সামান্য ভেজে তাতে পেঁয়াজ দিয়ে ভাজতে হবে। এবার তাতে লবণ, চিলি সস, কেচাপ, মরিচগুঁড়া দিয়ে ভাজুন। এবার টমেটো ছোট টুকরা করে কেটে মাংসের কিমার উপর বসিয়ে তার উপর পিজ্জার চিজ বসান। ঢাকনা দিয়ে ২ মিনিট অল্প আঁচে চুলায় রাখুন। এবার টাকো বোলে লেটুস পাতা দিয়ে তার উপর মাংসের কিমা দিয়ে উপরে লেটুস পাতাকুচি, ধনেপাতাকুচি, পেঁয়াজকুচি, লাল, হলুদ ক্যাপসিকাম, চিপস দিয়ে পরিবেশন করুন মজার টাকো বোল সালাদ।

পাম্পকিন সালাদ

উপকরণ
মিষ্টি কুমড়া- ৩৫০ গ্রাম
পেঁয়াজ- ১/৪ টা
সিদ্ধ ডিম- ১টা
সিদ্ধ চিংড়ি- ১/৪ কাপ
গোলমরিচ- সামান্য
তেল- ১ টেবিল চামচ
চিনি- ১/২ টেবিল চামচ (ইচ্ছা)
ভিনিগার- ১/২ টেবিল চামচ
লবণ- ১ চিমটি
মেয়নেজ- ১ টেবিল চামচ
লেটুসপাতা, পুদিনাপাতা, কুমড়ার খোসা প্রয়োজনমতো

প্রণালি
মিষ্টি কুমড়া খোসা ফেলে সিদ্ধ করে নিতে হবে বা মাইক্রোওয়েভে ৬-৭ মিনিট রেখে সিদ্ধ করে নিয়ে কাঁটাচামচ দিয়ে ভেঙে নিতে হবে। এবার সিদ্ধ ডিম দিয়ে কুচি করে কেটে নিতে হবে। ফ্রাইপ্যানে তেল দিয়ে তাতে পেঁয়াজকুচি দিয়ে ভেজে নিন। লবণ ও চিংড়ি কুচি ভেজে কুমড়ার মিশ্রণে দিয়ে মেশাতে হবে। এবার চিনি, ভিনিগার, লবণ, মেয়নেজ, গোলমরিচ মিশিয়ে নিন। পরিবেশনের পাত্রে লেটুসপাতা, পুদিনাপাতা, ও কুমড়ার খোসায় বানানো ফুল দিয়ে সাজিয়ে ঢেলে ব্রেডসহ পরিবেশন করুন মজার পাম্পকিন সালাদ।

কোল্ড পাস্তা সালাদ

উপকরণ
টমেটো- ৪টা
চিকন স্পাগেটি বা সালাদ পাস্তা- ৭৫ গ্রাম
রসুন- ১- কোষ
অলিভ অয়েল- ২ টেবিল চামচ
শুকনা মরিচ- অর্ধেকটা বা একটা
সিদ্ধ চিংড়ি মাছ- ৬টা
ঢ্যাঁড়স- ২টা (ইচ্ছা)
পাপরিকা (লাল, হলুদ)
লবণ


প্রণালী
আস্ত ঢ্যাঁড়স লবণ দিয়ে সামান্য ফুটন্ত পানিতে ৩০ সেকেন্ড রেখে বরফ পানিতে ধুয়ে নিতে হবে। পাপরিকা, ঢ্যাঁড়স কেটে রাখতে হবে। টমেটোর মুখ স্লাইস করে কেটে নিচের কাপের অংশের ভিতর থেকে চামচ দিয়ে বিচি বের করে কাপের মতো করে ভিতরে সামান্য লবণ দিয়ে রেফ্রিজারেটরে রাখতে হবে। টমেটোর ভিতরের পাল্প ও বিচির অংশ ছোট ছোট করে কেটে অলিভ অয়েল ১ টেবিল চামচ, ও লবণ মাখিয়ে রাখতে হবে।

একটা ফ্রাইপ্যানে অলিভ অয়েল দিয়ে রসুন কুচি সামান্য ভেজে তাতে শুকনা মরিচ ভেঙে দিন। এবার তাতে চিংড়ি মাছ দিয়ে ২-১ মিনিট রেখে নামিয়ে নিন। টমেটোর রস ও বিচির অংশের মধ্যে মাখিয়ে নিন। স্প্যাগেটি প্যাকেটে লেখা সময় থেকে লবণ পানিতে ১ মিনিট বেশি সিদ্ধ করতে হবে। সিদ্ধ হলে বরফ পানিতে ধুয়ে নিতে হবে। সিদ্ধ করা স্প্যাগেটির লবণ পানি ১/৪ কাপের মত তুলে রেখে তা ঠান্ডা করে চিংড়ির মিশ্রণে দিতে হবে। এবার ঠান্ডা স্প্যাগেটি চিংড়ি মাছের মিশ্রণে ভালোভাবে মিশিয়ে নিয়ে সেটা টমেটোর কাপে ভরুন। এবার স্প্যাগেটি দিয়ে উপরে চিংড়ি মাছ, ক্যাপসিকাম, ঢ্যাঁড়স দিয়ে সাজিয়ে পরিবেশন করুন মজার কোল্ড পাস্তা সালাদ।

গাজরের সালাদ

উপকরণ
গাজর- ১টা
পেঁয়াজকলি বা স্প্রিং অনিয়ন- ১/৩ মুঠো।
তিলের তেল- ১ টেবিল চামচ
ভিনিগার - ২ চা চামচ
লবণ- ১/৪ চা চামচ
শসা, লেটুসপাতা

প্রণালি
গাজর চিকন কুচি করে কাটতে হবে। পেঁয়াজ পাতা ছোট ছোট কুচি করতে হবে। গাজর কুচিতে তিলের তেল দিয়ে হাতে ভালোভাবে মাখিয়ে নিন। এবার ভিনিগার, লবণ দিয়ে মাখিয়ে নিয়ে পেঁয়াজ কলি দিয়ে মাখিয়ে ১-২ ঘণ্টা রেফ্রিজারেটরে রাখুন। শশা পাতলা স্লাইস করে পরিবেশনের পাত্রে ফুলের পাপড়ির মত করে তাতে গাজর সালাদ দিয়ে মাঝখানে আবার গাজরের সালাদ দিয়ে তার উপর লেটুস পাতা, বা পছন্দের হার্ব রেখে ঢেকে দিন ডেকোরেশন করে পরিবেশন করুন মজার গাজরের সালাদ।

পটেটো সালাদ

উপকরণ
আলু- ৩৫০ গ্রাম
সিদ্ধ চিংড়ি মাছ- ৪-৫টা (ছোট টুকরা করা)
শসা- ১টা
সিদ্ধ ডিম- ২টা (ছোট টুকরা করা)
চিনি- ১ টেবিল চামচের সামান্য কম
বাটার- ১/২ টেবিল চামচ
ভিনিগার- ১ টেবিল চামচ
মেয়নেজ- ৪ টেবিল চামচ
লবণ, গোলমরিচ পরিমাণমতো

সাজানোর জন্য
লেটুসপাতা, শুকনা মরিচ স্লাইস, শসা স্লাইস, কর্ন, পেঁয়াজ কিউব, গাজর কুচি, পুদিনাপাতা

প্রণালি
আলু ছিলে স্লাইস করে চিনি দিয়ে সিদ্ধ করে নিতে হবে। সিদ্ধ করার সময় পানি ভালোভাবে শুকিয়ে নিন। শশা ধুয়ে পাতলা স্লাইস করে লবণ দিয়ে কচলিয়ে চিপে পানি ফেলে দিন। সিদ্ধ আলুতে মাখন ও ভিনিগার দিয়ে মিশিয়ে নিয়ে ঠান্ডা হলে শশা, ডিম, চিংড়ি মাছ, মেয়নেজ, লবণ, গোলমরিচ দিয়ে ভালোভাবে মিশিয়ে রেফ্রিজারেটরে ঠান্ডা করে নিতে হবে। এবার পরিবেশনের পাত্রে পটেটো সালাদ গোল করে দিয়ে তার চারপাশে লেটুস পাতা, বা শসা স্লাইস উপরে কর্ন, পেঁয়াজ কিউব, গাজর কুচি, মরিচ কুচি পুদিনা পাতা দিন ডেকোরেশনের পর পরিবেশন করুন মজার পটেটো সালাদ।

ফ্রুট এন্ড ইয়োগার্ট পারফে

উপকরণ
কলা-১/২টা
বেরী- ২টা
কিউই- ১/২টা
বা পছন্দমতো অন্য ফল- ১/২ কাপ
টক দই- ২ কাপ
বেরী জ্যাম বা ব্লুবেরী জ্যাম- ২/৩ টেবিল চামচ
মধু - ১/২ টেবিল চামচ
কর্নফ্লেক্স- ১/৪ কাপ
অথবা গ্রানোলা - ১/৪ কাপ

প্রণালি
টক দইয়ের সাথে মধু মিশিয়ে নিতে হবে। পারফে পরিবেশনের পাত্রে প্রথমে ইয়োগার্ট পরে কিউই ফল, তার উপর কর্নফ্লেক্স বা গ্রানোলা দিতে হবে। এবার বানানা স্লাইস নিন। ওপরে জ্যাম দিন। তার উপর স্ট্রবেরি দিয়ে সাজিয়ে নিন। এবার পরিবেশন করুন মজার ফ্রুট এবং ইয়োগার্ট পারফে।