মঙ্গলবার,১৮ সেপ্টেম্বর ২০১৮
হোম / ফ্যাশন / ঈদ উৎসবের সাজ
০৬/১৬/২০১৬

ঈদ উৎসবের সাজ

- নেহেরীন আফনান আহমেদ

ঈদের উৎসবমুখর পরিবেশে নিজেকে বিশেষ সাজে সাজিয়ে তুলতে কমবেশি সবার মাঝেই একটা বাড়তি প্রস্তুতি ইতোমধ্যেই শুরু হয়ে গিয়েছে। বিশেষ করে তরুণ কিংবা ঈদের দিনে যাদের এখানে ওখানে বেড়াতে যাবার অভ্যেস রয়েছে তাদের জন্য ঈদের সাজ নতুন ঈদ পোশাকের মতোই গুরুত্বপূর্ণ।
এবারের সাজে গরম ও বৃষ্টির বিষয়টি মাথায় রাখতে হবে। ঈদের আগে অবশ্যই মেনিকিউরটা সেরে ফেলুন। প্রয়োজনে পেডিকিউরও করিয়ে নিন। এছাড়াও ফেশিয়াল, ওয়াক্সিং, হেয়ার ট্রিটমেন্ট সেরে ফেলুন ঈদের বেশ কিছুদিন আগেই। ত্বকের সাথে মানানসই একটি ফেইস প্যাক লাগিয়ে নিন ঈদের আগের রাতে।

চুল ভালো রাখার প্রধান উপায় চুল পরিষ্কার রাখা। প্রয়োজন হলে প্রতিদিনই চুল শ্যাম্পু করা দরকার। শ্যাম্পু শেষে কন্ডিশনার ব্যবহার করতে ভুলবেন না। সপ্তাহে দুদিন বা একদিন চুলে যতœ নিতে হবে। ভালোমতো চুলে তেল ম্যাসাজ করে ডিমের সঙ্গে বাটা মসুর ডাল মিশিয়ে চুলে মেখে একঘণ্টা রেখে ধুয়ে ফেলতে হবে। মাথায় খুশকি থাকলে নিমপাতাবাটা ব্যবহারে উপকার পাওয়া যাবে। ঈদের আগে চুলে টকদই ও ডিম মেশানো একটি প্যাক লাগিয়ে রাখুন ৩০ মিনিট। এরপর ধুয়ে ফেলুন চুল। এই প্যাকটি লাগালে ঈদের দিন আপনার চুল ম্যানেজ করা সহজ হবে।
ঈদ যেহেতু গরমে তাই সকালের সাজটা হওয়া চাই স্নিগ্ধ। সেটা হতে পারে হালকা সুতি সালোয়ার কামিজের সাথে কানে ছোট টব, হাতে পাতলা ব্রেসলেট বা চুড়ি, গলায় ছোট লকেট পাতলা চেইন, ঠোঁটে হালকা লিপগ্লস।

এবার দুপুর গড়িয়ে বিকেল আসতে আসতে বাসায় বিভিন্ন মেহমান বা আপনার বন্ধুবান্ধবদের সাথে বাইরে ঘোরার পালা শুরু হবে। বিকেলেও হালকা মেকআপই ভালো লাগবে।

ঈদে রাতে একটু জমকালো ভাবে সাজা হয়। রাতে যদি কোথাও দাওয়াত থাকে তাহলে একটু জমকালো শাড়ি অথবা জমকালো কামিজ পরে নিন। রাতের বেলা গাঢ় রং বেশ মানাবে। এক্ষেত্রে কালো, লাল, মেরুন, রয়েল ব্লু, গাঢ় সবুজ, মেজেন্টা, বেগুনি ইত্যাদি রং বেছে নিতে পারেন। পায়ে পরে নিন মানানসই হিল জুতা। পোশাকের সাথে মিলিয়ে একটি পার্সও নিয়ে নিন। মেকআপের ক্ষেত্রে চোখ ও ঠোঁটকে প্রাধান্য দিন। চোখের মেকআপ গাঢ় হলে ঠোঁটে হালকা রং-এর লিপস্টিক দিন। আর ঠোঁটে গাঢ় লিপিস্টিক লাগালে চোখে হালকা রং-এর আইশ্যাডো লাগিয়ে নিন। একটু ব্লাশন ব্যবহার করুন রাতের মেকআপে।

পারফেক্ট লুকের ক্ষেত্রে চুলের সাজটাও গুরুত্বপূর্ণ। তাই পোশাক ও ত্বকের সাজের সঙ্গে মিল রেখে চুলের পারফেক্ট লুকটা তুলে ধরুন।
বর্তমান ট্রেন্ডে গাঢ় উজ্জ্বল রঙের নেইল পলিশের প্রচলন বেশি। বিশেষ করে পায়ের নখে তো বটেই। আপনি যদি খোলা জায়গায় হাঁটতে চান বা খোলা স্যান্ডেলে হাঁটতে চান তাহলে অবশ্যই পোশাকের ভেতর থেকে গাঢ় একটি রং বাছাই করুন। এবার সেই রঙের নেইল পলিশ লাগিয়ে নিন। অল্প বয়সিরা হাতের নখে করতে পারে নানারকম নেইল আর্ট। হাতের পাঁচটি আঙুলে দুটি বা তিনটি রঙের নেইল পলিশের নেইলপলিসের মিশ্রণ এখন দারুণ চলছে। সেভাবে সাজিয়ে নিতে পারেন আপনিও।

সাজে পারফিউম খুব সহজেই আমাদের মন দখল করে নেয়। তাই ঈদ আয়োজনের সাজে পূর্ণতা আনতে ও নিজেকে সতেজ-প্রাণবন্ত রাখতে সাজের সঙ্গে পারফিউমের ব্যবহারটাও গুরুত্বপূর্ণ।
বয়স, শরীর কাঠামো, আবহাওয়া বুঝে প্রাণ ভরে সাজুন এই ঈদে। উৎসবে রঙিন হয়ে উঠুক সবার দিন। ঈদ মোবারক!