শুক্রবার,২১ সেপ্টেম্বর ২০১৮
হোম / খাবার-দাবার / আপেলের রাবড়ি
০৬/০১/২০১৬

আপেলের রাবড়ি

- শাহনাজ ইসলাম

গত চার-পাঁচ বছর ধরে রান্নার প্রতি ভালোবাসাটা যেন এক নেশায় পরিণত হয়েছে। সংসারের কাজের ফাঁকে ফাঁকে তাই নিত্যনতুন রান্না ও বেকিং করতে শুরু করেন। সবচেয়ে ভালো লাগে দেশি-বিদেশি ডেজার্ট তৈরি করতে। ইফতারের জন্য দিয়েছেন মজার রেসিপি।

উপকরণ
আপেল- ৪টি
কনডেন্সড মিল্ক- ৪ টেবিল চামচ
চিনি- ৩ টেবিল চামচ, দুধ- ১ কাপ
মাখন/ঘি- ২ টেবিল চামচ
মাওয়া বা গুঁড়ো দুধ- ৩ টেবিল চামচ
এলাচ- ২টা, গুঁড়ো করা
কাঠবাদাম ও পেস্তাবাদাম কুচি- সাজানোর জন্য

প্রণালি
আপেলগুলো ভালো করে ধুয়ে নিন। আপেলের খোসা ছিলে কুচি করে নিন। তলাভারি একটি পাত্র মাঝারি আঁচে গরম করে নিন। এতে গলিয়ে নিন দুই টেবিল চামচ মাখন অথবা ঘি। এতে আপেল কুচিটুকু দিয়ে দিন। নেড়েচেড়ে সাঁতলে নিন আপেল, যতক্ষণ না রান্না হয়। ৫-৭ মিনিটের মাঝেই হয়ে যাবে। আপেলের মাঝে চিনিটুকু দিয়ে দিন এবং ক্রমাগত নাড়তে থাকুন। কনডেন্সড মিল্ক আলাদা করে রাখুন। এটা দিলে রাবড়ির স্বাদটা দারুন হবে আর রান্নাও তাড়াতাড়ি হয়ে যাবে। চিনি দেবার পর আপেলটা ঘন এবং একটু স্বচ্ছ হয়ে আসবে। আপেল ভালোভাবে রান্না না হওয়া পর্যন্ত দুধ দেবেন না। দুধ কেটে যেতে পারে। তাই এই পর্যায়ে সাবধান থাকুন। আপেল রান্না হয়ে এলে এতে কনডেন্সড মিল্ক এবং দুধটুকু দিয়ে দিন। ভালো করে মিশিয়ে ফেলুন। ক্রমাগত নাড়ুন। এরপর মাওয়া দিয়ে দিন রাবড়িতে। মাওয়া মিশিয়ে নেবার পর এলাচিগুঁড়ো মিশিয়ে নিন। মিশ্রণটি বেশ ঘন হয়ে আসবে। লক্ষ্য রাখুন যেন পুড়ে না যায়। আরও ৫ মিনিট পর্যন্ত রান্না করুন। নামানোর আগে ওপরে বাদামকুচি দিয়ে দিন। সার্ভিং ডিশে ঢেলে গরম অবস্থাতেই পরিবেশন করতে পারেন আপেল রাবড়ি। এছাড়া ফ্রিজে রেখে ঠান্ডা করেও খেতে পারেন।

টিপস
মাওয়া না থাকলে সাধারণ গুঁড়ো দুধ ব্যবহার করতে পারেন। কনডেন্সড মিল্ক না থাকলে বা ব্যবহার করতে না চাইলে ফুল ফ্যাট মিল্ক ফুটিয়ে ঘন করে নিতে হবে। ভ্যানিলা এসেন্স ব্যবহার করতে পারেন ফ্লেভার বাড়াতে।